বুধবার ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আমিরাতকে হারিয়ে শুভ সূচনা বাংলাদেশের

রুমেল খান ॥ দলটা প্রথমবারের মতো গঠিত। টুর্নামেন্টটাও অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রথমবারের মতো। শিরোপাটাও যদি প্রথমবারের মতো নিজেদের করে নেয়া যায় তাহলে তো সোনায় সোহাগা। আর এটাই চান গোলাম রব্বানী ছোটন। তার মতেÑ বঙ্গমাতা অনুর্ধ-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ’ ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হবার দাবিদার বাংলাদেশ। চ্যাম্পিয়ন হতে গেলে চারটি ধাপ পেরোতে হবে বাংলাদেশকে। সেই ধাপগুলোর প্রথমটি তারা পেরোলো সোমবার, বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। ‘বি’ গ্রুপের এবং আসরের প্রথম ম্যাচে তারা ২-০ গোলে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারিয়ে করেছে শুভসূচনা। গোল করেন দুই ফরোয়ার্ড সিরাত জাহান স্বপ্না (১২ মিনিটে) এবং কৃষ্ণা রানী সরকার (৩০ মিনিটে)। ম্যাচসেরা খেলোয়াড় হন শেষের জন।

এই জয়ে ‘বি’ গ্রুপে তিন পয়েন্ট নিয়ে আপাতত শীর্ষে আছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। বলা যায় সেমিতে এক পা দিয়ে রেখেছে তারা। তবে এই হারে এখনও শেষ হয়ে যায়নি পরাজিত দল সংযুক্ত আরব আমিরাত দলের সেমিতে খেলার আশা-সম্ভাবনা। শেষ চারে যাবার স্বপ্ন জিইয়ে রাখতে গেলে তাদের পরবর্তী ম্যাচে (২৪ এপ্রিল) প্রতিপক্ষ কিরগিজস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে কাজটা এগিয়ে রাখতে হবে। আর এই ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশ মনেপ্রাণে জয় কামনা করবে কিরগিজ দলের। কেননা এই ম্যাচে কিরগিজস্তান জিতলে তো কথাই নেই, এমনকি ন্যূনতম ড্র করলেও লাভ হবে বাংলাদেশের। লাভ বলতে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সেমিতে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাবে তাদের। সেক্ষেত্রে ২৬ এপ্রিল কিরগিজস্তানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ লড়াই করবে গ্রুপসেরা হওয়ার জন্য।

বাংলাদেশই জিতবে এমনটাই প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু তারা যেভাবে গোল মিসের মহড়া দিয়েছে এবং কম গোলে জিতেছে তাতে হতাশাই হয়েছেন স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে আসা দর্শকরা।

জাতীয় বা সিনিয়র দলের শিরোপা সাফল্য না থাকলেও বিভিন্ন বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টে কিন্তু বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ঈর্ষণীয় সাফল্য লক্ষণীয়। সেই পরিসংখ্যানের আলোকেই আশা করা হচ্ছে আগামী ৩ মে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠেয় ফাইনালে প্রতিপক্ষ দলকে হারিয়ে আরেকটি শিরোপা জিতে নিজেদের সাফল্যের মুকুটে আরেকটি পালক যুক্ত করবে বাংলার বাঘিনীরা।

অনুর্ধ-১৯ বা সিনিয়র পর্যায়ে না খেললেও আমিরাতের বিরুদ্ধে অনুর্ধ-১৬ পর্যায়ে এর আগে তিনবার খেলার অভিজ্ঞতা আছে বাংলাদেশ। এএফসি অনুর্ধ-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে ২০১৪ সালে প্রথম সাক্ষাতে বাংলাদেশ ৬-০ গোলে জেতে। একই আসরে ২০১৬ সালে ৪-০ গোলে জয় পায় ছোটনের শিষ্যারা। সর্বশেষ ২০১৮ সালে একই আসরেও জেতে লাল-সবুজরা। এবারের ব্যবধানটা আরও বড় ৭-০। টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।

শীর্ষ সংবাদ:
শরীয়তপুরে অবৈধভাবে বালু ও মাটি উত্তোলনে ভাঙ্গছে নদী ও খাল         তিস্তায় হটাৎ ভয়াবহ বন্যায় রেড এ্যালার্ট ॥ ফ্লাড ফিউজ বিধ্বস্থ হবার মুখে         শ্রীনগরে অগ্নিদগ্ধ ভাইয়ের পর মারা গেল বোন         মাঝে মধ্যে পাপন ভাইয়ের পরামর্শ খারাপ নয়, ভাল ॥ সাকিব         মেসি-এমবাপের নৈপুণ্যে পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়         ৫ গোলের নাটকীয় লড়াইয়ে আতলেতিকোকে হারাল লিভারপুল         ভারতীয় সাবমেরিন আটকের দাবি পাকিস্তানের         কঠোর ব্যবস্থা নিন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ         ওমানকে হারিয়ে বিশ্বকাপে টিকে থাকল বাংলাদেশ         আজ পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী         ধর্ম নিয়ে কেউ বাড়াবাড়ি করবেন না         কেন এই সহিংসতা উত্তর এখনও মেলেনি         ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধের ডাক ॥ সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মাঠে আওয়ামী লীগ         মাঝিপাড়ায় এখন সুনসান নীরবতা, আতঙ্ক কাটেনি         প্রধানমন্ত্রী নিজের হাতে সাজিয়েছেন ফরিদপুর         পিএসসির প্রশ্ন ফাঁসে সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ড         মুছা কালু ভোলা-তিন জনের গ্রেফতারেই খুলতে পারে জট         স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বে আঘাত হানতেই সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস         একযুগে আরেকটি স্বপ্নপূরণ         রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ে মরিয়া সরকার ॥ ফখরুল