বুধবার ৬ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্রাণহীন হয়ে পড়ছে শেয়ারবাজার

  • সাত মাসে সর্বনিম্ন লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সপ্তাহের শেষ কর্মদিবস বৃহস্পতিবারও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল্য সূচকের ব্যাপক পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। আতঙ্ক ধরানো দরপতনে ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৬৫ পয়েন্ট কমেছে। টানা পতনের কারণে প্রাণহীন হয়ে পড়ছে শেয়ারবাজার। কিছুদিন আগে শেয়ারবাজারকে নিয়ে যে আশার আলো ছড়িয়ে পড়েছিল তা আস্তে আস্তে মিলিয়ে যাচ্ছে।

শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ার বিপরীতে ক্রেতার সংখ্যা কম থাকায় ডিএসইতে প্রায় ২৫ শতাংশ লেনদেন ৮০০ কোটি টাকার ঘরে নেমে এসেছে। যা গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন ডিএসইতে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের বড় পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, গত কয়েকদিন ধরে শেয়ারবাজারে দরপতন হলেও প্রকৃতপক্ষে বিনিয়োগকারীরা লোকসান গুণছেন প্রায় দুই মাস ধরেই। সেপ্টেম্বর মাস থেকেই হাতে গোনা কয়েকটি শেয়ার বাজারের সূচককে ধরে রেখেছিল। কিন্তু এখন সেই শেয়ারগুলোও কমছে। বিশেষ করে যুক্তরাজ্যের রোড শো শুরুর আগ থেকেই আস্তে আস্তে প্রাণহীন হয়ে পড়ছে শেয়ারবাজার। এর আগের রোড শোগুলোও শেয়ারবাজারে খুব বেশি ইতিবাচক প্রভাব রাখতে পারেনি। উল্টো রোড শো শুরুর পর বিদেশী বিনিয়োগ প্রত্যাহার হয়েছে। তিন হাজার কোটি ছুয়ে যাওয়া লেনদেন কমে এসেছে ৮শ’ কোটি টাকার ঘরে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, আগেরদিনের বড় পতনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসেও নেতিবাচক প্রবণতা দিয়ে লেনদেন শুরু হয়। লেনদেনের আধিপত্য ব্যাংক খাত ধরে রাখলেও তা সূচকের প্রভাব ফেলতে পারেনি। সারাদিনে ডিএসইতে ব্যাংকের মোট ২৪২ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে, যা সার্বিক লেনদেনের প্রায় ৩০ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৮৪৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর আগে গত ২৭ এপ্রিল ডিএসইতে ৮২৪ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। এই হিসাবে ডিএসইতে গত সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন লেনদেন হয়েছে। ডিএসইতে আগেরদিন থেকে ২৭৯ কোটি ৭৭ লাখ টাকা কম লেনদেন হয়েছে। বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১২৯ কোটি ৫৫ লাখ টাকার।

বৃহস্পতিবার ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৬৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৮৫২ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই ৩০ সূচক ২৮ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক দশমিক ৯ পয়েন্ট কমেছে।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে মোট ৩৬২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, দর কমেছে ২৪১টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টি কোম্পানির। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক ২০০ পয়েন্ট কমে ২০ হাজার ৬৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার।

শীর্ষ সংবাদ:
‘বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না’         একদিনে করোনায় ১২ মৃত্যু, শনাক্ত ৯৫০০         ‘মাসুদ রানা’খ্যাত কাজী আনোয়ার হোসেন আর নেই         গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীরা         বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব         ই-কমার্সে আস্থা ফেরাতে ফেব্রুয়ারিতে চালু হচ্ছে নিবন্ধন : পলক         করোনার সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা         আপাতত বাড়ছে না ভোজ্যতেলের দাম         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট         প্রথম দিনে সেফুদার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি         আগামীকাল থেকে উপজেলাতেও ওএমএসে চাল-আটা বিক্রি         দখলদারদের উচ্ছেদ ও অবৈধ ইটভাটা বন্ধে ডিসিদের নির্দেশ         পরিবহন শ্রমিকদের টিকা দেওয়া শুরু         শিমুকে হত্যার পর নিখোঁজের জিডি করেন স্বামী         বিশ্বজুড়ে করোনায় আরও ৯৬৬৯ মৃত্যু         ফুটপাতে নির্মাণসামগ্রী ॥ মেয়র আতিকের ক্ষোভ প্রকাশ