মঙ্গলবার ৫ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নিউইয়র্কে রোহিঙ্গা সম্মেলন ॥ শাস্তি না হলে মিয়ানমার সেনাবাহিনী থামবে না

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী এক সম্মেলনে বক্তারা রোহিঙ্গা নিপীড়নের দায়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন। তারা মনে করেন, জবাবদিহি নিশ্চিতে কার্যকর পদক্ষেপ না থাকলে মিয়ানমার সেনাবাহিনী সংযত হবে না। মিয়ানমারে শুধু রোহিঙ্গারা নয়, সংখ্যালঘু সব সম্প্রদায়ই নিশ্চিহ্ন হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। সঙ্কট সমাধানে প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছার। খবর আল জাজিরার।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরাল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। সন্ত্রাসবিরোধী শুদ্ধি অভিযানের নামে শুরু হয় নিধনযজ্ঞ। হত্যান্ড ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটিত হতে থাকে ধারাবাহিকভাবে। এমন বাস্তবতায় নিধনযজ্ঞের বলি হয়ে রাখাইন ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয় প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা। আগে থেকে উপস্থিত রোহিঙ্গাদের নিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের সংখ্যা দাঁড়ায় প্রায় দশ লাখে। এসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশের বিভিন্ন আশ্রয় শিবিরে বসবাস করছে। রোহিঙ্গাদের বিপন্নতার অবসান ঘটানোর প্রত্যাশা নিয়ে ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্ক সিটিতে এক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করেছে ফ্রি রোহিঙ্গা কোয়ালিশন (এফআরসি)। যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্নার্ড কলেজে এরআরসির দুই দিনের সম্মেলনে এক হচ্ছেন বিশ্বের অনেক শিক্ষাবিদ, মানবাধিকারকর্মীসহ জাতিসংঘের আইনজীবীরা। সম্মেলন শুরুর আগে এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে ইসরায়েলবিরোধী বিশ্ব-প্রতিরোধ আন্দোলনের অনুপ্রেরণা কাজে লাগিয়ে মিয়ানমার বর্জন কর্মসূচী সম্মেলন থেকে শুরু করার কথা জানিয়েছেল এফআরসি। এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, ফিলিস্তিনি জাতির মুক্তির পক্ষে বিশ্বব্যাপী যেমন করে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিডিএস আন্দোলন পরিচালিত হচ্ছে, তেমন করে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংঘটিত করার চেষ্টা করছেন তারা। এফআরসির সমন্বয়ক মং জার্নি বলেছিলেন, ‘রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা আউং সান সুচির নেতৃত্বাধীন বেসামরিক সরকার, খুনী সেনাবাহিনী ও সরকারের বিদ্বেষ-বিভ্রান্তি ও বর্ণবাদী রাজনীতির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত সামাজিক সংগঠনগুলোকে আমরা বয়কট করব। ঠিক যেমনটা করা হয়েছে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিডিএস আন্দোলনের মাধ্যমে।’ সম্মেলনে যুক্তরাজ্যে বসবাস করা রোহিঙ্গাদের সংগঠনের সভাপতি তুন খিন মন্তব্য করেছেন, জবাবদিহি নিশ্চিত ও বিচার বাস্তবায়নের দৃষ্টিগ্রাহ্য কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে নিপীড়ন বাড়তে থাকবে। তার ভাষ্য, ‘জবাবদিহিতা নিশ্চিতে যদি কোন পদক্ষেপ নেয়া না হয় তাহলে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী কেন থামবে? তারা জানে, তাদের কর্মকাণ্ডের জন্য তাদের কোন শাস্তি পেতে হবে না।’ ‘জেনোসাইড ওয়াচের’ গ্রেগরি স্ট্যানটনও সম্মেলনে বলেছেন, রোহিঙ্গারা সুরক্ষা, ন্যায়বিচার ও প্রত্যাবাসনের হকদার। রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানো মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্যদের নাম তালিকাভুক্ত করে রাখা উচিত, যাতে তাদের বিচারের আওতায় আনা যায়। সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে যুক্ত হয়েছিলেন জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি ইয়াংঘি লি। তিনি বলেছেন, রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী নতুন ঘাঁটি তৈরি করছে জানতে পেরে তিনি শঙ্কা বোধ করছেন। কানাডাভিত্তিক রোহিঙ্গা অধিকার কর্মী ইয়াসমিন বলেছেন, রোহিঙ্গাদের একটি প্রজন্ম ঝরে গেছে আশ্রয় শিবিরে থাকার কারণে। তারা যথাযথ শিক্ষা-খাদ্য পায়নি। পরবর্তীতে কর্মসংস্থানের সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হবে। ‘সেন্টার ফর দ্য স্টাডি অব জেনোসাইড এ্যান্ড হিউম্যান রাইটসের’ চেয়ারম্যান এ্যালেক্স হিন্টন বলেছেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে রাজনৈতিক সদিচ্ছা প্রয়োজন।

শীর্ষ সংবাদ:
ইসি গঠনে আইন হচ্ছে ॥ সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ         সংলাপে আওয়ামী লীগের ৪ প্রস্তাব         নেতিবাচক রাজনীতির ভরাডুবি হয়েছে ॥ কাদের         আগামী সংসদ নির্বাচনও চমৎকার হবে ॥ তথ্যমন্ত্রী         ইভিএমে ভোট দ্রুত হলে জয়ের ব্যবধান বাড়ত ॥ আইভী         পন্ডিত বিরজু মহারাজ নৃত্যালোক ছেড়ে অনন্তলোকে         উত্তাল শাবি ॥ ভিসির পদত্যাগ দাবিতে বাসভবন ঘেরাও         দুর্নীতি মামলায় ওসি প্রদীপের সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল         আমিরাতে ড্রোন হামলায় নিহত ৩         কখনও ওরা মন্ত্রীর আত্মীয়, কখনও নিকটজন         সোনারগাঁয়ে পিকআপ ভ্যান খাদে পড়ে দুই পুলিশের এসআই নিহত         ইসি গঠন : রাষ্ট্রপতিকে আওয়ামী লীগের ৪ প্রস্তাব         ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ১০ সদস্যের প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতির সংলাপে বসেছে         দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ১০, নতুন শনাক্ত ৬,৬৭৬         সংক্রমণের হার ২০ শতাংশ ছাড়িয়েছে : স্বাস্থ্য মহাপরিচালক         স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ‘অ্যাকশনে’ যাবে সরকার         না’গঞ্জে নেতিবাচক রাজনীতির ভরাডুবি হয়েছে ॥ কাদের         সিইসি ও ইসি নিয়োগ আইন মন্ত্রিসভায় অনুমোদন