শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জমকালো আয়োজনে বঙ্গবন্ধু ঢাকা ম্যারাথন অনুষ্ঠিত

জমকালো আয়োজনে বঙ্গবন্ধু ঢাকা ম্যারাথন অনুষ্ঠিত
  • দেশ-বিদেশের ৫৮০ জন প্রতিযোগী অংশ নেন

জাহিদুল আলম জয় ॥ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২০২২’ সফলভাবে শেষ হয়েছে। দেশী ও বিদেশী অ্যাথলেটদের অংশগ্রহণে সোমবার রাজধানীতে দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ভোর সাড়ে ৫টায় আর্মি স্টেডিয়াম থেকে শুরু হওয়া আসরটি ঘড়ির কাঁটার ক্রম অনুযায়ী বনানীর কামাল আতাতুর্ক এ্যাভিনিউ, গুলশান-২, গুলশান-১, পুলিশ প্লাজা হয়ে ঢাকার ফুসফুসখ্যাত হাতিরঝিলের চতুর্দিক ঘুরে হাতিরঝিলেই শেষ হয়। ম্যারাথনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রধান উপদেষ্টা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ।

দেশ ও বিদেশের ৫৮০ জন প্রতিযোগীর অংশগ্রহণে হাফ ও ফুল দুই ফরম্যাটে এই ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। ভোরে প্রধান অতিথি থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। প্রতিযোগিতা শেষে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। আসরে বাংলাদেশী পুরুষদের মধ্যে হাফ ম্যারাথনে প্রথম হয়েছেন আল আমিন। দ্বিতীয় হয়েছেন সোহেল রানা। আর তৃতীয় হওয়া দৌড়বিদের নামও আল আমিন।

মহিলা ক্যাটাগরিতে হাফ ম্যারাথনে বাংলাদেশীদের মধ্যে সবার দৃষ্টি ছিল তারকা অ্যাথলেট সুস্মিতা ঘোষের দিকে। কিন্তু হতাশ করেছেন তিনি। সেরা তিনেও থাকতে পারেননি, হয়েছেন চতুর্থ। এই বিভাগে প্রথম হয়েছেন শামসুন নাহার রতœা। দ্বিতীয় হয়েছেন লিবিয়া আক্তার এবং তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন নাসরিন বেগম। ম্যারাথনে বাংলাদেশী পুরুষ ক্যাটাগরিতে ২ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট ১২ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হয়েছেন আসিফ বিশ্বাস। ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট ৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে ফরিদ মিয়া দ্বিতীয় ও ২ ঘণ্টা ৪১ মিনিট ৪৪ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করে তৃতীয় হয়েছেন কামরুল হাসান। ম্যারাথনে বাংলাদেশী মহিলা ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন পাপিয়া খাতুন। তিনি দৌড় শেষ করতে সময় নেন ৩ ঘণ্টা ৩৯ মিনিট ৫০ সেকেন্ড। দ্বিতীয় হওয়া নার্গিস জাহান দৌড় শেষ করেন ৪ ঘণ্টা ২১ মিনিটে। আর তৃতীয় হওয়ার পথে সুলতানা খাতুন দৌড় শেষ করেন ৪ ঘণ্টা ২২ মিনিট সময় নিয়ে।

সাফ পুরুষ ক্যাটাগরির ম্যারাথনে প্রথম হয়েছেন ভারতের শ্রীনু। সবার সেরা হওয়ার পথে তিনি সময় নেন ২ ঘণ্টা ১৬ মিনিট ২৬ সেকেন্ড। এই ইভেন্টে দ্বিতীয় ও তৃতীয়ও হয়েছেন ভারতের দুই অ্যাথলেট অর্জুন ও বেলিয়াপ্পা। ম্যারাথন আন্তর্জাতিক এলিট পুরুষ ক্যাটাগরিতে কেনিয়ার ভিসেন্ট ২ ঘণ্টা ৯ মিনিট ২৯ সেকেন্ড টাইমিং করে প্রথম হওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। মাত্র ০.২০ সেকেন্ড বেশি টাইমিং করে দ্বিতীয় হয়েছেন মরক্কোর ওমর। আর তৃতীয় হয়েছেন ইথিওপিয়ার আব্রাহা। ম্যারাথন আন্তর্জাতিক এলিট মহিলা ক্যাটাগরিতে বাজিমাত করেছেন ইথিওপিয়ার মুলিয়ে। সবার সেরা হওয়ার পথে তিনি দৌড় শেষ করতে সময় নেন ২ ঘণ্টা ৩১ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড। এই ইভেন্টে মরক্কোর সওদ দ্বিতীয় ও কেনিয়ার হেলেন হয়েছেন তৃতীয়।

হাফ ম্যারাথন আন্তর্জাতিক পুরুষ ক্যাটাগরিতে কেনিয়ার কিলমো এক ঘণ্টা ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ড নিয়ে প্রথম হয়েছেন। বাহরাইনের জাকি ১ ঘণ্টা ৫ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড নিয়ে দ্বিতীয় ও সেøাভাকিয়া বামুসা ১ ঘণ্টা ৬ মিনিট টাইমিং করে হয়েছেন তৃতীয়। হাফ ম্যারাথন আন্তর্জাতিক মহিলা ক্যাটাগরিতে ফ্রান্সের সৌকানিয়া প্রথম স্থান অর্জন করেছেন। ফুল ম্যারাথন সাফ মহিলা ক্যাটাগরিতে ভারতের আরাতি প্রথম, একই দেশের জয়তি দ্বিতীয় ও নেপালের পুষ্পা তৃতীয় হয়েছেন। বাংলাদেশী পুরুষদের মধ্যে হাফ ম্যারাথনে প্রথম হওয়া আল আমিন প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, ‘দারুণ আয়োজন। জাতির জনককে স্মরণ করে এমন আয়োজন সত্যিই প্রশংসনীয়। এখানে অংশ নেয়া ও সফল হতে পেরে আমি খুব খুশি। আশা করছি, এই সাফল্য আমাকে আরও ভালো করতে অনুপ্রাণিত করবে।’

বাংলাদেশীদের মধ্যে হাফ ম্যারাথনে মহিলা ক্যাটাগরিতে প্রথম হওয়া শামসুন নাহার রতœা বেজায় খুশি। ‘আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না কেমন লাগছে। বঙ্গবন্ধুর স্মরণে আয়োজিত প্রতিযোগিতায় সাফল্য পেয়েছি। এটা বিশেষ পাওয়া আমার জন্য। আয়োজকদের অশেষ ধন্যবাদ’। প্রতিযোগিতার ব্যবস্থাপনা নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন অংশগ্রহণকারী বিদেশী অ্যাথলেটরা। ম্যারাথন আন্তর্জাতিক এলিট পুরুষ ক্যাটাগরিতে সবার সেরা হওয়া কেনিয়ার ভিসেন্ট বলেন, ‘বাংলাদেশকে আমার ভীষণ ভালো লেগেছে। আবারও এই দেশে আসার ইচ্ছা আছে। আমি যে সাফল্য পেয়েছি- এ জন্য সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি’। আন্তর্জাতিক এলিট মহিলা ক্যাটাগরির ম্যারাথনে বাজিমাত করা ইথিওপিয়ার মুলিয়ে বলেন, ‘প্রথম হতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে। এই দেশটার কথা অনেক শুনেছি। এবার এখানে আসতে পেরে ও প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে খুব ভালো লেগেছে। আয়োজকদের সবার প্রতি ভালোবাসা’।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথনে সব মিলিয়ে ৫৮০ জন দেশী ও বিদেশী নারী-পুরুষ দৌড়বিদ অংশ নেন। এদের মধ্যে ৩০ জন এলিট রানার। স্বাগতিক বাংলাদেশ ছাড়াও প্রতিযোগিতায় অংশ নেন মরক্কো, কেনিয়া, ইউক্রেন, ইথিওপিয়া, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, মেক্সিকো, ফ্রান্স, স্পেন, ইতালি, বাহরাইন ও আলজিরিয়ার অ্যাথলেটরা। সাফ দেশগুলোর মধ্যে ফুল ম্যারাথনে অংশ নেন ৩০ জনের মতো। সাফের অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে আছে ভারত, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। এই আয়োজনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহযোগী হিসেবে কাজ করেছে আর্মি স্পোর্টস কন্ট্রোল বোর্ড, ট্রাস্ট ইনোভেশন লিমিটেড ও নেটওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ লিমিটেড। টেকনিক্যাল সহযোগী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছে বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। উল্লেখ্য, প্রতিযোগিতায় ফুল ম্যারাথনের দৈর্ঘ্য ৪২.৫০ কিঃ মিঃ ও হাফ ম্যারাথনের দৈর্ঘ্য ছিল ২১.৯৭ কিলোমিটার।

শীর্ষ সংবাদ:
সাকিবের হাসিতে শুরু বিপিএল         ফের বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ করোনার লাগাম টানতে পাঁচ জরুরী নির্দেশনা         বাবার সম্পত্তিতে পূর্ণ অধিকার পাবেন হিন্দু নারীরা ॥ ভারতীয় সুপ্রীমকোর্ট         উচ্চারণ বিভ্রাটে...         বাণিজ্যমেলার ভাগ্য নির্ধারণে জরুরী সিদ্ধান্ত কাল         আলোচনায় এলেও আন্দোলনে অনড় শিক্ষার্থীরা         ‘আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই’         করোনা ভাইরাসে আরও ১২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৪৩৪         ‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার