শনিবার ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জঙ্গী নির্মূলে বিশ্বে রোল মডেল বাংলাদেশ

জঙ্গী নির্মূলে বিশ্বে রোল মডেল বাংলাদেশ
  • অভিজ্ঞতা কাজে লাগাচ্ছেন বিদেশীরা

গাফফার খান চৌধুরী ॥ জঙ্গী নির্মূলে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কাছে রোল মডেল। বিশ্বের বহু দেশ বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে জঙ্গীবাদ নির্মূলের অভিজ্ঞতা ও কলাকৌশল সম্পর্কে আলোচনা করে। ওইসব দেশ বাংলাদেশের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাচ্ছে। অনেক দেশ তাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পদস্থ কর্মকর্তাদের বাংলাদেশে পাঠিয়ে সরেজমিনেও বিভিন্ন কর্মকৌশল দেখিয়ে বাস্তবজ্ঞান অর্জন করিয়ে নেয়। বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে উচ্চতর প্রযুক্তিগত জ্ঞানঅর্জন করছেন। হলি আর্টিজানের পর বাংলাদেশে আইএসের তৎপরতা থাকার ভয়ে বহু বিদেশী চলে যান। হলি আর্টিজানে হামলার কিছুদিনের মধ্যেই দেশে জঙ্গীবাদের অস্তিত্ব প্রায় নিঃশেষ করে দেয়ার বিষয়টি বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেয়। বর্তমানে বিদেশীরা আবার বাংলাদেশে কাজ করছেন এবং বেড়াচ্ছেন আস্থার সঙ্গে।

শুধু জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ নিয়ে কাজ করার জন্য সরকার পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিট গঠন করে। ইউনিটটির অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জনকণ্ঠকে বলেন, ২০১৬ সালের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারীতে জঙ্গীরা হামলা করে ১৭ জন বিদেশী ও তিনজন বাংলাদেশীকে জবাই করে ও গুলি চালিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। এর আগে পুলিশ অভিযান চালাতে গেলে গ্রেনেড হামলা করে দুইজন পুলিশ কর্মকর্তাকে হলি আর্টিজানের গেটের সামনেই হত্যা করে। ২২ জনকে হত্যার পর এ নিয়ে সারা পৃথিবীতে তোলপাড় শুরু হয়।

ঘটনার পরপরই আন্তর্জাতিক জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইএসের নামে হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি প্রকাশিত হয়। এর আগে রংপুরে এক জাপানী নাগরিক ও ঢাকার গুলশানে ইটালির এক নাগরিককে গুলশানে গুলি করে হত্যার ঘটনা ঘটে। একের পর এক জঙ্গী হামলার পর বাংলাদেশে আইএসের তৎপরতা আছে বলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় মনে করতে থাকে। তারা তাদের নাগরিকদের নিরাপদে নিজ দেশে ফিরে যেতে উৎসাহিত করেন। অনেক বিদেশী নাগরিক ওই সময় চলেও যান। এরপর সারাদেশে শুরু হয় জঙ্গীবাদ বিরোধী সাঁড়াশি অভিযান। কমপক্ষে ৫০টি জঙ্গী আস্তানায় অভিযান চালানো হয়। শতাধিক জঙ্গী নিহত হয়।

পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিটের প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক কামরুল আহসান জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গীবাদ নিয়ে গভীরভাবে কাজ করছি। ভবিষ্যতে দেশে যাতে আর কোনদিন সন্ত্রাসবাদ ও জঙ্গীবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে এ জন্য সবধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও তারা অভিযান অব্যাহত রেখেছেন। এটি তাদের কন্টিনিউয়াস প্রসেস।

ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম এ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদের মূল উৎপাটন করতে চাই। সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই আবারও জঙ্গীদের বিষয়ে কৌশলী অভিযান শুরু হবে। যারা জামিন নিয়ে বেরিয়ে গেছে এবং জেলে আছে তাদের বিষয়ে নজরদারি অব্যাহত আছে।

শীর্ষ সংবাদ:
কালো সোনার হাতছানি ॥ অমিত সম্ভাবনার ব্লু ইকোনমি         দীর্ঘদিন ক্ষমতায় আছি বলেই সুফল পাচ্ছে জনগণ         উত্তরাঞ্চলে অকালবন্যা, পানিবন্দী কয়েক লাখ মানুষ         ক্ষমতায় আসার জন্য বিএনপি ষড়যন্ত্রের অলিগলি খুঁজছে         বিশ্বব্যাংক গ্রুপ ২০ হাজার কোটি টাকার বাজেট সহায়তা দিচ্ছে         চাঞ্চল্যকর নিলা হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার         এবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভাতিজির প্রতারণার মামলা         সঙ্কট মেটাতে ১১ দেশ থেকে দ্রুত পেঁয়াজ আসছে         মালেকের উত্থানের নেপথ্যে         করোনা টেস্টের রিপোর্ট নিয়ে দুশ্চিন্তায় প্রবাসীরা         জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ভাষণের ৪৬ বছর পূর্তিতে স্মারক ডাকটিকেট         বর্তমান বিশ্বে কূটনৈতিক মিশনের দায়িত্বে পরিবর্তন এসেছে ॥ প্রধানমন্ত্রী         অবৈধপথে ক্ষমতা দখলে ষড়যন্ত্রের গলি খুঁজছে বিএনপি ॥ কাদের         ইয়েমেনে পরাজিত সৌদি রাজা সালমান প্রলাপ বকছেন: ইরান         মার্কিন বিমানবাহী রণতরী পর্যবেক্ষণের ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করল আইআরজিসি         একসঙ্গে দুটি বিরল রোগে আক্রান্ত নবজাতক         করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্য ॥ নতুন আক্রান্ত ১৩৮৩         জলবায়ু পরিবর্তন ॥ পৃথিবী রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব         সার্কভুক্ত দেশগুলোকে নিবিড় সহযোগিতার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর         লন্ডনে থানার ভেতর পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা