বৃহস্পতিবার ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঐক্যফ্রন্ট শুধু মঞ্চেই, মাঠে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ পুলিশের অনুমতি পাওয়ার পর ব্যাপক ঢাকঢোল পিটিয়ে রাজশাহীতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে ড. কামালের নাম প্রধান অতিথি হিসেবে ঘোষণা করা হলেও শেষ পর্যন্ত প্রধান অতিথি ছাড়াই অনুষ্ঠিত হলো সমাবেশ। সমাবেশে ড. কামালের অনুপস্থিতি নিয়ে ফ্রন্টের অন্য নেতাদের মধ্যে মতানৈক্যের সৃষ্টি হয়েছে। ড. কামালের অনুপস্থিতিতে অনেকের মধ্যে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন অনেকে। আশা ছিল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরদিনই ড. কামালের প্রতিক্রিয়া সরাসরি জানবেন নেতাকর্মীরা। কিন্তু তা আর হলো না। ফলে হতাশ হয়েছেন নেতাকর্মীরা।

এদিকে রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠের সমাবেশের মঞ্চে শুধু কামালহীন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা থাকলেও মাঠে শুধু বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের দেখা গেছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে যুক্ত অন্য কোন দলের কর্মীদের খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ নিয়েও বিএনপির নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয় সমাবেশ স্থলেই। বিএনপি কর্মীদের অভিযোগ, মাঠে না থাকলেও শুধু মঞ্চে আসন নেয়ার জন্য তথাকথিত নেতারা ঐক্যফ্রন্টের নামে বিএনপির ওপর ভর করেছে। অথচ কামালের গণফোরাম, রবের জেএসডি, কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, মাহমুদুর রহমান মান্নার নাগরিক ঐক্যের কোন কর্মী নেই। তাদের কোন ব্যানারও চোখে পড়েনি পুরো সমাবেশ ঘুরে।

রাজশাহীর সমাবেশে ঐক্যফ্রন্টের কয়েকজন নেতা থাকলেও পুরো মঞ্চ ও মাঠ ছিল বিএনপির দখলে। তারাই সব দায়িত্ব পালন করেছেন। ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে যুক্ত দলগুলোর স্থানীয় নেতাদের কাউকে দেখা যায়নি সমাবেশে। সমাবেশের মাঠে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’ সম্বলিত ফেস্টুন হাতে এক বিএনপি নেতা জানালেন, ‘এটা কিসের ঐক্যফ্রন্ট। ফ্রন্টের যে প্রধান ড. কামাল তিনি তো নিজেই আসেননি। তার একটি কর্মীও নেই। তিনি বলেন, এটি বিএনপির সমাবেশ। ঐক্যফ্রন্ট নয়। কামাল মার্কা ঐক্যফ্রন্ট করে বিএনপি এগোতে পারবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে সমাবেশে ড. কামাল বিমুখ হওয়ায় রাজশাহীতে ধাক্কা খেল জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। জোটের প্রধান নেতা হয়েও ড. কামাল হোসেনের অনুপস্থিতি নিয়ে সন্দিহান ফ্রন্টের নেতারা। কারণ হিসেবে শারীরিক অবস্থার কথা জানা গেলেও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সমাবেশের প্রস্তুতি নিয়ে দ্বন্দ্বের কারণে রাজশাহী বিএনপির সঙ্গে জামায়াতের শক্ত অবস্থান থাকায় তিনি আসেননি।

একটি সূত্র জানিয়েছে, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান লন্ডন পলাতক গ্রেনেড হামলার মূল আসামি তারেক রহমানের ‘কিলিং কামাল মিশনে’র ভয়ে সমাবেশ থেকে সরে গিয়েছেন খ্যাতিমান এই আইনজীবী ড. কামাল।

এছাড়া সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপ শেষে প্রথমে ড. কামাল সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও বিএনপি সন্তুষ্ট নয় বলে জানায়। পরে তারা ড. কামালকে চাপ দিয়ে ফ্রন্টের মুখপাত্র হিসেবে আ স ম রবকে সরিয়ে মির্জা ফখরুলকে মনোনীত করে। মূলত তারপর থেকেই ঐক্যফ্রন্টের যাবতীয় কর্মকা- বিএনপি থেকেই পরিচালিত হয় এবং তাদের মধ্যে দূরত্ব বাড়তে থাকে বলে জানা গেছে। এসব কারণে বৃহস্পতিবার রাজশাহী অভিমুখে লংমার্চের ঘোষণা দিয়েও তা শেষ সময়ে স্থগিত করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

এছাড়া রাজশাহীতে সমাবেশের আগে প্রস্তুতিতে বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মিনু এবং মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল গণফোরাম সভাপতিকে যথাযথ মূল্যায়ন করেননি। এতে ড. কামাল মনোক্ষুণœ হন। তবে রাজশাহী গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী পেয়ারা জানান, আমরাও জেনেছি স্যার আসছেন না। তবে কেন আসছেন না তা বলতে পারব না।

তবে শেষমেশ রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে ঐক্যফ্রন্টের জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে শুধু বিএনপির কর্মীদের নিয়ে। দুপুর আড়াইটার দিকে জনসভা শুরু হয়। জনসভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহী সমন্বয়ক মিজানুর রহমান মিনু।

সমাবেশ মঞ্চে বিএনপি নেতাদের আধিক্যই ছিল বেশি। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরীর এ্যানি, নির্বাহী সদস্য দেবাশীষ রায় মধু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। তবে ঐক্যফ্রন্টের বলতে শুধু কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব এবং গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি এ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
টেকনাফে অস্ত্রসহ আরসা ক্যাডার আটক         উন্নয়নশীল দেশ হলে বাণিজ্য-রফতানি বাড়বে ॥ প্রধানমন্ত্রী         লাখাই থেকে ২৭২৫ পিস ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেফতার         অর্থ আত্মসাত ॥ এস কে সিনহা বিরুদ্ধে মামলার রায় ফের পেছাল         পূর্বাচলে প্রদর্শনী কেন্দ্রের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী         নীলফামারীতে বন্যা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নতি         সারা বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৪৭২ জন         মামলা হচ্ছে বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে         নেপাল ও ভারতে বন্যা আর ভূমিধসে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১২৯         রাজধানীতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৫২         বিশ্ব বাণিজ্যে স্বল্পোন্নত দেশগুলোকে প্রবেশের সুযোগ দেওয়ার আহ্বান         কুমিল্লার পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ব্যক্তি শনাক্ত         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮         ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস         গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘ক’ ইউনিটের ফল প্রকাশ         করোনা ভাইরাসে টিকা নিবন্ধনে বয়সসীমা সর্বনিম্ন ১৮ বছর নির্ধারণ         কারওয়ানবাজারে বাসচাপায় স্কুটিচালক নিহত         এসকে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে রায় বৃহস্পতিবার         জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে পান্থকুঞ্জ : মেয়র তাপস         গুজব : বদরুন্নেসা কলেজের শিক্ষিকা আটক