শনিবার ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বগুড়ায় চার শিশুকে ধর্ষণ ॥ লম্পট গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নে ৪ শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশ মঙ্গলবার বিকেলে জয়নাল আবেদীনকে গ্রেফতার করে। দু’দিনের ব্যবধানে সে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়া ৪ শিশুকে ধর্ষণ করে। বুধবার ৪ শিশুকে পরীক্ষার জন্য বগুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে গ্রেফতারকৃত ধর্ষক শিশুদের ধর্ষণের কথা ¯ী^কর করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। ধর্ষককে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠান হয়।

পুলিশ জানায়, উপজেলার গোপালপুর খাদুলি গ্রামের জাহাঙ্গীর একজন ভ্যানচালক। ৬ ও ৮ সেপ্টেম্বর সে একই এলাকার ৪ শিশুকে জলপাইসহ বিভিন্ন লোভনীয় খাবার দেয়ার কথা বলে ফুঁসলিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। ৬ সেপ্টেম্বর দুপরের দিকে দুই শিশুকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এর দু’দিন পরে আবার একই গ্রামের অন্য দুই শিশুকে একইভাবে ফুঁসলিয়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে।

ঘটনার দু’দিনই তার বাড়িতে স্ত্রী ছিল না। ধর্ষক জয়নালের ৩ ছেলেমেয়ে রয়েছে। মেয়ের বিয়ে হয়েছে। দুই ছেলে কর্মস্থলে থাকেন। ঘৃণ্য এই ধর্ষণের শিকার চার শিশু প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। পুলিশ জানায়, ধর্ষণের পর ধর্ষক অন্য কাউকে বিষয়টি না বলার জন্য শিশুদের ভয় দেখিয়েছিল। ওই শিশুরা অসুস্থ হয়ে পড়ায় পরিবারের লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে জিজ্ঞাসায় তারা ঘটনা খুলে বলে। প্রথমে একজন পরে অন্য শিশুরাও মুখ খুলে। বর্বরোচিত ঘটনাটি জানতে পেরে শিশুদের পরিবারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার ধুনট থানায় অভিযোগ করা হয়। এর পরপরই বিকেলে ধর্ষক জয়নাল আবেদনীনকে পুলিশ ধুনটের মথুরাপুর বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

দেলদুয়ারে ছাত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা টাঙ্গাইল থেকে জানান, দেলদুয়ারে ৭ম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় পুলিশ মঙ্গলবার রাতে লাউহাটি ইউনিয়নের লাউহাটি গ্রাম থেকে অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করা করছে। গ্রেফতারকৃত ছানোয়ার হোসেন (১৬) ওই গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে এবং সে লাউহাটি এম আজহার মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, ওই স্কুলছাত্রীর মা বিদেশ থাকেন, বাবা ভ্যানচালক। গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই স্কুলছাত্রীকে ঘরে একা পেয়ে পাশের বাড়ির ছানোয়ার হোসেন ঘরে প্রবেশ করে হাত-পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন।

সাভারে শিশু

সংবাদদাতা সাভার থেকে জানান, ঢাকার ধামরাইয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে হৃদয় হোসেন নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। রবিবার বিকেলে ধামরাইয়ের মান্দারচাপ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত হৃদয় হোসেন ধামরাইয়ের মান্দারচাপ এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে। ঘটনার পর থেকে হৃদয় পলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। জানা যায়, গত রবিবার বিকেলে ভুক্তভোগী শিশুটিকে খেলার কথা বলে নিজের ঘরে নিয়ে গিয়ে হৃদয় হোসেন নামে প্রতিবেশী এক যুবক শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরে ভুক্তভোগী শিশুটি বাড়ি ফিরে পরিবারের সদস্যদের বিষয়টি জানালে শিশুটির পিতা অভিযুক্ত যুবক হৃদয় হোসেনকে আসামি করে মঙ্গলবার রাতে ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

মাদারীপুরে শিশু

নিজস্ব সংবাদদাতা মাদারীপুর থেকে জানান, রাজৈর উপজেলার রাজৈর ইউনিয়নের চৌয়ারীবাড়ি গ্রামে দেড় বছরের এক অবুঝ শিশু যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে। রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে মঙ্গলবার মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে তার পরিবার। এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে রাজৈর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের চৌরাশি গ্রামের আত্মীয় সুষেণ ভক্তের ছেলে হৃদয় ভক্ত (২১) একই উপজেলার রাজৈর ইউনিয়নের চৌয়ারীবাড়ি গ্রামে তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যায়। সকাল ৮টার দিকে ওই আত্মীয়ের বাড়ির দেড় বছরের অবুঝ একটি শিশুকে নিয়ে ঘুরতে বের হয়। অনেক সময় পর শিশুটিকে নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসে। এ সময় শিশুটির মা তাকে কাঁদতে এবং যৌনাঙ্গ দিয়ে রক্ত পড়তে দেখে।

এদিকে কোন কিছু বোঝার আগেই শিশুকে রেখে হৃদয় ভক্ত পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার ১০টার দিকে শিশুটিকে তার পরিবারের লোকজন মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। এই ঘটনায় বুধবার দুপুরে শিশুটির বাবা রাজৈর থানায় একটি মামলা করেছে।

শীর্ষ সংবাদ:
‘মাঙ্কিপক্স নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই’         সারাদেশে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা         আবারও ফুটবল বিশ্বকাপ ট্রফি আসছে বাংলাদেশে         প্রেসক্লাবের সামনে যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ         ঢাকায় পৌঁছেছে গাফফার চৌধুরীর মরদেহ         উত্তরায় ১২ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩         বংশালে জাল টাকা তৈরির সরঞ্জামাদিসহ গ্রেফতার ২         দেশের পথে আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর মরদেহ         আজ সরকারী ব্যবস্থাপনায় হজের নিবন্ধন শেষ         আস্থা অর্জনই চ্যালেঞ্জ ॥ ইভিএম নিয়ে ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষা ইসির         অগ্রাধিকার সুবিধা অব্যাহত রাখতে সহযোগিতা চাই         মাদক কারবারিদের চিহ্নিত করে ধরিয়ে দিন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         টিকে থাকার ক্ষমতা হারাচ্ছে গাছ উপড়ে পড়ছে সামান্য ঝড়ে         প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ ॥ প্রচার শুরু         জনবল সঙ্কটে খুঁড়িয়ে চলছে নাটোর সদর হাসপাতাল         সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে এখনও মারা যাচ্ছেন অনেক মা         ঢাকার ২ শতাধিক স্পটে হঠাৎ বেপরোয়া ছিনতাইকারী চক্র         জমে উঠেছে কেনাবেচা ভাল দাম পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি         রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এশিয়ার দেশগুলোর সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী         তারেক জিয়াকে দেশে ফেরাতে আলোচনা চলছে : তথ্যমন্ত্রী