বৃহস্পতিবার ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

২০ বছর পর জানতে পারেন তিনি কারারক্ষী পদে চাকরি করেন

২০ বছর পর জানতে পারেন তিনি কারারক্ষী পদে চাকরি করেন

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাধবপুর ॥ মাধবপুর উপজেলার শাহজাহানপুর ইউনিয়নের মঈন উদ্দিন খান ২০ বছর আগে কারারক্ষী পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখে আবেদন করেছিলেন যথারিথি লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে। কিন্তু ২০ বছর পর আসল মঈন উদ্দিন খান স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে জানতে পারেন তিনি সিলেট কারাগারে কারারক্ষী পদে চাকরি করছেন। কে আসল মঈন উদ্দিন খান তা শনাক্ত করতে তদন্ত নেমেছে কারা কর্মকর্তারা।

এ ব্যাপারে উপজেলার শাহজাহানপুর গ্রামের মঈন উদ্দিন খান বলেন, সরকারি চাকরি করার আশা নিয়ে কারারক্ষী পদে আবেদন করেছিলাম। তিনি লিখিত ও মৌখিন পরীক্ষায় যথারিথি অংশ গ্রহন করি। কিন্তু রহস্যজনক কারনে তার নিজ ঠিকানায় কোন যোগদান পত্র পাঠানো হয়নি। গত ১৮ আগস্ট সিলেট কারাগারে কারারক্ষী পদে চাকরি করছি বলে সিলেটের কারা উপমহাপরিদর্শক কার্যালয় থেকে একটি চিঠি আসে তখনই বিষয়টি ধরা পড়ে আমার নাম ঠিকারা ব্যবহার করে কুমিল্লার এক লোক সিলেট কারাগারে কারারক্ষী পদে চাকরি করছে।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের উপমহাপরিদর্শক কামাল হোসেন জানান, গত ১৫ সেপ্টেম্বর মঈন উদ্দিন খান ৫ দিনের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ করেন কিন্তু ৫ দিন পার হলেও কর্মস্থলে যোগ দেয়নি। পরে তার নিজ ঠিকানায় চিঠি প্রেরন করলে শাহজাহানপুরে অবস্থিত মঈন উদ্দিন খান তিনি সিলেটে চাকরি করেন না বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। পরে বিষয়টি তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ কারাগারের জেল সুপারকে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়।

হবিগঞ্জ জেলার জয়নাল আবেদিন ভুইয়া মঈন উদ্দিন খানকে কাগজ পত্র নিয়ে হবিগঞ্জ যাওয়ার জন্য নির্দেশ দিলে গত ২০ নবেম্বর তিনি উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু ৫ দিনের ছুটিতে থাকা মঈন উদ্দিন খান ওই দিন তাকে পাওয়া যায়নি। শাহজাহানপুরের মঈন উদ্দিন খান বলেন, কুমিল্লার জনৈক ব্যক্তি আমার ঠিকানা ব্যবহার করে এতদিন চাকরি করে সরকারি সুবিধা নিয়েছেন। কিন্তু আমি চাকরি থেকে বঞ্চিত হয়েছি। আমি ন্যায় বিচার পেতে আইনের আশ্রয় নিব।

শীর্ষ সংবাদ:
প্রথম ৫জি নেটওয়ার্ক নিয়ে এলো নোকিয়া ও টেলিটক         প্রত্যেক বিভাগে ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হবে : প্রধানমন্ত্রী         মেয়ের জন্মদিনে দোয়া চাইলেন প্রধানমন্ত্রী         করোনা : দেশে মৃত্যুশূন্য দিন         উত্তরা-আগারগাঁও রুটে ১৫ কিমি গতিতে চললো মেট্রোরেল         বাধা অতিক্রম করেই নারীদের এগিয়ে যেতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         স্বামীবাগের সেই বাড়িতে ‘রাষ্ট্রবিরোধী চক্রান্তকারী’ সন্দেহে আটক ৫         প্রতিবন্ধী জনসংখ্যার তথ্যে বিভ্রান্তি         ‘দুর্নীতিবাজ যে দলেরই হোক, আইনের আওতায় আনতে হবে’         বিদেশে যাবেন নাকি দেশে থাকবেন, সেটা মুরাদের সিদ্ধান্ত         জিয়া পরিবারের অনেক কীর্তি দেশের মানুষ জানে : ওবায়দুল কাদের         হাইকোর্টে এমপি হারুনের সাজা বহাল         সেজান জুস অগ্নিকাণ্ড : সর্বশেষ ৫ জনের মরদেহ হস্তান্তর         ডেঙ্গু : আক্রান্ত আরও ৩১ জন হাসপাতালে, মৃত্যু ১         ফোর্বসের ১০০ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় ৪০ জনই সিইও         ইভ্যালির চেয়ারম্যান-এমডির নামে চেক প্রতারণার মামলা         রেলখাতে বিনিয়োগে আগ্রহী সুইজারল্যান্ড         আবরার হত্যা ॥ মেধাবী সন্তানদের খুনি বানাল কারা?         ঢাকায় পৌঁছেছে সেরামের আরও ২৫ লাখ ডোজ টিকা         সেন্টমার্টিন নেওয়ার কথা বলে ৪ স্কুলছাত্রকে অপহরণ