শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

‘জিততে আশাবাদী বলেই ফের নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছি’

  • কাজী মোঃ সালাউদ্দিন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই বছর দৌড়ঝাঁপ করেও শেষ পর্যন্ত নানা কারণে বাফুফের নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়েছেন ফুটবল সংগঠক তরফদার মোঃ রুহুল আমিন। এদিকে সর্বশেষ নির্বাচনে জয়ী হবার পর বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি আগামীতে আর নির্বাচনে দাঁড়াবেন না, এটাই তার শেষ। অথচ তিনি এখন বলছেন তিনি আবারও নির্বাচনে অংশ নেবেন। এ প্রসঙ্গে সোমবার এক অনির্ধারিত সংবাদ সম্মেলনে (ক্রীড়া সাংবাদিকদের ডাকা) সালাউদ্দিন বলেন, ‘নির্বাচনে যে কেউই দাঁড়াতে পারে। আমি কিন্তু চার বছর আগে বলেছিলাম, আগামীতে আমি নির্বাচনে দাঁড়াতেও পারি, আবার নাও দাঁড়াতে পারি। এখনও তাই বলছি। আগামীতেও তাই বলব। আমার মনে হয় সেই সময় আমার বলা ওই কথাগুলো সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা ঠিকমতো বুঝতে পারেননি, তাই আমার কথাগুলো অন্যভাবে উপস্থাপিত হয়েছিল। আমাকে আসলে তখন সবাই ভুল বুঝেছিলেন। যাহোক, এবারও যে আমি ইলেকশনে দাঁড়াব, এটা আমি তরফদারকেও জানিয়েছিলাম। কারণ আমার কিছু কাজ এখনও বাকি আছে। ইলেকশনে কেন দাঁড়াবেন না, সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। যদিও তিনি বলেছেন ফুটবলের স্বার্থেই তিনি দাঁড়াবেন না। তার মানে আমার ওপরে তার আস্থা আছে। তার এমন মনোভাবের জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তাছাড়া এমনিতেও তার সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে কোন ধরনের দ্বন্দ্ব-সংঘাত নেই। আর পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমি আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচন করব। জিততে আশাবাদী বলেই নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছি। নইলে দাঁড়াতাম না।’

আগের মেয়াদে নির্বাচনে সালাউদ্দিনকে জেতাতে যথেষ্ট সাহায্য করেছিলেন তরফদার। এর প্রতিদান হিসেবে তাকে বাফুফের বিভিন্ন কমিটিতে রেখেছিলেন সালাউদ্দিন। পরের মেয়াদে নির্বাচনে জিতলে কি আবারও তরফদারের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছে আছে কি না, এ প্রশ্নে সালাউদ্দিনের জবাব, ‘কাজ করব কি না, এটা এখনই বলতে পারছি না। তবে ফুটবলে যে কেউ কাজ করতে চাইলে বাফুফে অবশ্যই তাকে স্বাগত জানাবে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘কেউ যদি বাফুফেকে ভাঙ্গতে চায়, সেটিও যেমন ঠিক নয়, তেমনি কাউকে ভাল কাজ করতে বাফুফে বাধা দেবে, সেটিও ঠিক নয়। ফুটবলের উন্নয়নে বাফুফে চায় সবার সঙ্গে মিলেই কাজ করতে। একতার কোন বিকল্প নেই।’ বাফুফের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মহি বিভিন্ন সময় সালাউদ্দিনের সমালোচনা করে তার বিরুদ্ধে মিডিয়ায় বিভিন্ন বক্তব্য দিয়েছেন। সর্বশেষ বলেছেন বাফুফের কমিটির কয়েকজন আসন্ন নির্বাচনে সালাউদ্দিনের প্যানেলের হয়ে লড়বেন না। এই কমিটির প্রতি তাদের কোন আস্থা নেই। এ প্রসঙ্গে সালাউদ্দিনের ভাষ্য, ‘মহি যা বলেছেন, সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। তিনি তো আমার অধীনে এখনও আছেন। কিন্তু আগামী নির্বাচনের সময় আমি তাকে প্যানেলে রাখব কি না, সেটা তো আমার ব্যাপার।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাসে আরও ১৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৯৬১৪         রবিবার থেকে ভার্চুয়ালিও চলবে সব অধস্তন আদালত         করোনা টেস্ট ॥ চাপ বাড়ছে হাসপাতালে         বর্তমানে মজুদ রয়েছে ৯ কোটি টিকা ॥ তথ্যমন্ত্রী         প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ১০         দেখানোর জন্য নয়, নিজের স্বার্থেই পরতে হবে মাস্ক         বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে চলবে পরীক্ষা, খোলা থাকবে হল         ভ্যাট ও টাক্স আদায়ে হয়রানি বন্ধের দাবি তৃণমূল ব্যবসায়ীদের         মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন ৯০ হাজার কোটি টাকা         অতিরিক্ত আইজিপি হলেন ৭ কর্মকর্তা         রাজধানীতে ৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ১         ইয়েমেনের কারাগারে সৌদি হামলায় নিহত ৭০         ৩ বিভাগে বৃষ্টির পূ্র্বাভাস         একসঙ্গে করোনার দুই ডোজ টিকা, যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী         ফরিদগঞ্জে একটি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩শ শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা নিতে অর্থ আদায়         মাগুরায় চিনি মিশ্রিত খেজুর গুড় পাটালী বিক্রি হচ্ছে, প্রতারিত হচ্ছে ক্রেতা         মুম্বাইয়ে বহুতল ভবনে আগুন, নিহত ৭         নীলক্ষেত থেকে সরে গেলেন শিক্ষার্থীরা         মা হলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া         প্রতারকের খপ্পরে পড়ে ১৮ দিনের সন্তান বিক্রি