মঙ্গলবার ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

‘জিততে আশাবাদী বলেই ফের নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছি’

  • কাজী মোঃ সালাউদ্দিন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুই বছর দৌড়ঝাঁপ করেও শেষ পর্যন্ত নানা কারণে বাফুফের নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচন না করার ঘোষণা দিয়েছেন ফুটবল সংগঠক তরফদার মোঃ রুহুল আমিন। এদিকে সর্বশেষ নির্বাচনে জয়ী হবার পর বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন ঘোষণা দিয়েছিলেন, তিনি আগামীতে আর নির্বাচনে দাঁড়াবেন না, এটাই তার শেষ। অথচ তিনি এখন বলছেন তিনি আবারও নির্বাচনে অংশ নেবেন। এ প্রসঙ্গে সোমবার এক অনির্ধারিত সংবাদ সম্মেলনে (ক্রীড়া সাংবাদিকদের ডাকা) সালাউদ্দিন বলেন, ‘নির্বাচনে যে কেউই দাঁড়াতে পারে। আমি কিন্তু চার বছর আগে বলেছিলাম, আগামীতে আমি নির্বাচনে দাঁড়াতেও পারি, আবার নাও দাঁড়াতে পারি। এখনও তাই বলছি। আগামীতেও তাই বলব। আমার মনে হয় সেই সময় আমার বলা ওই কথাগুলো সংবাদমাধ্যমের কর্মীরা ঠিকমতো বুঝতে পারেননি, তাই আমার কথাগুলো অন্যভাবে উপস্থাপিত হয়েছিল। আমাকে আসলে তখন সবাই ভুল বুঝেছিলেন। যাহোক, এবারও যে আমি ইলেকশনে দাঁড়াব, এটা আমি তরফদারকেও জানিয়েছিলাম। কারণ আমার কিছু কাজ এখনও বাকি আছে। ইলেকশনে কেন দাঁড়াবেন না, সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। যদিও তিনি বলেছেন ফুটবলের স্বার্থেই তিনি দাঁড়াবেন না। তার মানে আমার ওপরে তার আস্থা আছে। তার এমন মনোভাবের জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তাছাড়া এমনিতেও তার সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে কোন ধরনের দ্বন্দ্ব-সংঘাত নেই। আর পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমি আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচন করব। জিততে আশাবাদী বলেই নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছি। নইলে দাঁড়াতাম না।’

আগের মেয়াদে নির্বাচনে সালাউদ্দিনকে জেতাতে যথেষ্ট সাহায্য করেছিলেন তরফদার। এর প্রতিদান হিসেবে তাকে বাফুফের বিভিন্ন কমিটিতে রেখেছিলেন সালাউদ্দিন। পরের মেয়াদে নির্বাচনে জিতলে কি আবারও তরফদারের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছে আছে কি না, এ প্রশ্নে সালাউদ্দিনের জবাব, ‘কাজ করব কি না, এটা এখনই বলতে পারছি না। তবে ফুটবলে যে কেউ কাজ করতে চাইলে বাফুফে অবশ্যই তাকে স্বাগত জানাবে।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘কেউ যদি বাফুফেকে ভাঙ্গতে চায়, সেটিও যেমন ঠিক নয়, তেমনি কাউকে ভাল কাজ করতে বাফুফে বাধা দেবে, সেটিও ঠিক নয়। ফুটবলের উন্নয়নে বাফুফে চায় সবার সঙ্গে মিলেই কাজ করতে। একতার কোন বিকল্প নেই।’ বাফুফের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মহি বিভিন্ন সময় সালাউদ্দিনের সমালোচনা করে তার বিরুদ্ধে মিডিয়ায় বিভিন্ন বক্তব্য দিয়েছেন। সর্বশেষ বলেছেন বাফুফের কমিটির কয়েকজন আসন্ন নির্বাচনে সালাউদ্দিনের প্যানেলের হয়ে লড়বেন না। এই কমিটির প্রতি তাদের কোন আস্থা নেই। এ প্রসঙ্গে সালাউদ্দিনের ভাষ্য, ‘মহি যা বলেছেন, সেটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। তিনি তো আমার অধীনে এখনও আছেন। কিন্তু আগামী নির্বাচনের সময় আমি তাকে প্যানেলে রাখব কি না, সেটা তো আমার ব্যাপার।

শীর্ষ সংবাদ:
ডলার বাজার অস্থির ॥ আমদানি ব্যয় পরিশোধের চাপ         শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ         পূর্ণিমার জোয়ারে ভেসে গেছে বিকল্প বেড়িবাঁধ         পি কে হালদারকে ফেরাতে কাজ করছে দুদক         শেয়ারবাজারে বড় ধস, ৯ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন সূচক         ঢাকায় বসে কথা না বলে গ্রামে ঘুরে আসুন         টাইগারদের স্বপ্নের দিন সাগরিকায়         অভ্যন্তরীণ তহবিল থেকে অর্থ নিয়েও বিদেশ যাওয়া যাবে না         আইসিসিতে বাংলাদেশী বিচারক         পুলিশ ক্যাডারে পদোন্নতির স্থায়ী নীতিমালা হয়নি ৫১ বছরেও         চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগে হাইব্রিডদের দাপট স্বেচ্ছাচারিতা         উপবৃত্তির ভুয়া এসএমএস, কৌশলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ         বিদেশী সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল নয় দেশ ॥ কৃষিমন্ত্রী         বৈরী আবহাওয়ায় ধান কাটতে এগিয়ে এসেছেন নারী শ্রমিকরা         ‘রাজধানীতে বসে সমালোচনা না করে গ্রামে গিয়ে পরিবর্তনটা দেখুন’         পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জের অনেক নিম্নাঞ্চল প্লাবিত         সরকারি-আধা সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ         পিকে হালদার আ.লীগের কেউ নয়         ডলার : কেন্দ্রীয় ব্যাংক বেঁধে দিল সাড়ে ৮৭ টাকা, খোলা বাজারে ৯৭         ৩০০ কোটি ছাড়িয়েছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট থেকে আয় : বিএসসিএল