সোমবার ২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ১৩ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কুর্দি হটাতে একাট্টা রাশিয়া-তুরস্ক

কুর্দি হটাতে একাট্টা রাশিয়া-তুরস্ক

অনলাইন ডেস্ক ॥ রাশিয়া এবং তুরস্ক একটি চুক্তিতে সম্মত হয়েছে। দু’দেশের তরফ থেকে এই চুক্তিকে ‘ঐতিহাসিক’ চুক্তি বলে উল্লেখ করা হয়েছে। কুর্দি বাহিনীকে তুরস্ক ও সিরিয়া সীমান্ত থেকে হটানোর লক্ষ্যেই দু’দেশের মধ্যে এই চুক্তি হয়েছে।

চলতি মাসে যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়ার পর পরই সেখানে সামরিক অভিযান শুরু করে তুরস্ক। অন্তত ৩০ কিলোমিটার পর্যন্ত কুর্দিদের হটিয়ে ‘নিরাপদ অঞ্চল’ তৈরি করতে চায় তুর্কি বাহিনী।

তুরস্কে থাকা ৩০ লাখের বেশি সিরীয় শরণার্থীকে ওই অঞ্চলে পুনর্বাসিত করার পরিকল্পনার কথাও বলেছে তুর্কি কর্তৃপক্ষ। তবে সমালোচকরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, এর ফলে ওই অঞ্চলে বসবাসরত কুর্দিরা জাতিগত নিধনের শিকার হতে পারে।

সিরিয়ায় জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটকে হটাতে যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র ছিল কুর্দি বাহিনী। কিন্তু কুর্দি বাহিনীকে সন্ত্রাসী হিসেবে উল্লেখ করে থাকে তুরস্ক। অপরদিকে সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের ঘনিষ্ঠ মিত্র রাশিয়া।

প্রথম থেকেই সিরিয়ায় অন্য দেশের হস্তক্ষেপ নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে মস্কো। তুরস্ক এবং রাশিয়া এখন যৌথভাবে সীমান্তে নজরদারি চালাবে। যুক্তরাষ্ট্র আকস্মিক সেনা প্রত্যাহার করে নেয়ার ঘটনায় তুরস্ক ও রাশিয়াকে ওই অঞ্চলে অভিযানে সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

এই চুক্তি ঘোষণার পর তুরস্কের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে নতুন করে আর সামরিক অভিযান শুরুর প্রয়োজন নেই। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটি আলোচনার পর পাঁচদিনের যুদ্ধবিরতিতে তুরস্ক সম্মতি জানিয়েছে। তবে তুরস্কের অভিযানের প্রতি সম্মতি জানিয়েছে রাশিয়া।

রাশিয়া এবং তুরস্কের এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, মানবিজ এবং তাল রিফাত শহর থেকে কুর্দি বাহিনীকে হটানো হবে। এ বিষয়ে কুর্দি বাহিনীর তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। দু'দেশের পরিকল্পনা অনুযায়ী কুর্দি বাহিনী যেন আবারও ফিরে আসতে না পারে সেজন্য রাশিয়া এবং তুরস্ক সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে যৌথভাবে নজরদারি চালাবে। বুধবার থেকেই এই কার্যক্রম শুরু হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা         যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক         ভারত থেকে ৩৮৪ টন শুকণো মরিচ নিয়ে দেশে আসলো পার্সেল ট্রেন         সন্ধ্যা ৬ টা থেকে ভোর ৬টার মধ্যেই সকল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা করা হবে : মেয়র তাপস         আগামীকাল বনানীতে নুরুল ইসলাম বাবুলের দাফন         লাজ ফার্মাকে জরিমানা ২৯ লাখ, ৫০ লাখ টাকার ওষুধ জব্দ         যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে ঢাকার দুই সিটি মেয়রের শোক         কার্যকর প্রমাণ হলে প্রতিদিনই ভার্চুয়াল কোর্ট বসবে ॥ প্রধান বিচারপতি         বাড়বে না ঈদুল আজহার ছুটি, থাকতে হবে কর্মস্থলে         লাখের কাছাকাছি সুস্থের সংখ্যা, মৃত্যু আরও ৩৯ জনের         কোনোভাবেই দলের আদর্শের অপব্যবহার করতে দেওয়া হবে না ॥ কাদের         আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন ডা. সাবরিনা         ভারি বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা         জুলাইতে রেলে যোগ হচ্ছে ১০টি ব্রডগেজ ইঞ্জিন         তিন দিনের রিমান্ডে ডা. সাবরিনা         সাহেদের অবৈধ সম্পদের খোঁজে মাঠে দুদক         করোনায় মারা গেলেন সিএমপি উপ-কমিশনার মিজানুর         লঞ্চডুবিতে প্রাণহানির ঘটনায় ময়ূর-২ এর মাস্টার গ্রেফতার         এমপি পাপুলের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে দুদকে তলব         বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ১ কোটি ২৮ লাখ, মৃত্যু ৫ লাখ ৬৮ হাজার        
//--BID Records