ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

বঙ্গীয় গ্রন্থ জাদুঘরের জাতীয় কমিটি

প্রকাশিত: ০৬:০৭, ৩০ অক্টোবর ২০১৮

বঙ্গীয় গ্রন্থ জাদুঘরের জাতীয় কমিটি

বিক্রমপুরের (মুন্সীগঞ্জ) লৌহজং উপজেলার কনকসার গ্রামে বাংলাদেশের প্রথম বুক মিউজিয়াম- বঙ্গীয় গ্রন্থ জাদুঘর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ২০১৬ সালের মার্চ মাসে এই গ্রন্থ জাদুঘর ও সংলগ্ন স্কলার’স রেস্ট হাউসটি উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি। অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানে সাহিত্য ও সমাজ গবেষণার সুযোগ থাকবে। বঙ্গীয় গ্রন্থ জাদুঘরের যুক্ত থাকবে আর্কাইভ, প্রকাশনা বিভাগ, সংগ্রহশালা এবং নিজস্ব গবেষণা বিভাগ। প্রতিষ্ঠানটিকে একটি জাতীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে গত ২৭ অক্টোবর বিকেল ৪টায় অর্থমন্ত্রী এ এম এ মুহিতের হেয়ার রোডস্থ বাসভবনে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ এম এ মুহিতের সভাপতিতে অনুষ্ঠিত সভায় আলোচনায় অংশ নেন বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. নজরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও পিকেএসএফ-এর চেয়ারম্যান ড. খলীকুজ্জামান আহমেদ, বিশিষ্ট সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, রামেন্দু মজুমদার, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ, এশিয়াটিক সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক মাহফুজা খানম, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ, কালের কণ্ঠের সম্পাদক বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন এবং অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের সভাপতি নূহ-উল-আলম লেনিন। সভাপতির বক্তৃৃতায় এ এম এ মুহিত এই উদ্যোগের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে একটিকে বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
×