ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

২০২৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষা ঠিক সময়ে হচ্ছে না?

প্রকাশিত: ২০:৪২, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

২০২৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষা ঠিক সময়ে হচ্ছে না?

এইচএসসি পরীক্ষা।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আগামী বছরও যথাসময়ে হচ্ছে না। এমনকি সংক্ষিপ্তই থকাছে সিলেবাস। মূল সিলেবাসের মাত্র ৬০ শতাংশে হবে মূল্যায়ন।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি জানিয়েছে, নির্দিষ্ট সংখ্যক ক্লাস না হওয়ায় ২০২৪ সালেও সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নিতে হচ্ছে এ পরীক্ষা।

করোনার ধকল কাটিয়ে দেশের শিক্ষাঙ্গন বেশ আগেই ফিরেছে স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে। তারপরও যেন মুক্তি মিলছে না করোনা পরবর্তী নানা চ্যালেঞ্জ থেকে। অবশ্য আগামী বছরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা যথাসময়ে (ফেব্রুয়ারি) করার পরিকল্পনা নিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি। কিন্তু যথাসময়ে (এপ্রিল) হচ্ছে না এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। করোনা ছাড়াও বন্যাসহ নানা কারণে যথাসময়ে ক্লাস শুরু করতে দেরি হওয়ায় পরীক্ষাটি অনুষ্ঠিত হবে জুনে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক তপন কুমার সরকার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সাধারণত আমরা এইচএসসি পরীক্ষাটা নিয়ে থাকি এপ্রিলে। তবে এপ্রিলে এ পরীক্ষা নিলে শিক্ষার্থীরা ক্লাশ করার সময় পাচ্ছেন মাত্র দেড় বছর। যেহেতু তারা পূর্ণাঙ্গ সময় ও ক্লাস পাচ্ছে না, সেহেতু পুনর্বিন্যাসিত সিলেবাসটি বিবেচনা করা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে পরীক্ষাটা নেয়া হবে আগামী বছর জুনের মাঝামাঝিতে। সাধারণত একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে ২৭০ কর্মঘণ্টা ক্লাস হয়। তবে আশা করছি, পরিমার্জিত সিলেবাসটা ১৭০ কমর্ঘণ্টা ক্লাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে।’

এদিকে, ২০২৪ সালের জন্য এইচএসসির সিলেবাস ২০২৩ সালের মতো ৪০ শতাংশ কমিয়ে ৬০ শতাংশে নামিয়ে আনা হয়েছে। তবে সময় তিন ঘণ্টাই থাকবে, আর পরীক্ষা হবে প্রতিটি ১০০ নম্বরে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড বলছে, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে সাধারণত ২৭০ কর্মঘণ্টা ক্লাস হয়। কিন্তু সময় স্বল্পতার কারণে ১৭০ কমর্ঘণ্টা ক্লাসের পরিকল্পনা নিয়ে সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে সিলেবাস। তবে আগামী ২০২৫ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা যথাসময়ে ফেব্রুয়ারি ও এপ্রিলে হবে।

 

এম হাসান

×