মঙ্গলবার ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে প্রায় ২০ হাজার শনাক্ত

করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে প্রায় ২০ হাজার শনাক্ত

অনলাইন ডেস্ক ॥ ভারতে একদিনেই প্রায় ২০ হাজার মানুষের দেহে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

২৪ ঘণ্টায় আরও ৪১০ জনের মৃত্যু নিয়ে দেশটিতে সরকারি হিসাবেই কোভিড-১৯ এ মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৯৫ জনে।

শনাক্ত রোগী ও মৃত্যু সংখ্যায় প্রতিদিনই নিত্যনতুন রেকর্ড সৃষ্টি হলেও ভারতে সুস্থতার হার অন্য দেশগুলোর তুলনায় অনেক বেশি।

রবিবার সকাল পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত পাঁচ লাখ ২৮ হাজার ৮৫৯ জনের মধ্যে ৩ লাখ ৯ হাজার ৭১৩ জনই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, শনিবার থেকে রবিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ১৯ হাজার ৯০৬ জনের দেহে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। আগের দিন এ সংখ্যা ছিল ১৮ হাজার ৫৫২। তার আগের ২৪ ঘণ্টায় ১৭ হাজার ২৯৬।

৩০ জানুয়ারি কেরালায় প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ভারতে শনাক্ত রোগী এক লাখে পৌঁছাতে লেগেছিল ১১০ দিন।

সংক্রমণ প্রতিরোধে মার্চের শেষে দেশজুড়ে দেয়া কঠোর লকডাউনও এক্ষেত্রে অনেকখানি ভূমিকা রেখেছিল বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

বিধিনিষেধ শিথিলের পর থেকে এ চিত্র পুরোপুরিই উল্টে যায়। দেশটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এক থেকে দুই লাখে পৌঁছাতে লাগে ১৫ দিন; দুই থেকে তিন লাখে ১০ দিন, তিন থেকে চার লাখে ৮ দিন। সর্বশেষ মাত্র ৬ দিনেই নতুন আরও এক লাখ রোগী যোগ হয়।

শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় ভারতে শীর্ষে আছে মহারাষ্ট্র। এখানে সরকারি হিসাবেই কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা এখন এক লাখ ৫৯ হাজারের বেশি।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা দিল্লিতেও শনাক্ত রোগী ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। তালিকায় এরপরের অবস্থান তামিলনাডুর, সেখানে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭৮ হাজার ৩৩৫।

ভারতে কোভিড-১৯ এ সবেচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও গুজরাটে। এ তিন রাজ্যে মৃতের সংখ্যা যথাক্রমে ৭ হাজার ২৭৩, দুই হাজার ১৫৮ ও এক হাজার ৭৮৯।

শনিবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশের মোট শনাক্ত রোগীর ৮৫ দশমিক ৫ শতাংশই মহারাষ্ট্র, দিল্লি, তামিল নাডু, গুজরাট, তেলঙ্গানা, উত্তর প্রদেশ, অন্ধ্র ও পশ্চিমবঙ্গে বলে জানিয়েছে।

কোভিড-১৯ এ মোট মৃত্যুর ৮৭ শতাংশও দেখেছে এ আট রাজ্য, বলেছে তারা।

লকডাউন শিথিল হওয়ার পর থেকে পশ্চিমবঙ্গেও সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার।

শনিবার সকাল থেকে রবিবার পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে নতুন ৫২১ জনের দেহে প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে।

সব মিলিয়ে এ রাজ্যে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৭১১ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ হাজার ৭৮৯ জন।

২৪ ঘণ্টায় নতুন ১৩ জন নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে নতুন করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ৬২৯ জনে দাঁড়িয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
একনেকে ১০ হাজার কোটি টাকার ৮ প্রকল্প অনুমোদন         কেশবপুর উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের শাহীন চাকলাদার নির্বাচিত         ঈদের জামাত নিয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ১১ নির্দেশনা         অধিদপ্তরের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের কোনো সমস্যা নেই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ১৪ লাখ মানুষ         শাহজাহান সিরাজ আর নেই         যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের দাফন সম্পন্ন         ময়ূর-২ লঞ্চের মাস্টার আবুল বাসার তিন দিনের রিমান্ডে         এবার নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিদ্যুত উৎপাদনে চীনের বড় বিনিয়োগ আসছে         করোনা ভাইরাসে সুস্থের সংখ্যা লাখ ছাড়াল, মৃত্যু আরও ৩৩ জনের         করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় অনিয়ম সহ্য করা হবে না         ভার্চুয়ালেই চলবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ         ঈদে শেয়ারবাজার তিন দিন বন্ধ থাকছে         বেসরকারি চাকরিজীবীদেরও ঈদে কর্মস্থলে থাকতে হবে         কোন অপশক্তি জাতীয় পার্টির এগিয়ে চলা রোধ করতে পারবে না : জিএম কাদের         কোরবানি সামনে রেখে টিসিবির বিক্রি কার্যক্রম শুরু         আগামী ১৫ জুলাই সমাহিত করা হবে এন্ড্রু কিশোরকে         কক্সবাজার থেকে সাতক্ষীরা পর্যন্ত সুপার ড্রাইভওয়ে নির্মাণের পরিকল্পনা         বিশেষ ফ্লাইটে ওমান থেকে ফিরলেন ২৫৪ বাংলাদেশি         প্রকল্পের কাজে অনিয়মে নরসিংদী সদরের উপজেলা প্রকৌশলী বরখাস্ত        
//--BID Records