ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১

মালাইকার গর্ভবতীর গুঞ্জনে যা বললেন অর্জুন কাপুর

প্রকাশিত: ১৮:২৬, ১ জুন ২০২৩; আপডেট: ১৭:৪৫, ২ জুন ২০২৩

মালাইকার গর্ভবতীর গুঞ্জনে যা বললেন অর্জুন কাপুর

মালাইকা ও অর্জুন কাপুর

বলিউড তারকা অর্জুন কাপুর এবং মালাইকা অরোরা অন্যতম জনপ্রিয় জুটি। সম্প্রতি তারা আবারও খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। এক বছর আগে, একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছিল যে মালাইকা গর্ভবতী। সেটি আবারও আলোচনা এসেছে।

মালাইকার গর্ভাবস্থার গুজব ২০২২ সালের নভেম্বরে শুরু হয়েছিল। আর এবার অর্জুন কাপুর একটি ইনস্টাগ্রাম পোস্টে দাবিগুলো খারিজ করেন। পাশাপাশি তিনি বলেন, এ খবর সত্য় নয়। তাই বিভ্রান্তি ছড়ানো বন্ধ হোক। ‘দ্যা ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’-এ প্রকাশিত খবরে এ তথ্য জানা গেছে।

মালাইকার গর্ভাবস্থার রিপোর্ট সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, অর্জুন বলেন, নেতিবাচকতাকে তুলে ধরা সহজ। আমার মনে হয়, মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য়ই এই ধরণের গুজব ছড়ানো হচ্ছে। আমাদের ব্যক্তিগত জীবন সবসময় খুব ব্যক্তিগত হয় না। তবে সেলিব্রিটিদেরও ব্য়ক্তিগত জীবন আছে, সেটাকে সম্মান জানানো উচিত।

তাদের সম্পর্ক একেবারে খোলা খাতার মতো। একে অপরকে আগলে রাখতে, ভালোবাসার স্বীকারোক্তিতে সবসময়েই অকপট তারা। বলিউডের এ জুটিকে নিয়ে অনেক চর্চা থাকলেও সেই সবকিছুকে থোড়াই কেয়ার করে তারা প্রমাণ করে দিয়েছেন, শেষ কথা বলে ভালোবাসাই।

কিছুদিন আগে, এক সাক্ষাৎকারে বিয়ে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন মালাইকা অরোরা। এর আগেও একবার বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন মালাইকা। আরবাজ খানের সঙ্গে দীর্ঘ সম্পর্ক ছিল তার। এ প্রাক্তন জুটির এক পুত্রও রয়েছে। সেই বৈবাহিক সম্পর্ক ভেঙে অর্জুনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান মালাইকা। বয়সে অর্জুন অভিনেত্রীর থেকে বেশ কিছুটা ছোট হলেও তাদের রসায়ন নিয়ে কখনো কারও মনে প্রশ্ন ওঠেনি। একে অপরের মধ্যে ডুবে থাকেন তারা। সেই সুর সাক্ষাৎকারের উত্তর দিতে গিয়ে ধরা পড়েছিল মালাইকার গলায়।

অভিনেত্রী সোজাসাপ্টা জানিয়েছিলেন, অনেকেই ভাবেন আমি আর বিয়ের বন্ধনে বিশ্বাস করি না। কিন্তু এটা সম্পূর্ণ ভুল। আমি বিয়েতে বিশ্বাস করি। অর্জুনের সঙ্গে বিয়ের কথাও আমি ভেবেছি। আমি ভালোবাসা, একসঙ্গে থেকে যাওয়ায় বিশ্বাসী। তবে হ্যাঁ, কবে বিয়ের পিঁড়িতে বসছি, এই সময় আমি বেঁধে দেব না কখনোই। কারণ আমি বিশ্বাস করি জীবনে সব কিছু পরিকল্পনা মাফিক হয় না। আমার তো হয় ই না। জীবনে কিছু সিদ্ধান্ত হঠাৎ করেই আসে, হঠাৎ নিতে হয় আর সেটাই কাম্য।

 

 

এমএস

×