বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়বে না, আজ জরুরী বৈঠক

  • আতঙ্কিত হয়ে পণ্য ক্রয় নয়

এম শাহজাহান ॥ করোনার বিস্তার ঠেকাতে বিধিনিষিধে ভোগ্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে বেশকিছু কৌশল গ্রহণ করা হচ্ছে। এতে নতুন করে জিনিসপত্রের দাম আর বাড়বে না। বিশেষ করে সারাদেশে চাল, ডাল, ভোজ্যতেল, চিনি, আটা, মাছ-মাংস এবং সবজির মতো পণ্যের সরবরাহ নিশ্চিত করতে পণ্যবাহী যান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। ভোগ্যপণ্যের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম দ্রুত সময়ের মধ্যে করতে বন্দরগুলোতে বিশেষ নজরদারি বাড়াবেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব ধরনের কাঁচাবাজার চালু রাখতে পারবেন ব্যবসায়ীরা। স্বল্প আয়ের মানুষের সুবিধার্থে টিসিবির ট্রাকসেল কার্যক্রম চালু থাকবে। বিধিনিষেধের সুযোগ নিয়ে পণ্যের দাম বাড়ানো হলে কঠোর ব্যবস্থা নেবে সরকারের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ইতোমধ্যে বিধিনিষেধ আরোপের খবরে নিত্যপণ্যের বাড়তি চাহিদা তৈরি হয়েছে বাজারে। এ কারণে বেশিরভাগ পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আজ বুধবার দুপুরে জরুরী বৈঠক ডেকেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

জানা গেছে, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তাররোধে বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছেÑ এই খবরে আগেভাগে বেড়ে গেছে বেশিরভাগ ভোগ্যপণ্যের দাম। গত এক সপ্তাহ ধরে ভোগ্যপণ্যের বাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে। সরকারের নির্দেশ তোয়াক্কা না করেই ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমতো ভোজ্যতেলের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। প্রতিটি পাঁচ লিটারের বোতলজাত ক্যান মানভেদে বিক্রি হচ্ছে ৭৬০-৭৮০ টাকায়। এছাড়া খোলা সয়াবিনও পামওয়েলে লিটারপ্রতি ৫-১০ টাকা দাম বেড়ে গেছে। ভোজ্যতেলের পাশাপাশি চাল, ডাল, আটা, ডিম, ব্রয়লার মুরগি এবং পেঁয়াজের মতো পণ্যের দাম বেেেড় গেছে। এ কারণে নিত্যপণ্যের দাম কমিয়ে বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার পরামর্শ দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বিধিনিষেধের সময় পণ্যবাহী যে কোন ট্রাক, লড়ি, ভ্যান ও অন্যান্য যানবাহন সরকারের বিশেষ সুবিধা নিয়ে পণ্য সরবরাহ করতে পারবে। এক্ষেত্রে সরকারী নির্দেশনাও ঘোষণা করা হবে। ভোগ্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণ এবং মানুষের যাতে কষ্ট না হয় সেজন্য পণ্যবাহী যানবাহন চলতে পারবে দিবা-রাত্রি ২৪ ঘণ্টা। এক্ষেত্রে ফেরি পারাপার ও জ্বালানি সংগ্রহে তাদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। এছাড়া রাস্তায় যাতে পণ্যবাহী যানবাহন চাঁদাবাজির শিকার হতে না পারে সেলক্ষ্যে পুলিশের বিশেষ ইউনিট কাজ করবে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এর পাশাপাশি বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে পণ্যপরিবহনে সহযোগিতা দিতে ২৪ ঘণ্টার জন্য নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালুর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

এদিকে নতুন করে দেয়া বিধিনিষেধের মধ্যে জিনিসপত্রের দাম বাড়তে পারে এ আশঙ্কার কথা আগে জানিয়ে দিয়েছেন ভোগ্যপণ্যের ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছেÑ বিধিনিষেধের মধ্যে ভোগ্যপণ্যের বাজার স্বাভাবিক রাখার কৌশল গ্রহণ করা হয়েছে। ওই সময় সব ধরনের পণ্যবাহী যান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দ্রব্যমূল্য পর্যালোচনা ও পূর্বাভাস সেলের উদ্যোগে জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে আজকের বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংক, এনবিআর, কৃষি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ট্রেড এ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন, বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন, জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতরসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। বিধিনিষেধ পালনের মধ্যে যাতে ভোগ্য ও নিত্যপণ্যের বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকে সেই বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ করা হবে। এ প্রসঙ্গে বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ জনকণ্ঠকে বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা সরকারের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এলক্ষ্যে ওমিক্রনের মধ্যে আরোপিত বিধিনিষিধের মধ্যেও বাজার পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে বেশকিছু কৌশল নেয়া হবে। এখন সবজির মৌসুম চলছে। শীতকালীন সবজির সরবরাহ সারাদেশে আগের মতোই থাকবে। এতে কৃষক লাভবান হওয়ার পাশাপাশি ভোক্তারা ন্যায্যমূল্যে কিনতে পারবেন। তিনি বলেন, চাল, ডাল, আটা, চিনির মতো পণ্যের পর্যাপ্ত সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। বিধিনিষিধের কোন প্রভাব বাজারে পড়বে না। তিনি জানান, আমদানি-রফতানি পরিস্থিতি ভাল। এছাড়া দেশেও কৃষিজাত পণ্যের উৎপাদনও আশানুরূপ হয়েছে। এ কারণে নতুন করে আর পণ্যের দাম বাড়বে না। সরকারের পক্ষ থেকে কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং করা হবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাজার চালু থাকবে। এটা নিয়ে ভোক্তাদের দুশ্চিন্তার কোন কারণ নেই।

আতঙ্কিত হয়ে অতিরিক্ত পণ্য কেনার প্রয়োজন নেই ॥ করোনার সংক্রমণরোধে আবার বিধিনিষেধ আরোপের খবরে সারাদেশে নিত্যপণ্যের বাজারে মঙ্গলবার থেকে ক্রেতাদের ভিড় দেখা গেছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেচাবিক্রি বেড়ে যায় বাজারে। চাহিদার তুলনায় এবারও বেশি ভোগ্যপণ্য কেনাকাটা করছেন ভোক্তারা। চাহিদা বাড়ায় মাছ, ব্রয়লার মুরগি ও সবজির মতো নিত্যপণ্যের দাম কিছুটা বেড়েছে। তবে আতঙ্কিত হয়ে অতিরিক্ত পণ্য না কেনার পরামর্শ দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তারা।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট চালু রাখা হবে ॥ ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়ায় নগববাসীর মধ্যেও নতুন করে আবার উদ্বেগ-আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। উদ্যোক্তারা বলছেন, গত দুই বছরের করোনার ধাক্কা কাটিয়ে সবেমাত্র শুরু হয়েছে অর্থনৈতিক কর্মযজ্ঞ। এ অবস্থায় আবার বিধিনিষেধ আরোপ কিংবা লকডাউনের মতো কর্মসূচী ঘোষণা করা হলে স্থবির হয়ে পড়বে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য। এতে সামগ্রিক অর্থনীতিতে বড় ধরনের নেতিবাচক প্রভাবের আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাণিজ্যিক কর্মকা- পুরোপুরি চালু রাখার পক্ষে ব্যবসায়ীরা।

শীর্ষ সংবাদ:
এ মাসে নির্মল বাতাস মেলেনি রাজধানীতে         কঠিন হলেও দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনই সমাধান         শাবিতে অহিংস আন্দোলন চলবে ॥ ভিসি সরিয়ে নেয়ার গুঞ্জন         দেশে করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু         জাতির পিতা হত্যার পর কবি, আবৃত্তিকাররাই প্রতিবাদ করেছেন         দেশে করোনার চেয়ে অসংক্রামক রোগে মৃত্যু বেশি         নায়ক না ভিলেন-শিল্পীরা কাকে বেছে নেবেন?         রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে কে- বের হয়ে আসছে         পরপর দু’বছর দেশসেরা, সিএমপির গতি আরও বাড়বে         দেশের সর্বনাশ করতেই বিএনপির লবিষ্ট নিয়োগ : সংসদে প্রধানমন্ত্রী         ৪৪তম বিসিএসের আবেদন ২ মার্চ পর্যন্ত         জমি অধিগ্রহণে আমার লাভবান হওয়ার খবর উদ্দেশ্যপ্রণোদিত : শিক্ষামন্ত্রী         জানুয়ারিতে ‘অস্বাস্থ্যকর বায়ু’ ছিল ঢাকায়         করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৮০৭         গাইবান্ধায় ইভিএম এর মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে ॥ কবিতা খানম         এস কে সিনহার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩ এপ্রিল         শেরপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক তালাপতুফ হোসেন মঞ্জু আর নেই         সমালোচনা বন্ধ করতে হলে মার্শাল ল দিতে হবে ॥ সিইসি         সার্চ কমিটিতে থাকবেন নারী