ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

রাজশাহীতে বিএনপি ছেড়ে নৌকায় উঠল হাজার নেতাকর্মী

প্রকাশিত: ০৬:৫৬, ২২ ডিসেম্বর ২০১৮

 রাজশাহীতে বিএনপি  ছেড়ে নৌকায় উঠল  হাজার নেতাকর্মী

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ ভোটের আগে পবায় বিএনপি ছাড়লেন এক হাজারের বেশি নেতাকর্মী। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার হরিয়ান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা মফিদুল ইসলাম বাচ্চুর নেতৃত্বে তারা ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ তাদের ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেয়। মফিদুল ইসলাম বাচ্চু বিএনপির মনোনয়নে হরিয়ান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি পবা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। হরিয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইয়াছিল আলী জানান, শুক্রবার বিকেলে হরিয়ান আশরাফের মোড়ে যোগদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে ইউপি চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চুর নেতৃত্বে এক হাজারের বেশি বিএনপি নেতাকর্মী আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। সেখানে ফুলের মালা পরিয়ে তাদের বরণ করে নেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া বিএনপির নেতাদের মধ্যে মফিদুল ইসলাম বাচ্চুসহ ছয়জন জনপ্রতিনিধি। এরা হলেন হরিয়ান ইউনিয়নের সদস্য ও বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম এবং মহিলা সদস্য ও বিএনপি নেত্রী রেশমা বেগম ও রাশেদা বেগম। যোগদান অনুষ্ঠানে ইউপি চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, সারাদেশের উন্নয়ন, সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তৃণমূলে পর্যাপ্ত অনুদান এবং সাধারণ মানুষের উন্নয়নে শেখ হাসিনার যুগোপযোগী পদক্ষেপ আমার ভাল লেগেছে। আমি বিশ্বাস করি আবারও নৌকা প্রতীক বিজয়ী হবে এবং দেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। হরিয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইয়াছিল আলীর সভাপতিত্বে যোগদান অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জেবর আলী, সিনিয়র সহসভাপতি ওবায়দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ পলাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক ফারদিন। যোগদান অনুষ্ঠান শেষে নৌকার পক্ষে বিশাল প্রচার মিছিল বের করা হয়। প্রচার মিছিলটি হরিয়ান ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম প্রদক্ষিণ ও কয়েকটি পথসভা করে নৌকার পক্ষে ভোট চান তারা।
monarchmart
monarchmart