ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

জেলেদের দুই গ্রুপে বিরোধ ॥ চট্টগ্রামে সড়ক অবরোধ

প্রকাশিত: ০৬:৩২, ৩১ জুলাই ২০১৮

জেলেদের দুই গ্রুপে বিরোধ ॥ চট্টগ্রামে সড়ক অবরোধ

নিজস্ব সংবাদদাতা, সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম, ৩০ জুলাই ॥ সীতাকুণ্ডে সাগরে মাছ ধরা নিয়ে দুই জেলে সম্প্রদায়ের সীমানা বিরোধের ঘটনায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দেড় ঘণ্টা অবরোধ করেছে ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মির্জানগর জেলেপাড়ার সম্প্রদায়গণ। সোমবার সকাল সাড়ে এগারোটা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত দেশের ব্যস্ততম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন জেলে সম্প্রদায়গণ। এতে অংশগ্রহণ করে শত শত পুরুষ ও নারী জেলেরা। ঘটনার পর পর ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির টি আই রফিকুল ইসলাম মজুমদার, বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি আহসান হাবিব ও সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি তদন্ত মোজাম্মেল হোসেন, ৯নং ভাটিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ নাজিম উদ্দিন ও ছলিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ সালাউদ্দিন আজিজ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং জেলে সম্প্রদায়কে আশ্বাস প্রদান করে দুই ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, সীমানা বিরোধ নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত সহিংসতার অবসান হবেই। আশা করি, আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তা সমাধানে উত্তীর্ণ হব। আগামী ৩ আগস্ট শুক্রবারে দুই জেলেপাড়ার সীমানা বিরোধ নিষ্পত্তিতে একটি গোল বৈঠক আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হবে বলে জেলেদের আশ্বস্ত করলে তারা তাদের শান্তিপূর্ণ অবরোধ তুলে নেয়। জানা যায়, উপজেলার সবচেয়ে দ্বিতীয় বৃহত্তর জেলেপাড়া হচ্ছে উত্তর ছলিমপুর জেলে পাড়া। ওই পাড়ায় প্রায় দুই শতাধিক জেলে সম্প্রদায়ের সাগরে মাছ ধরার লাল বোট রয়েছে। অপর দিকে তাদের উত্তরে অবস্থিত ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মির্জানগর জেলে পাড়া। ১৯৯০ সাল থেকে সাগরে দেশের ঐতিহ্যবাহী মাছ ইলিশ আহরণ সীমানা নিয়ে সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। সীতাকু-ের প্রতি জেলেপাড়ার সাগরে মাছ আহরণের নির্ধারিত স্থান রয়েছে। তবে এই দুই জেলেপাড়ার অবস্থা ভিন্ন। তাদের নেই কোন নির্ধারিত সীমানা! প্রতিনিয়ত তাদের এই সীমানা নিয়ে ঝগড়া-বিবাধ লেগে রয়েছে। অন্যদিকে তাদের এই সহিংসতা নিয়েছে ভয়ঙ্কর রূপ। উপরোক্ত বিষয়ে সীমানা নিয়ে দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও জেলেপাড়ার সর্দারগণ উক্ত সমস্যার সমাধানের নিরূপণের বৈঠক হলেও সীমানা নিয়ে কেউ কাউকে একবিন্দু ছাড় দিতে রাজি নয়। উল্লেখ্য, দীর্ঘ ২৮ বছর দুই জেলে সম্প্রদায়ের দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। সরকার আসে সরকার যায়, চেয়ারম্যান আসে চেয়ারম্যান যায়। এই দ্বন্দ্বের সুষ্ঠু সমাধান কেউ করেনি। ৩০ জুলাই সকালে উপজেলা প্রশাসনের দুই সার্ভেয়ারসহ দুই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যগণ জেলে সর্দারদের নিয়ে বৈঠকের কথা ছিল। কিন্তু সঠিক সময়ে ফৌজদারহাট জেলে সম্প্রদায় বৈঠকে না আসায় ভাটিয়ারী জেলে সম্প্রদায়ের পুরুষ-মহিলা শত শত জেলে মহাসড়কে উঠে অবরোধ করে বসে।
monarchmart
monarchmart