ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

শাবিতে চার দিনব্যাপী ‘দিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব’

প্রকাশিত: ২১:১৩, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২

শাবিতে চার দিনব্যাপী ‘দিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব’

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

যুগান্তরে দিক’ শিরোনামে চার দিনব্যাপী ‘দিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব’ এর আয়োজন করতে যাচ্ছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের  (শাবিপ্রবি) অন্যতম নাট্য সংগঠন দিক থিয়োটার।  

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হয়ে রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত চলবে এ উৎসব।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন দিক থিয়েটারের সভাপতি আবদুল বাসিত সাদাফ।

তিনি বলেন, চলতি বছরের ১৮ই আগস্ট দিক থিয়েটার ২৪ বছরে পদার্পণ করেছে। ২৪ তম বর্ষে পদার্পণ উদযাপনে ‘যুগান্তরে দিক’ শিরোনামে চার দিনব্যাপী ‘দিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় নাট্যোৎসব-২২’ আয়োজন করতে যাচ্ছে। আয়োজনের প্রথম দিন ২১ সেপ্টেম্বর দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ইউনিভার্সিটি সেন্টার’র সামনে থেকে একটি উৎসব র‌্যালি বের হবে। পরে দুপুর দেড়টায় কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা হবে।

তিনি আরো বলেন, ২২ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে শাবির দিক থিয়েটারের পরিবেশনায় পাপ্পু রায়’র নির্দেশনায়’ ও আবদুল বাসিত সাদাফ’র পুনঃনির্দেশনায় ‘এবং ইন্দ্রজিৎ’ নাটক মঞ্চায়িত হবে। উৎসবের ২য় দিন ২৩ সেপ্টেম্বর একই সময়ে একই স্থানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ’র পরিবেশনায় দিগার মো. কৌশিক’র নির্দেশনায় ফ্লোয়েড ডেল রচিত ‘সুইট অ্যান্ড টুয়েন্টি’ নাটক মঞ্চায়িত হবে।

তাছাড়া নাট্যোৎসবের শেষ দিন ২৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্য সংগঠন ‘জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রঙ্গভূমি’র পরিবেশনায় সেলিম আল দীন রচিত ‘কিত্তনখোলার কিচ্ছা’ নাটক অমিত সাহা’র রূপান্তরে ও মাসফিকুল হাসান টনি’র নির্দেশনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনাতনে মঞ্চায়িত হবে।

‘নাটকে সাম্যের আন্দোলন,জীবনের ভাষায় মুক্তি অন্বেষণ’ স্লোগানকে সামনে রেখে ১৯৯৯ সালের ১৮ আগস্ট যাত্রা শুরু করে দিক থিয়েটার। এরপর থেকে নাট্যচর্চাকে আরও সমৃদ্ধ করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে দীর্ঘ ২৪ বছর পাড়ি দিয়েছে সংগঠনটি। ইতোমধ্যে নাট্যোৎসব, মঞ্চনাটক, পথনাটক, চ্যারিটি নাটক ইত্যাদির নাট্যচর্চা অব্যাহত রেখেছে সংগঠনটি।

 

এমএস

monarchmart
monarchmart