ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু লাখ ছাড়াতে পারে ॥ ট্রাম্প

প্রকাশিত: ১০:৪৪, ৩১ মার্চ ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু লাখ ছাড়াতে পারে ॥ ট্রাম্প

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস বিশ্বের ২০০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস ডট ইনফোর হিসাব অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় সোমবার পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাত লাখ ৬৮ হাজার ৪৬৬ জন। এর মধ্যে ৩৬ হাজার ৯১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছে এক লাখ ৬০ হাজার ২৪৩ জন। এদিকে করোনায় সোমবার আরও নতুন করে ইতালিতে ৮১২, স্পেনে ৮১২, যুক্তরাষ্ট্রে ৫১৮, ফ্রান্সে ৪১৮, যুক্তরাজ্যে ১৮০ ও ইরানে ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া মক্কার ছয় জেলায় ২৪ ঘণ্টার কার্ফু শুরু হয়েছে। অন্যদিকে জার্মানির হেসে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী টোমাস শেফার রেললাইনে আত্মাহুতি দিয়েছেন। অপরদিকে অসুস্থ না হলে মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় প্রাণহানি এক লাখ কিংবা তারও বেশি হতে পারে বলে স্বীকার করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর এএফপি, বিবিসি, এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, আলজাজিরা, সিএনএন, সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট, ডেইলি মেইল, নিউইয়র্ক টাইমস, ডন, ইউরো নিউজ, ওয়ার্ল্ডোমিটারস ডট ইনফো ও ইয়াহু নিউজের। ইতালিতে আরও ৮১২ জনের মৃত্যু, লাখ ছাড়াল আক্রান্তের সংখ্যা ॥ প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮১২ জন মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৫৯১ জন। একইসঙ্গে দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এদিকে গত একদিনে ইতালিতে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন চার হাজার ৫০ জন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনা পজিটিভ হলেন এক লাখ এক হাজার ৭৩৯ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১৪ হাজার ৬২০ জন সুস্থ হয়েছেন। তবে প্রায় তিন হাজার ৯৮১ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। স্পেনে আরও ৮১২ জনের মৃত্যু ॥ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে যেন লাশের স্তূপে পরিণত হয়েছে ইউরোপের দেশ স্পেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে আরও ৮১২ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট রোগ কোভিড-১৯। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৪০০ জনের বেশি মানুষ। সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, স্পেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ৮৫ হাজার ১৯৫ জনে দাঁড়িয়েছে। রবিবারও এই সংখ্যা ছিল ৭৮ হাজার ৭৯৭ জনে। সংক্রমণ বাড়তে থাকায় দেশটি এখন চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে, চীনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজার ৪৭০ জন। নতুন করে ৮১২ জনের প্রাণহানির পর দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭ হাজার ৩৪০ জনে। মৃত্যু লাখও ছাড়াতে পারে- ট্রাম্প ॥ যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ বা তারও বেশি হতে পারে বলে প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছেন প্রেসিডেন্টে ডোনাল্ড ট্রাম্প। রবিবার সন্ধ্যায় হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে করোনা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প একথা বলেন। মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ বা এর নিচে থাকলে ‘সম্মিলিতভাবে করা খুব ভাল কাজ হবে’ বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এর আগে সিএনএনের রবিবার সকালের টকশো ‘স্টেট অব দ্য ইউনিয়ন’-এ যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ এ্যান্টনি ফুচি (যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল এ্যালার্জি এ্যান্ড ইনফেক্সাস ডিজিজেসের পরিচালক) এক মন্তব্যে বলেছিলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণে যুক্তরাষ্ট্রে এক লাখ বা তারও বেশি লোক মারা যেতে পারে। হোয়াইট হাউসের সংবাদ সম্মেলনে ডাঃ ফুচির মন্তব্যের বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প ওই স্বীকারোক্তি দেন। সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প জানান, যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও ‘স্টে এ্যাট হোম’ গাইডলাইন আরও ৩০ দিন বাড়িয়ে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। দুই সপ্তাহ আগে ১৫ দিনের জন্য ওই গাইডলাইন ঘোষণা করেছিলেন। যার মধ্যে গণজমায়েতের ওপর নিষেধাজ্ঞাও অন্তর্ভুক্ত ছিল। সোমবার ওই সময়সীমা শেষ হয়েছে। গত সপ্তাহে ট্রাম্প ১২ এপ্রিলের ইস্টারের পর্বের সময় দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে পারবে বলেও আশা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু এদিনের সংবাদ সম্মেলনে আগের অবস্থান থেকে সরে আসেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে আরও ৫১৮ জনের মৃত্যু ॥ যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করে করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় ৫১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার জন হফকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় এ তথ্য জানায়। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ হাজার ৪০৯ জনে দাঁড়াল। জন হফকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাটা থেকে জানা যায়, দেশটিতে একদিনে নতুন করে আরও ২১ হাজার ৩৩৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। শনিবারে এ সংখ্যা ছিল ২১ হাজার ৩০৯ জন। ফ্রান্সে আরও ৪১৮ জনের মৃত্যু ॥ করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে আরও ৪১৮ জন মারা গেছেন। ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর একদিনে দেশটিতে এটিই সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ছাড়াল। ফ্রান্সে গত একদিনে নতুন করে আরও ৪ হাজার ৩৭৬ জনের দেহে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে ইউরোপের করোনায় বিপর্যস্ত দেশটিতে মহামারী এই ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হলো ৪৪ হাজার ৫৫০ জন। যুক্তরাজ্যে আরও ১৮০ জনের মৃত্যু ॥ যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে আরও ১৮০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৪১৫ জনে। এদিন মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ইংল্যান্ডে ১৫৯ জন, ওয়েলসে ১৪, স্কটল্যান্ডে ছয় ও নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে একজন। যুক্তরাজ্যে প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সরকারী হিসাবে দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, যুক্তরাজ্যে করোনা আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা ২০ লাখের বেশি। কারণ, সরকার শুধু গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীদেরই টেস্ট করাচ্ছে। ওয়েলসের জনস্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ২১০ জন। ইরানে আরও ১১৭ জনের মৃত্যু ॥ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ইরানে ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৭৫৭। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ হাজার ১৮৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ হাজার ৪৯৫ জন। ভারতে মৃত বেড়ে ২৭ ॥ ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০০০ পেরিয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১০৩ জন। এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২৭ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০২৪ জনে। আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে। সেখানে সংক্রমিত হয়েছে মোট ১৮৬ জন। নতুন করে ৬ জন আক্রান্ত হয়েছে। মহারাষ্ট্রের পরই রয়েছে কেরল। সেখানে ১৮২ জন সংক্রমিত হয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকলেও, কর্নাটকে এখনও সংখ্যাটা দুই অঙ্কে আছে। নতুন করে ১৫ জন আক্রান্ত হওয়ায় সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৬। পাকিস্তানে মৃত বেড়ে ১৯ ॥ ‘করোনাভাইরাসে দেশে মৃত্যুহার কম’, পাকিস্তান সরকার এমন দাবি করার একদিন পরই সোমবার মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৯ জন আর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে এক হাজার ৬৫৮ জনে দাঁড়িয়েছে। সিন্ধুর স্বাস্থ্য ও জনকল্যাণ মন্ত্রী জানান, নতুন করে দুইজনের মৃত্যু হয় যাদের একজনের বয়স ৬৬ বছর ও অপরজনের বয়স ৫২ বছর। মক্কার ছয় জেলায় ২৪ ঘণ্টার কার্ফু শুরু ॥ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে পবিত্র নগরী মক্কার ছয়টি জেলায় দিনরাত ২৪ ঘণ্টার কার্ফু জারি করেছে সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। স্থানীয় সময় সোমবার বিকেল ৩টা থেকেই কার্যকর হয়েছে এ নির্দেশনা। ২৪ ঘণ্টার কার্ফু জারি করা জেলাগুলো হলো- আজইয়াদ, আল মাসাফি, মিসফালাহ, আল হুজুন, নাকাসা ও হোশ বকর। সরকারী নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এখন থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত এসব এলাকায় প্রবেশ বা বহির্গমন নিষিদ্ধ থাকবে। কার্ফু চলাকালীন সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৩টার মধ্যে শুধু চিকিৎসা ও নিত্যপণ্য কেনাকাটায় বাইরে যাওয়া যাবে। সৌদিতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৫৩ জন, মারা গেছেন আটজন। জার্মান মন্ত্রীর আত্মাহুতি ॥ করোনা মহামারীতে অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে জার্মানির হেসে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী টোমাস শেফার রেললাইনে আত্মাহুতি দিয়েছেন। যে শহরকে জার্মানির অর্থনীতির কেন্দ্র বলা হয় সেই ফ্রাঙ্কফুটের অবস্থান ওই হেসে রাজ্যেই। ফ্রাঙ্কফুর্ট আর মাইনজের মধ্যবর্তী হোশেম শহরে হাইস্পিড ট্রেন লাইনের ওপর থেকে শনিবার শেফারের ছিন্নভিন্ন লাশ উদ্ধার হয়। এদিকে করোনার প্রাদুর্ভাবের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য আর্থিক সহায়তা দিতে যাচ্ছে জার্মানি। তবে এ্যাডিডাসের মতো বহুজাতিক কোম্পানির আচরণে বিরক্তি প্রকাশ করছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। করোনা সঙ্কটের ফলে সাধারণ মানুষের আর্থিক অনিশ্চয়তা কাটাতে জার্মানির ফেডারেল ও রাজ্য সরকারগুলো রবিবার এক সিদ্ধান্তে উপনীত হয়। এর আওতায় প্রায় পাঁচ হাজার কোটি ইউরো অবিলম্বে ভুক্তভোগীদের কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা শুরু করে। অসুস্থ না হলে মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ॥ যদি কেউ নোভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত না হন এবং ভাইরাসটিতে আক্রান্ত কোন রোগীর সেবা ও পরিচর্যা না করে থাকেন, তাহলে সেসব মানুষকে মাস্ক না পরার সুপারিশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। জাতিসংঘের এই অঙ্গসংগঠনটির এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন। সংস্থাটির জরুরী স্বাস্থ্য কর্মসূচীর নির্বাহী পরিচালক ডাঃ মাইক রায়ান সোমবার জেনেভায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘গণহারে মাস্ক পরার কারণে সম্ভাব্য কোন সুবিধা রয়েছে বলে নির্দিষ্ট কোন প্রমাণ এখনও পাওয়া যায়নি। প্রকৃতপক্ষে, মাস্কটি সঠিকভাবে পরা বা সঠিকভাবে ফিট করার অপব্যবহারের কারণে বিপরীতে কিছু হওয়ারই প্রমাণ পাওয়া গেছে।’