সোমবার ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৬ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কুকুর বিশ্বস্ত, নিষ্ঠুর অপসারণ বন্ধ করুন

  • ১৫ বিশিষ্ট জনের বিবৃতি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কুকুর অপসারণ কার্যক্রমকে নিষ্ঠুরতা হিসেবে বর্ণনা করে অবিলম্বে এই নিষ্ঠুরতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন দেশের শিল্প সংস্কৃতি অঙ্গনের ১৫ বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তারা এ দাবি পুনর্ব্যক্ত করেন।

বিবৃতিদাতাদের মধ্যে রয়েছেন রামেন্দু মজুমদার, ফেরদৌসী মজুমদার, ডাঃ সারওয়ার আলী, আলী যাকের, মামুনুর রশীদ, অধ্যাপক আবদুস সেলিম, অধ্যাপক শফি আহমেদ, মফিদুল হক, নাসির উদ্দীন ইউসুফ, সারা যাকের, গোলাম কুদ্দুছ, মান্নান হীরা, শিমূল ইউসুফ, হাসান আরিফ ও মাসুম রেজা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে এ ধরনের কোন কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে না বলা হলেও, বিবৃতিদাতারা তা মানতে নারাজ।

তারা বলছেন, আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি যে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অবিবেচনাপ্রসূত সিদ্ধান্তে ঢাকা দক্ষিণ থেকে নিষ্ঠুরভাবে কুকুর অপসারিত হচ্ছে। অপসারণকালে মাত্রাতিরিক্ত সিডেটিভ শরীরে প্রবেশ করিয়ে অর্ধমৃত কুকুর মাতুয়াইল বর্জ্য নিক্ষেপস্থলে ফেলে দিয়ে আসছে। এতে ব্যাপক সংখ্যক কুকুরের মৃত্যু হচ্ছে। এ কার্যক্রমকে ‘হত্যাকা-’ হিসেবে বর্ণনা করে বিবৃতিদাতারা তীব্র নিন্দা জানান। মানব সভ্যতার ঊষালগ্ন থেকে কুকুরই মানুষের বিশ্বস্ত সঙ্গী। গুহামানব থেকে মহাকাশ জয়ের মানবাভিযানে কুকুরই সাহসী বন্ধু। গ্রাম ও শহর সকল জনপদে কুকুর মানুষের নিরাপত্তা বিধান করে। মানুষের উচ্ছিষ্ট খাবার খেয়ে জনপদ পরিচ্ছন্ন ও বসবাসযোগ্য করে রাখে। মানুষের বাড়িঘর-দেকানপাট চুরি রাহাজানি থেকে রক্ষা করে। প্রকৃতির যে জীবনচক্র আমাদের ছোট্ট এই পৃথিবীর পরিবেশ ও প্রতিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করছে। কুকুর সেই জীবনচক্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রাণী। তাই কুকুর নিধন নয়। কুকুর প্রতিপালনই আমাদের দায়িত্ব।

বিবৃতিতে বলা হয়, নগর কর্তৃপক্ষ অবশ্যই নগর কুকুর ব্যবস্থাপনা ও শৃঙ্খলা রক্ষা করার লক্ষ্যে বন্ধ্যত্বকরণ ও ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে তাদের দায়িত্ব পালন করবেন। নিশ্চয়ই চলমান নিধন প্রক্রিয়ার মতো অমানবিক কর্মকা- সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্ব হতে পাওে না। অনতিবিলম্বে এই অমানবিক কাজ থেকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনকে বিরত থাকার জোর দাবি জানান তারা।

শীর্ষ সংবাদ:
নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্টকে মারধর ॥ হাজী সেলিমের ছেলের বিরুদ্ধে মামলা         বগুড়ায় মন্দিরে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা         ম্যাকরনের ইসলামবিদ্বেষী বক্তব্যের জবাব দিল ইরান         জাপার এমপি মাসুদ সস্ত্রীক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত         টিকার জাতীয়করণের বিরুদ্ধে ডব্লিউএইচও প্রধানের সতর্কতা         চিলির ভোটে নতুন সংবিধান তৈরির পক্ষে গণরায়         বিশ্বে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ১১ লাখ ছাড়াল         ম্যাক্রনকে কঠোর সমালোচনা করলেন ইমরান খান         আরব দেশগুলোকে ‘ফরাসি পণ্য বর্জন’ রোধ করার অনুরোধ ফ্রান্সের         আর্মেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ ॥ সীমান্তে সেনা মোতায়েন করল ইরান         নির্বাচনে বাইডেনকে আর্থিক সহায়তা দেয়ার প্রসঙ্গ এড়িয়ে গেলেন পুতিন         কারাবাখ নিয়ে আবারো যুদ্ধবিরতিতে সম্মত আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়া         মার্কিন নির্বাচন ॥ মহাকাশ থেকে ভোট দিলেন নারী নভোচারি         বিজয়ী যে-ই হোক ফল মেনে নেবেন মার্কিনিরা ॥ জরিপ         থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে ফের বিক্ষোভ         ৫০ বছরে ইউরোপে ইহুদি কমেছে ৬০ শতাংশ         বাইডেনকে অর্থ সহায়তা দিচ্ছে রাশিয়া         পণ্য বয়কট বন্ধের আর্জি ফ্রান্সের         ইসলামবিদ্বেষ বন্ধে জুকারবার্গকে ইমরানের চিঠি         ফ্রান্সে সব রেকর্ড ছাড়িয়ে সংক্রমণ অর্ধলাখের বেশি