বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঝুঁকিপূর্ণ রেল সেতু সংস্কারে বিলম্ব নয়

  • সিরাজুদ্দীন হোসেন

সারাদেশে ৫০০টি রেল সেতু ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এর মধ্যে বড় সেতু ১০০টি এবং ছোট সেতু ৪০০টি। ঝুঁকিপূর্ণ সেতুগুলো নির্মিত ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলে। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় সেতুগুলো ট্রেন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। গতি কমিয়ে কোনমতে সেতু পার হচ্ছে যাত্রী ও পণ্যবাহী ট্রেন। মাঝে মাঝে দুর্ঘটনাও ঘটেছে।

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলে রেল সেতু নির্মাণে ব্যবহার করা হয়েছিল ইট এবং চুন-সুরকি। এসব সেতু যে এখনও টিকে আছে সেটা একটা আশ্চর্য বিষয়। সরকার রেলের আধুনিকায়নে বড় বড় প্রজেক্ট হাতে নিয়েছে। কিন্তু ব্রিটিশ আমলে নির্মিত সেতু পুনর্নির্মাণ বা সংস্কারে আলাদা করে কোন প্রকল্প নেয়া হয়নি। উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী রেল সেতুর অবকাঠামো জরিপের নির্দেশ দিয়েছেন। সরকার বর্ষার আগেই দুর্বল রেল সেতু চিহ্নিত করে সংস্কার করতে চাচ্ছে।

বর্ষা মৌসুম চলে এসেছে। চুন-সুরকির রেল সেতুর জন্য বৃষ্টি বা বন্যা বিপদই বয়ে আনে। অতীতে বিভিন্ন সময় বৃষ্টি বা বন্যার কারণে রেল সেতু ভেঙ্গে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি মাথায় রাখলে বর্ষার আগেই দুর্বল সেতুগুলো চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেয়া যেত। তবে এখনও সময় আছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মেনে দ্রুত দুর্বল রেল সেতুগুলো সংস্কার করতে হবে। কোথায় কোন সেতু দুর্বল সেটা রেল বিভাগের অজানা নয়। কাজেই এ ধরনের সেতু চিহ্নিত করার কাজে বাড়তি সময় লাগার কথা নয়।

সেতু সংস্কারের পাশাপাশি পুনর্নির্মাণের বিষয়টিও বিবেচনা করে দেখতে হবে। রেলের গতি বাড়িয়ে যাত্রী সেবার মান বাড়াতে হলে অনেক সেতুই পুনর্নির্মাণ করতে হবে। চুন-সুরকি আর ইটের প্রযুক্তি থেকে বেরিয়ে আসা সময়ের দাবি। রেল সেতু সংস্কার বা পুনর্নির্মাণে স্বতন্ত্র কোন প্রকল্প নেয়া যায় কিনা সেটা ভেবে দেখা যেতে পারে। বর্তমানে এ্যাডহক ভিত্তিতে সেতু সংস্কার করা হচ্ছে। এটা যথেষ্ট বলে প্রমাণ হয়নি। আমরা কেউই চাই না, ঝুঁকিপূর্ণ রেল সেতুর কারণে আর কোন দুর্ঘটনা ঘটুক। রেল দুর্ঘটনায় জানমালের ক্ষতি ঠেকানো এবং নিরবচ্ছিন্ন যাত্রীসেবার স্বার্থে রেল সেতুগুলো দ্রুত সংস্কার করা হবে সেটাই প্রত্যাশা।

নারায়ণগঞ্জ থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন         শাবিপ্রবি সংকট : শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         জামিন পেলেন শাবিপ্রবির সাবেক ৫ শিক্ষার্থী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১৭, শনাক্ত ১৫৫২৭         ‘শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা’