রবিবার ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ব্রেক্সিট নিয়ে আবার ভোট চান ব্রিটিশরা!

ব্রেক্সিট নিয়ে আবার ভোট চান ব্রিটিশরা!

অনলাইন ডেস্ক ॥ ফের গণভোটের দাবিতে লন্ডনের রাস্তায় নেমেছে কয়েক লাখ মানুষ। ব্রেক্সিট ইস্যুতে আরও একবার গণভোট চান তারা। চাপের মুখে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জানিয়েছেন, সংখ্যাগরিষ্ঠের সমর্থন না পেলে তিনি হয়তো তার ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে আর পার্লামেন্টে তৃতীয় ভোটে যাবেন না।

পার্ক লেন থেকে পার্লামেন্ট পর্যন্ত মিছিল করেছে লাখ লাখ মানুষ। ২০০৩ সালে ইরাক যুদ্ধের সময়ে যুদ্ধ-বিরোধী সমাবেশে ১০ লাখ মানুষ জড়ো হয়েছিলেন। তার পরে লন্ডনে এত বড় সমাবেশ এই প্রথম।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)-এর কাছে ৯০ দিন সময় চেয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত ব্রেক্সিট পিছিয়ে দেওয়ার অনুমতি চেয়েছিলেন মে। কিন্তু জবাবে তাকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দিয়েছে ইইউ। এর মধ্যে তৃতীয় ও শেষ বারের মতো তার চুক্তি পার্লামেন্টে পেশ করতে হবে। ওই চুক্তি যদি পাশ হয়ে যায়, সে ক্ষেত্রে ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য ব্রিটেনকে ২২ মে পর্যন্ত সময় দেওয়া হবে।

কিন্তু চুক্তি পাশ না হলে, ১২ এপ্রিলের মধ্যে ইইউকে জানাতে হবে। এর পরেই শুক্রবার রাতে মে চিঠি দিয়ে এমপিদের জানিয়েছেন, পার্লামেন্ট যেহেতু তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে, বিষয়টি নিয়ে আরও কথা বলা দরকার। তিনি লিখেছেন, এই মুহূর্তে চারটি রাস্তা খোলা রয়েছে। সেগুলো হল:

১. আগামী সপ্তাহে তার প্রস্তাবিত চুক্তিকে সমর্থন জানানো। কিন্তু হাউস অব কমন্সের স্পিকার জন বেরকাউ আগে বলেছিলেন, মের চুক্তিতে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করা হলে তবেই যেন তা পার্লামেন্টে পেশ করা হয়।

২. ১২ এপ্রিলের মধ্যে ইইউয়ের কাছে আরও সময় চাওয়া হোক। সে ক্ষেত্রে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে যোগ দিতে হবে ব্রিটেনকে।

৩. অনুচ্ছেদ ৫০ বাতিল করা। এর মানে ব্রেক্সিট বাতিল করে দেওয়া। কিন্তু এতে গণভোটের রায়ের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হবে।

৪. চুক্তিহীন ভাবেই ইইউ থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়া।

প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে এর আগে দু'বার তার খসড়া ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে পার্লামেন্টে ভোটের আয়োজন করেন। কিন্তু দু'বারই তা বিপুল ভোটে প্রত্যাখ্যান করেন ব্রিটিশ এমপিরা। এ নিয়ে তৃতীয় দফায় ভোট হওয়ার কথা থাকলেও না নিয়ে সংশয় রয়েই গেছে। এর মধ্যেই সাধারণ নাগরিকরা আবারও গণভোটের দাবি জানিয়ে রাস্তায় নেমেছেন। ফলে সবদিক থেকেই চাপের মুখে রয়েছেন মে।

শীর্ষ সংবাদ:
দাঙ্গা বাঁধানোই ছিল কুমিল্লার ঘটনার উদ্দেশ্য ॥ স্থানীয় সরকারমন্ত্রী         ‘কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের শিগগিরই গ্রেফতার করা হবে’         মধুর ক্যান্টিনে মুখোমুখি ছাত্রলীগ-ছাত্রদল, ক্যাম্পাসে উত্তেজনা         রাশিয়ার ইয়েকাতেরিনবুর্গে ভেজাল মদের বিষক্রিয়ায় ১৮ জনের মৃত্যু         কাকরাইলে সংঘর্ষের ঘটনায় দুই মামলা ॥ আসামি ৪ হাজার         আইয়ুব বাচ্চু স্মরণে ‘আসা যাওয়া’ প্রকাশ পাচ্ছে আগামীকাল         প্রায় দুই বছর পর খুললো রাবির হল         বরিশালে তিনটি মন্দিরে ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা         বৃষ্টি হলেও কাটেনি ভ্যাপসা গরমের অস্বস্তি         চট্রগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামী এলাকায় বিস্ফোরণ, নিহত ১, আহত ২         প্রতীক্ষা শেষ, শ্রেণিকক্ষে ফিরলেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা         বিশ্বব্যাপী পুরুষরা বেশি আত্মহত্যাপ্রবণ         গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে আজ         ‘করোনা মহামারী প্রেক্ষাপটে উন্নত স্যানিটেশনের গুরুত্ব বেড়েছে’         ‘বাঙালীর মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাস বিশ্ববাসীকে জানাতে হবে’         পর্যটক প্রিয় হয়ে উঠেছে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান         ‘দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষ স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশনের আওতায়’         মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে জড়িত আত্মগোপনে থাকা রোহিঙ্গা ক্যাডার গ্রেফতার         নাসার মাহকাশযান সৌরজগৎ তৈরির রহস্য উম্মোচনে পরীক্ষা চালাচ্ছে         রাঙ্গামাটিতে আওয়ামী লীগ নেতা ও চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা