ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

যশোরে ১২ ডাক্তারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত: ০৪:৫১, ২৯ অক্টোবর ২০১৮

  যশোরে ১২ ডাক্তারের  বিরুদ্ধে গ্রেফতারি  পরোয়ানা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত ও সাবেক ১২ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। রবিবার গ্রেফতারি পরোয়ানার কপি হাসপাতালের প্রশাসনিক শাখায় পৌঁছায়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আবুল কালাম আজাদ লিটু। ডাঃ লিটু জানান, হাসপাতালের ডাক্তাররা রোগীর জখমি সনদ, মৃত ব্যক্তির ময়নাতদন্ত রিপোর্ট, ধর্ষণের প্রতিবেদন মামলা নিষ্পত্তির জন্য দিয়ে থাকেন। পরে এসব রিপোর্ট ও প্রতিবেদনের বিষয়ে আদালত চিকিৎসকের সাক্ষ্য নেয়ার জন্য তলব করে। কিন্তু একাধিকবার নোটিস করা হলেও সাক্ষ্য দিতে না যাওয়ার কারণে আদালত অবমাননার অভিযোগে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। চলতি মাসের ৪ তারিখে যশোরের স্পেশাল জজ আদালতের (জেলা জজ) বিচারক শেখ ফারুক হোসেন এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। হাসপাতালের প্রশাসনিক সূত্র জানিয়েছে, যেসব ডাক্তারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে তারা হলেন, ইমারজেন্সি মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ আব্দুর রহমান, ডাঃ জিকেএম কামরুজ্জামান, ডাঃ এমএ লতিফ, ডাঃ কানিজ ফাতেমা, ডাঃ নাছির উদ্দিন, ডাঃ ফারুক এহতেশাম পরাগ, ডাঃ এমএ সামাদ, আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ আবু ইসহাক আলী, ডাঃ মুসতাঈন বিল্লাহ, ডাঃ হাসান মাহমুদ হাদী, ডাঃ নজরুল ইসলাম এবং ডাঃ আব্দুল কাদের। এদের মধ্যে ডাঃ কানিজ ফাতেমা যশোর মেডিক্যাল কলেজে, ডাঃ নাছির উদ্দিন ঝিকরগাছা, ডাঃ ফারুক এহতেশাম পরাগ ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজে এবং ডাঃ এম এ সামাদ ও ডাঃ আব্দুল কাদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে কর্মরত। বাকিরা অবসরে গেছেন। তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আবুল কালাম আজাদ লিটু বলেন, রবিবার সকালে আদেশ হাতে পেয়েছি। বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য জেলা প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।
monarchmart
monarchmart