ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

দেশী খামারিরাই এবার ঈদে গরু-ছাগলের চাহিদা পূরণ করবে

প্রকাশিত: ০৫:৫৭, ২৪ জুলাই ২০১৮

দেশী খামারিরাই এবার ঈদে গরু-ছাগলের চাহিদা পূরণ করবে

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ কোরবানি ঈদ এগিয়ে আসছে। কোরবানির গরু-ছাগলের হাটের প্রাক প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। ডেইরি ফার্ম ও গ্রামের গরু পালনকারী খামারিরা এখনই দাম ঠিকঠাক করা নিয়ে ব্যস্ত। অনেক ক্রেতা কোরবানির ক্ষণ গণনার পালায় আগেভাগে গরু কিনে কৃষকের বাড়িতে রেখে দিচ্ছেন। এতে দামে কিছুটা হলেও সাশ্রয় হয়। কেউ আবার কোরবানির দাম বাড়বে না কমবে এই ভাবনায় কালক্ষেপণ করছেন। গরুর ব্যাপারীরা আছে দুই ধান্ধায়। এক. ডেইরি ফার্ম ও গ্রামের খামারির সঙ্গে গরু কেনার চুক্তি, দুই. সীমান্ত পেরিয়ে আসা গরু সংগ্রহ। কোরবানির হাটের ইজারাদাররা গোঁফে তা দিচ্ছেন, ব্যাপারীদের থাকা খাওয়ার সুব্যবস্থা করে দিয়ে কতটা বাটা কাটা যায়। কোরবানির ঈদের আগে কিছুটা এই চিত্র ধরা দিচ্ছে। বছর চারেক আগেও কোরবানির ঈদের আগে ভারতীয় গরু প্রায় পাল ধরে সীমান্ত অতিক্রম করত। কিছু গরু করিডর শুল্ক পরিশোধের মাধ্যমে বৈধ করা হতো (এখনও এই কার্যক্রম আছে)। বর্তমানে সীমান্ত দিয়ে গরু আসা অনেক কমে এসেছে। কোরবানির ঈদের সময় দেশী খামারিরা গরুর মোট চাহিদার অন্তত ৯০ শতাংশেরই যোগান দিচ্ছে। বাকি ১০ শতাংশ কোন না কোনভাবে সীমান্ত গলিয়ে আসছে। ছাগল ভেড়ার চাহিদার শতভাগই যোগান দিচ্ছে দেশী খামারি ও গ্রামের পশুপালনকারীরা।
monarchmart
monarchmart