মঙ্গলবার ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এসএ গেমসে সোনা জিততে চান সালমারা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ২০১০ সালে সাউথ এশিয়ান গেমসে (এসএ গেমস) ছিল ক্রিকেট। তবে সেবার শুধু ছেলেদের দল খেলেছিল। এবার নেপালে অনুষ্ঠিতব্য এসএ গেমসে আবার ক্রিকেট ফিরেছে এবং ছেলে ও মেয়েদের আলাদা প্রতিযোগিতা থাকছে। শুক্রবার সালমা খাতুনের নেতৃত্বে নেপালের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। যাওয়ার আগে এসএ গেমসে স্মরণীয় কিছু করার প্রত্যয় জানিয়েছেন সালমা, জাহানারা আলমরা। তারা স্বর্ণপদক জিততে আশাবাদী।

এবার এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। সেখানে শক্তিশালী ভারত ও পাকিস্তানকে হারিয়েছে। এ কারণে প্রথমবার এসএ গেমস ক্রিকেটে অংশ নিতে যাওয়ার আগে আত্মবিশ্বাস নিয়েই দেশ ছেড়েছেন সালমারা। এ বিষয়ে দলের পেসস্তম্ভ জাহানারা বলেন, ‘প্রথমবার এসএ গেমসে খেলার সুযোগ হচ্ছে আমাদের। শুরুটা স্মরণীয় করে রাখতে চাই। আশাকরি সোনা জিতেই দেশে ফিরতে পারব। আগামী ১ থেকে ১০ ডিসেম্বর নেপালের কাঠমন্ডু ও পোখারায় হবে টি২০ ফরমেটে মেয়েদের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। ৭ দল দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে। বাংলাদেশ ‘বি’ গ্রুপে খেলবে পাকিস্তান ও মালদ্বীপের সঙ্গে। ‘এ’ গ্রুপে স্বাগতিক নেপালের সঙ্গী ভারত, শ্রীলঙ্কা ও ভুটান। বাংলাদেশের মেয়েদের প্রথম ম্যাচ ২ ডিসেম্বর মালদ্বীপের বিপক্ষে। পোখারায় তাদের শেষ গ্রুপ ম্যাচ পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫ ডিসেম্বর। গ্রুপের শীর্ষ দুটি দল সেমিফাইনাল খেলে জায়গা করে নেবে ৯ ডিসেম্বরের ফাইনালে। এবারের এই আসরটি বাংলাদেশ মহিলা দলের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপ, বাছাইপর্বে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেখানে খেলার সুযোগ করে নিয়েছেন সালমারা। এর আগে এসএ গেমস খুব ভাল ভূমিকা রাখবে বাংলাদেশের মহিলা ক্রিকেট দলের জন্য। এ বিষয়ে অধিনায়ক সালমা বলেন, ‘অবশ্যই বিশ্বকাপের আগে ম্যাচগুলো আমাদের অনেক কাজে দেবে।’ মিরপুর একাডেমি মাঠে কঠোর অনুশীলন করে এসএ গেমসের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা। এখন শুধু মাঠে নেমে ভাল খেলার অপেক্ষা। সালমা বলেন, ‘বাছাইপর্বে যেসব ভুল ছিল সেগুলো নিয়ে কাজ করেছি। উন্নতি করার চেষ্টা করেছি। তবে এখনও কিছু কিছু ভুল আছে সেগুলো নিয়ে কাজ করছি। যেমন ফিল্ডিং-ব্যাটিং এগুলো নিয়ে কাজ করছি। বোলিংয়ের ওপরেও কাজ করছি। এসব নিয়ে উন্নতির কাজ চলছে। ফিটনেস নিয়েও বাড়তি কাজ করেছি।’

শীর্ষ সংবাদ:
পাটুরিয়া ঘাটে ঈদফেরত যাত্রী-যানবাহনের চাপ বাড়ছে         ৬৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শুরু হচ্ছে মিড-ডে মিল কার্যক্রম         স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবন-জীবিকাকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী         বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু         মুজিববর্ষে সারাদেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট ও শপিংমল বন্ধের নির্দেশ         জামালপুরে নৌকাডুবিতে দুই শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু         গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় ৩০ জনের মৃত্যু         চলাচল নিয়ন্ত্রণ থাকবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত         ১৫ আগস্টের ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টা আজও চলমান ॥ কাদের         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২৫ হাজার মানুষকে সহায়তা দেবে ইইউ         সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ        
//--BID Records