ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১৯ আগস্ট ২০২২, ৪ ভাদ্র ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

সেমিনারে বিএসইসি চেয়ারম্যান

স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য শেয়ারবাজারে আলাদা বোর্ড  

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১১:৫১, ৫ আগস্ট ২০২২

স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য শেয়ারবাজারে আলাদা বোর্ড  

বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম

স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য শেয়ারবাজারে আলাদা বোর্ড গঠনের পরিকল্পনার কথা জানিয়ে শেয়ারবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, যোগ্য স্টার্টআপ কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের সুযোগ দেয়া হবে। 

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাজধানীর নিকুঞ্জের ডিএসই ভবনে ‘ক্যাপিটাল মার্কেট অব বাংলাদেশ প্রস্পেক্ট এ্যান্ড অপারচুনিটিস ফর টেক স্টার্টআপ এ্যান্ড গ্রোথ স্টেজ কোম্পানিজ’ শীর্ষক সেমিনারে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, ব্যাংক গ্রাহকদের কাছ থেকে আমানত নিয়ে ঋণ দেয়। অন্যদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ঋণ দিতে ব্যাংকগুলোকে অনেক সাবধান হতে হয়। এছাড়া জামানত নিতে হয়। কিন্তু স্টার্টআপ কোম্পানিগুলো নতুন জেনারেশন গঠন করে। এদের পক্ষে জামানত রাখা সম্ভব হয় না। তবে, তাদের কোম্পানি চালানোর জ্ঞান এবং ইনোভেটিভ পরিকল্পনা থাকে। এ জাতীয় কোম্পানিকে কমিশন সহযোগিতা করবে।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, স্টার্টআপ কোম্পানিগুলোর মধ্যে যারা ভাল করছে, যাদের গ্রোথ ভাল আমরা তাদের শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করার সুযোগ দেব। তবে, সবার জন্য এ সুযোগ ওপেন করে দেয়া হবে না। তাহলে যারা খারাপ তারা এসে যারা ভাল করছে তাদের পরিবেশ খারাপ করে দেবে।

স্টার্টআপ কোম্পানির মুনাফা করতে সময় লাগে। তবে লোকসানে থাকলেও ছাড় বা সুযোগ দিয়ে (ওয়েভার) শেয়ারবাজারে আসতে দেয়ার সুযোগ আছে। আর এ সুযোগ করে দেব। তবে, আইন পরিবর্তন করে সব লোকসানি স্টার্টআপ কোম্পানিকে শেয়ারবাজারে আনা যাবে না। তাহলে যেসব কোম্পানি কর্তৃপক্ষ ব্যক্তি স্বার্থ উদ্ধারে ফন্দিফিকির করে, তারা সুযোগ নেবে।

তিনি বলেন, আমাদের কোন কোম্পানির অর্থ উত্তোলনের সুযোগ দেয়ার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের দিকটিও দেখতে হয়। তাই সবকিছু কোম্পানি কর্তৃপক্ষের মনোপুত নাও হতে পারে। তবে, এটা কাউকে নিরুৎসাহিত করার জন্য না করি না। কারণ আমাদের কোম্পানির পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের স্বার্থের দিকটিও বিবেচনা করতে হয়। আমাদের ক্ষেত্রে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় আমরা বামে গেলে ডান মন খারাপ করে, আবার ডানে গেলে বাম মন খারাপ করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। 

সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, আমাদের দুয়ার সবসময় স্টার্টআপ কোম্পানির জন্য খোলা। আপনারা কমিশনে আসেন। আপনাদের কথা গুরুত্বসহকারে শুনতে চাই। সমস্যা থাকলে তা সমাধান করা হবে। আমাদের দেশে ফান্ডের সমস্যা নেই, আছে স্পৃহার অভাব। বর্তমানে আমাদের দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইর পিই ১৫-এর কাছাকাছি। যা বিনিয়োগের জন্য খুবই ভালো। 

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চেয়ারম্যান মো. ইউনুসুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এনএম জিয়াউল আলম, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান, ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তারেক আমিন ভূঁইয়া, ডিএসইর পরিচালক শাকিল রিজভী প্রমুখ।

শীর্ষ সংবাদ:

নিত্যপণ্য ক্রয়ক্ষমতায় রাখতে পদক্ষেপ নেবে সরকার
শাস্তিমূলক ব্যবস্থায় আপত্তি থাকবে না: চীনা রাষ্ট্রদূত
বঙ্গোপসাগরে ফের লঘুচাপ : সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর সতকর্তা
চীনে আকস্মিক বন্যায় ১৬ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৩৬
পাকিস্তান থেকেও হত্যার হুমকি পেলেন তসলিমা নাসরিন
দাবি আদায়ে মাধবপুরে চা শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ
ডলারের দাম কমেছে ১০ টাকা, স্বস্তিতে ডলার
ডিমের দাম হালিতে কমলো ১০ টাকা
আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য
রেলওয়ে জমির অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদে শহরজুড়ে মাইকিং
আন্দোলন অব্যাহত, চা শ্রমিকরা দাবিতে অনড়
ভক্তদের পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ার পরামর্শ দিলেন ওমর সানী