সোমবার ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

নেত্রকোনায় স্কুল শিক্ষিকার আত্মহত্যা

নেত্রকোনায় স্কুল শিক্ষিকার আত্মহত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, নেত্রকোনা ॥ জেলার কেন্দুয়া উপজেলা সদরের আরামবাগ এলাকায় বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে ঝুলে মেহেরুন্নেছা নেলী (৪৫) নামে এক স্কুল শিক্ষিকা আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার দিনগত রাত ১২টার দিকে পুলিশ ওড়নার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে।

মেহেরুন্নেছা নেলী আরামবাগ এলাকার আব্দুল আজিজের স্ত্রী। আব্দুল আজিজ ওই উপজেলার দুখিয়ারগাতী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। আর নেলী একই উপজেলার জয়কা সাতাশি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

পরিবারের বরাতে ওসি মীর মাহবুবুর রহমান জানান, বৃষ্টিজনিত কারণে ওই দম্পতির দুই মেয়ে আগেরদিন স্কুল থেকে কিছুটা দেরি করে বাসায় ফিরে। এ কারণে নেলী তাদের প্রতি উত্তেজিত হন। এ নিয়ে রাত ১১টার দিকে বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে তিনি মেয়েদের মারতে উদ্যত হন। তখন ছোট মেয়ে ও তার বাবা বাসার একটি কক্ষে এবং বড় মেয়ে আরেকটি কক্ষে গিয়ে ভেতর থেকে ছিটকিনি লাগিয়ে দেয়।

এতে নেলী আরও বেশি উত্তেজিত হয়ে যান। উত্তেজনার বশে তিনিও বাইরে থেকে মেয়েদের কক্ষের ছিটকিনি আটকে দেন। এরপর অন্য একটি কক্ষে ওড়নার সাহায্যে বৈদ্যুতিক পাখায় ঝুলে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে রাত ১২টার দিকে থানা পুলিশ ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে।

ওসি আরও বলেন, জানতে পেরেছি, নেলী ছোটবেলা থেকেই খুব জেদী স্বভাবের। মেয়েদের প্রতি রাগান্বিত হয়ে উত্তেজনার বশে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। সুরতহালে তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। কারও অভিযোগ না থাকায় পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে মেহেরুন্নেছা নেলীর মৃত্যুতে কেন্দুয়া উপজেলা সদরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। জানা গেছে, নেলী শিক্ষকতার পাশাপাশি উপজেলা সদরের বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। একজন সমাজসেবিকা হিসেবেও পরিচিত ছিলেন তিনি।

শীর্ষ সংবাদ: