মঙ্গলবার ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

করোনা- এখন মূল কেন্দ্র ইউরোপ

  • এশিয়ার বেশিরভাগ এলাকায় করোনার বিস্তার স্থিতিশীল

যেখান থেকে করোনাভাইরাসের যাত্রা প্রথমে শুরু হয়েছিল সেই চীন ও বাকি এশিয়া এখন বহির্বিশ্ব থেকে আসা করোনা রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। চীন, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানে ব্যাপক প্রাদুর্ভাবের পর এশিয়ার বেশির ভাগ এলাকায় করোনার বিস্তার স্থিতিশীল বা অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। এশিয়ার বাইরে ইউরোপ ও আমেরিকায় এর বিস্তার দ্রুত ঘটছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও) বলেছে, ইউরোপ করোনাভাইরাস মহামারীর কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। এপি।

চীন বর্তমানে ইতালি, ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়া এবং অন্যান্য এলাকায় করোনা মোকাবেলায় বিভিন্ন সামগ্রী দিচ্ছে। কয়েক সপ্তাহ আগেও তাদের মেডিক্যাল কর্মীদের জন্য পর্যাপ্ত সুরক্ষামূলক সামগ্রী ছিল না। এশিয়া ছাপিয়ে প্রাদুর্ভাব এখন অনেকদূরে এবং যখন বিধিনিষেধ উঠে যাবে তখন আবার ব্যাপক আকার ধারণ করতে পারে।

তবে আতঙ্ক যা এশিয়াকে গ্রাস করেছিল এখন মধ্যপ্রাচ্য, ইইরোপ এবং আমেরিকায় স্থানান্তরিত হয়েছে। ওইসব এলাকা এই প্রথম বারের জন্য ভাইরাসের ত্বরিত প্রাদুর্ভাব মোকাবেলা করছে। চীন শুক্রবার জানিয়েছে, পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ৮ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। এর মধ্যে ৩ জন ইটালি, যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য ফেরত ব্যক্তি। চীনে এক মাস আগের তুলনায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপকভাবে কমে গেছে। তখন প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল হাজারো। দেশটিতে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে করোনায় আক্রান্ত প্রায় ৯০ জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়েছে। ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের মুখপাত্র মি ফেং বলেন যে, প্রাদুর্ভাবের ব্যাপকতা চীনেই শেষ হয়েছে, তবে অন্যান্য দেশে প্রাদুর্ভাব দ্রুত ছড়িয়ে পড়া অনিশ্চয়তা তৈরি করেছে। মাত্র এক সপ্তাহ আগে দক্ষিণ কোরিয়া সেদেশের ভ্রমণকারীদের প্রবেশে বাধা দিতে বৈশ্বিক হৈচৈয়ের বিষয়ে অভিযোগ করছিল। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাং কাইয়ুং অন্যান্য দেশের এই পদক্ষেপকে অশালীন বলে মন্তব্য করেন। তাদের অদক্ষ কোয়ারেন্টাইন সামর্থ্যরেও সমালোচনা করেন তিনি।

তবে এখন যেহেতু দেশে নতুন আক্রান্তের সংখ্য কমে আসছে সেই দক্ষিণ কোরিয়াই ভাইরাস প্রতিরোধে সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ বৃদ্ধি করছে যাতে অন্যান্য দেশের ভ্রমণকারীদের দ্বারা করোনা পুনরায় ছড়িয়ে না পড়ে। দক্ষিণ কোরিয়া রবিবার থেকে ফ্রান্স, জার্মানি, স্পেন, ব্রিটেন, নেদারল্যান্ডস এবং গত দুই সপ্তাহে দুবাই ও মস্কোতে আটকে পড়া যাত্রীদের জন্য বিশেষ স্ক্রিনিং কার্যক্রম বৃদ্ধি করবে। এর পাশাপাশি তারা প্রতিদিন ওই সব যাত্রীদের স্বাস্থ্যের অবস্থা কর্তৃপক্ষকে জানাতে তাদের শরীরের তাপমাত্রা ও স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য একটি স্মার্টফোন এ্যাপে ডাউনলোড করবে।

চীনের মূল ভূখ-, হংকং, ম্যাকাও, জাপান, ইটালি ও ইরানের ভ্রমণকারীদের জন্য ইতোমধ্যে এই ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়া চীনের হুবেইয়ের লোকজনের ওপরও ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিচ্ছে। হুবেইতে করোনার উৎপত্তি এবং ওই প্রদেশেই সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। করোনা আক্রান্ত অধিকাংশ লোকের ক্ষেত্রেই মৃদু বা মাঝারি ধরনের লক্ষণ দেখা যাচ্ছে, যেমন- জ্বর এবং কাশি। তবে বিশেষ করে বেশি বয়স্ক এবং যাদের আগেই স্বাস্থ্যসমস্যা রয়েছে তারা নিউমোনিয়ার মতো সাংঘাতিক রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। আক্রান্ত লোকজনের বিশাল অংশ ভাইরাস থেকে সেরে উঠছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে মৃদু অসুস্থ লোকজন প্রায় দুই সপ্তাহের মধ্যে সেরে উঠছেন। যারা ভীষণভাবে অসুস্থ তারা সেরে উঠতে তিন থেকে ছয় সপ্তাহ সময় নিতে পারেন। বেজিং ঘোষণা করেছে তারা বিদেশ থেকে আগত যে কারও ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন করাবে। এর আগে শুধুমাত্র সাংঘাতিকভাবে আক্রান্ত এলাকা থেকে আগতদের এটা করা হয়েছিল।

ডব্লিউএইচও সংস্থার প্রধান ট্রেডস এ্যাডানম গেব্রিয়াসিস শুক্রবার আন্তর্জাতিক এক গণমাধ্যমকে এ কথা বলেছেন। গেব্রিয়াসিস বলেন, ‘করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ মারা যাওয়া একটি করুণ মাইলফলক।’ চীনের পর করোনাভাইরাস সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ইউরোপের দেশগুলোকে। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসকে বিশ্ব মহামারী ঘোষণা দেয়। চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারী করোনাভাইরাস।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১৩০টির বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এ ভাইরাস। এতে বিশ্বজুড়ে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৩৭৪ জনের। আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪২ হাজার ৭৮৩ জন। চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৭০ হাজার ৯২০ জন। ইউরোপের দেশ ইতালিতে সবচেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে এ ভাইরাস। ইতালিতে এখন পর্যন্ত ১৭ হাজার ৬৬০ জন আক্রান্ত হয়েছে। -বিবিসি

শীর্ষ সংবাদ:
সাহেদের যাবজ্জীবন ॥ আড়াই মাসেই অস্ত্র মামলায় রায়         আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন         বেসরকারী মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কলেজ আইনের খসড়া অনুমোদন         এ পর্যন্ত ৭ জন গ্রেফতার ৩ জন রিমান্ডে বিক্ষোভ, সমাবেশ         বিদেশী ঋণে জর্জরিত ঢাকা ওয়াসা         সুপ্রীমকোর্ট প্রাঙ্গণে মাহবুবে আলমকে শেষ শ্রদ্ধা         দেশে করোনা রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         দুর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না সৌদি প্রবাসীদের         মুজিববর্ষে গৃহহীনদের ৯ লাখ ঘর দেবে সরকার         তদারকির অভাব নৌ যোগাযোগ খাতে         আজন্ম উন্নয়ন যোদ্ধার অপর নাম শেখ হাসিনা ॥ কাদের         অসময়ের বন্যায় ব্যাপক ক্ষতির মুখে কৃষক         মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডিজিটাল ভূমি জোনিং ম্যাপ হচ্ছে         শেখ হাসিনার জন্মদিনে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত         নবেম্বরে আসতে পারে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী করুন ॥ স্পিকার         কর্মের মধ্য দিয়ে দলের চেয়ে অধিক জনপ্রিয় শেখ হাসিনা ॥ কাদের         এমসি কলেজে ধর্ষণ ॥ সাইফুর, অর্জুন ও রবিউল রিমান্ডে         ঢাকা-১৮ ও সিরাজগঞ্জ-১ উপনির্বাচন ১২ নবেম্বর         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলতে চাইলে মত দেবে মন্ত্রিসভা