মঙ্গলবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সড়ক পরিবহন খাতের দুর্বলতা চিহ্নিত করতে ৪ উপকমিটি

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ সড়ক পরিবহন খাতের দুর্বলতা চিহ্নিত করতে চার সচিবের নেতৃত্বে চারটি সাবকমিটি গঠন করা হয়েছে। রবিবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন সেক্টরে শৃঙ্খলা জোরদারকরণ এবং দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্য টাস্কফোর্সের প্রথম সভায় এ সাবকমিটি গঠন করা হয়। সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এদিকে সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকরা গত সপ্তাহে ঢাকাসহ সারাদেশে ‘ধর্মঘট’ ডেকে অচলাবস্থার সৃষ্টি করলেও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাজাহান খান জানিয়েছেন, তারা কোন ধর্মঘট ডাকেননি। সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন। সভায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতিসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পরিবহন সেক্টরে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে যে কমিটি গঠন করা হয়েছিল তার প্রথম কমিটির সভা হলো। কাজ শুরুর জন্য তিন সদস্যকে কো-অপট (অন্তর্ভুক্ত) করা হয়েছে, জননিরাপত্তা সচিবসহ আরও দুজনকে সদস্য করা হয়েছে। চারটি সাবকমিটি তৈরি করা হয়েছে চারজন সচিবের নেতৃত্বে। তারা চিহ্নিত করবেন কোন্ কোন্ জায়গায় দুর্বলতা আছে, তা জানাবেন। বিআরটিএকে আরও শক্তিশালী করতে হবে এবং তার দুর্বলতাগুলো ঠিক করতে বিআরটিএ চেয়ারম্যান ও সড়ক পরিবহন সচিব নজর দেবেন।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয় সচিব এবং স্থানীয় সরকার সচিবের নেতৃত্বে গঠিত ওই চার কমিটি আগামী দুই মাসের আগে প্রতিবেদন জমা দেবেন। তিনি বলেন, দুই মাস পর, এ সুপারিশ পাওয়ার পর আবার বৈঠক হবে। তারা সুপারিশের সঙ্গে এ্যাকশন প্ল্যানও তৈরি করে দেবেন।

শাজাহান খানের নেতৃত্বে সড়ক পরিবহন সেক্টরে শৃঙ্খলা জোরদারকরণ ও দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে সুপারিশ প্রণয়নের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির ১১১টি সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্যই এ টাস্কফোর্স কাজ করছে। সুপারিশ বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে এ চার নতুন সাবকমিটি তৈরি করা হয়েছে। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে উদ্যোগ নিতে সময় বেশি লাগছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, টাস্কফোর্স গঠন বেশিদিন হয়নি, ১৬ অক্টোবরে গেজেট হয়েছে। এখানে টাক্সফোর্সে কোন সময় নষ্ট হয়নি। বিআরটিএ দুর্বলতা কাটাতে ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট, রাস্তাঘাট সংস্কার ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করা হবে। জনসচেতনতার জন্য তথ্য সচিব কাজ করবেন। স্থানীয় সরকারের অধীনে যে সড়ক রয়েছে তা স্থানীয় সরকার সচিব দেখবেন।

শীর্ষ সংবাদ:
লুটপাটে নিঃস্ব গ্রাহক ॥ পি কে হালদারের থাবা         অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হোন অপচয় করা যাবে না         তামিমের সেঞ্চুরি- বাংলাদেশের দাপট         প্রকল্প কমিয়ে অর্থায়ন বাড়িয়ে উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         জাতীয় সরকারের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না         চুরি, ছিনতাই করতে কক্সবাজার থেকে ঢাকা আসত ওরা         পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণের উপায় খুঁজছে সরকার         অর্থপাচারকারীরা কোন দেশে গিয়েই শান্তি পাবে না         সিলেটে কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দী         সড়ক যেন ধান শুকানোর চাতাল, প্রাণ গেল বাইক আরোহীর         অবশেষে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য দিল পুলিশ         ভোলায় বেইলি ব্রিজ ভেঙ্গে ট্রাক অটোরিক্সা খালে         ১১ ডিজিটের নতুন নম্বরে বিপাকে গ্রাহক         কিউআর কোড দিয়ে ভুয়া নিয়োগপত্র দিত ওরা         জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি         জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         বাস্তব শিক্ষার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার আহ্বান শিক্ষা উপমন্ত্রীর         ডলারের দাম ১০২ টাকার বেশি         সিলেটে বন্যার আরও অবনতির আশঙ্কা         কানের ভেন্যুতে ‘মুজিব’-এর পোস্টার