সোমবার ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

নিয়মিত আম খাওয়ার উপকারীতা

নিয়মিত আম খাওয়ার উপকারীতা

অনলাইন রিপোর্টার ॥ গরমে স্বাদে আমকে টেক্কা দিতে পারে, এমন ফল কমই রয়েছে। তাই গ্রীষ্ম এলেই বাজারে হিমসাগর থেকে গোলাপখাস, সব রকম আমের কদর থাকে। গরমে ক্ষুধা মেটাতে আম খাওয়ার প্রবণতা সবার মধ্যে দেখা যায়।

শুধু স্বাদ নয়, গুণের দিক থেকেও অন্যান্য আম। বিশেষ করে নারীদের জন্য আম অনেক উপকারী। পেট থেকে ত্বক-চুল বিভিন্ন সমস্যা মেটাতে আমের ভূমিকা আছে। পুষ্টিবিদদের মতে, আমের শাস থেকে আঁটি পুরোটা থেকেই উপকার মেলে।

১. কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে

আমে রয়েছে উচ্চ পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ ও ফাইবার। ফলে রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। তাই পরিমাণ বুঝে নিয়মিত আম খান।

২. স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়

আমে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট; যা ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে। নারীদের স্তন ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতেও সাহায্য করে। তাই গরমে বিভিন্ন রোগের ঝুঁকি কমাতে প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় আম রাখুন।

৩. দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করতে

মানুষের শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ‘এ’-র চাহিদার প্রায় ২৫ শতাংশের জোগান দিতে পারে আম। আর ভিটামিন ‘এ’ চোখের জন্য খুবই উপকারী।

৪. ত্বকের যত্নে

ত্বকের যত্নেও দারুণ ভূমিকা পালন করে আম। আমের আঁশে থাকা ভিটামিন ‘সি’ ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। আম বাটা মাখলেও ত্বকে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার হয়। গরমে ত্বকের যত্ন নিতে ভরসা রাখতে পারেন আমকে।

৫. হজমশক্তি বৃদ্ধি করে

যারা হজমের সমস্যায় ভুগেন, তারা গরমে সুস্থ থাকতে আম খেতে পারেন। আম শরীরের প্রোটিন অণুগুলো ভেঙে ফেলে। সঙ্গে হজমশক্তি বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে।

তবে আম বেশি পরিমাণে খেলে ফলাফর উল্টো হতে পারে। তাই সব কিছু পরিমাণ মত খেতে হবে।

শীর্ষ সংবাদ: