সোমবার ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

খালেদার সাজা খারিজ চেয়ে করা আপীলের শুনানি বিষয়ে আদেশ আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সাজা খারিজ চেয়ে করা আপীল শুনানির দিন ঠিক করার বিষয়ে আজ সোমবার আদেশ দেবে হাইকোর্ট। কুমিল্লায় বাসে পেট্রোলবোমা হামলায় ৮ জন নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের ওপর রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের শুনানি শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামী ২ জুলাই দিন ধার্য করেছে আপীল বিভাগ। একই ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা অপর এক

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের লিভ টু আপীলের শুনানির জন্য আজ সোমবার দিন ঠিক করা হয়েছে। এদিকে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ২৬ জুলাই দিন ধার্য করেছে আদালত। রবিবার সুপ্রীমকোর্টের আপীল বিভাগ, হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চও বিচারিক আদালত এ আদেশ প্রদান করেছে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দ-প্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা খারিজ চেয়ে করা আপীল শুনানির দিন ঠিক করার বিষয়ে আজ সোমবার আদেশ দেবে হাইকোর্ট। রবিবার দুপুরে হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। আদালতে দুদকের পক্ষে আইনজীবী খুরশিদ আলম খান শুনানি করেন। খুরশিদ আলম খান বলেন, অরফানেজ মামলায় খালেদা জিয়ার আপীলসহ পৃথক তিন আসামির তিনটি আপীল শুনানির দিন ধার্য করার জন্য আবেদন করছি। তিনি আরও বলেন, আপীল বিভাগের নির্দেশনা আছে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপীল নিষ্পত্তির। তখন আদালত বলে, আপীল বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী শুধু খালেদা জিয়ার আপীলটি শুনতে পারব। কিন্তু দুদকের মামলার শুনানির এখতিয়ার না থাকায় বাকি আসামিদের আপীল শুনতে পারব না। এরপর আদালত বলে, খালেদা জিয়ার আপীল শুনানির দিন ধার্যের জন্য সোমবার আদেশের জন্য থাকবে। এর আগে গত ১৬ মে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দ-প্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রাখে আপীল বিভাগ। একই সঙ্গে খালেদা জিয়া তার সাজার বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যে আপীল দায়ের করেছিলেন তা ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দেয়া হয়। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের সাজা দেয়ার পর গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারেই আছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন।

কুমিল্লায় বাস পোড়ানো মামলা জামিনের আদেশ ২ জুলাই ॥ কুমিল্লায় পেট্রোলবোমায় বাস পুড়িয়ে মানুষ হত্যার মামলায় খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল থাকবে কি না, আপীল বিভাগ সেই সিদ্ধান্ত জানাবে ২ জুলাই। হাইকোর্টের জামিন আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের লিভ টু আপীলের শুনানি শেষে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে চার বিচারকের আপীল বেঞ্চ রবিবার আদেশের এই তারিখ ঠিক করে দেয়। আর কুমিল্লায় কভার্ড ভ্যানে আগুন দেয়ার ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় খালেদার জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ যে লিভ টু আপীল করেছে, তা সোমবার শুনবে সর্বোচ্চ আদালত। রবিবার কুমিল্লার হত্যা মামলায় লিভ টু আপীলের ওপর রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানিতে ছিলেন এ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী, এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, জয়নুল আবেদীন ও ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

অবকাশ ও ঈদের ছুটি শেষে রবিবার সুপ্রীমকোর্ট খোলার পর সকাল পৌনে দশটার দিকে সর্বোচ্চ আদালতে লিভ টু আপীলের শুনানি শুরু হয়। শুরুতেই এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম কুমিল্লায় পেট্রোলবোমায় বাস পুড়িয়ে মানুষ হত্যার মামলার অভিযোগপত্র, ঘটনার কিছু স্থিরচিত্র এবং ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন থেকে ঘটনার ভয়াবহতা ও মামলার আদ্যোপান্ত তুলে ধরেন। ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাসে পেট্রোলবোমা নিক্ষেপ ও আট যাত্রীর মৃত্যুর ঘটনার আগে দলের নেতাদের সঙ্গে টেলিফোনে খালেদা জিয়ার কথোপকথনও মাহবুবে আলম শুনানিতে তুলে ধরেন।

পরে খালেদা জিয়াকে এ ঘটনার ‘নির্দেশদাতা’ হিসেবে বর্ণনা করে রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা বলেন, হরতাল ও অবরোধ এক বিষয় না। হরতাল ও অবরোধের মাঝে পার্থক্য হচ্ছে, হরতালে সীমিতভাবে গাড়ি চলে, দোকানপাটও খোলা থাকে। আর অবরোধে গাড়ি চলতে দেয়া হয় না। সবকিছু অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। তখন লাগাতার অবরোধ চলছিল। তাছাড়া অবরোধ সফল করার ক্ষেত্রে খালেদা জিয়াই তখন প্রধান ব্যক্তি। টেলি কথোপকথনেই প্রমাণ হয়, খালেদা জিয়ার নির্দেশেই ওই ঘটনা ঘটেছে। এতবড় নৃশংস ঘটনায় করা মামলার প্রধান ব্যক্তি হওয়ার পরও যদি তাকে জামিন দেয়া হয়, তবে এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও তাদের পরিবারগুলোর কছে কী বার্তা যাবে? ফলে আমার আরজি হল, হাইকোর্টের দেয়া জামিন বাতিল করা হোক।

এরপর প্রধান বিচারপতি এ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে জানতে চান, এ বিষয়ে তার আরও কিছু বলার আছে কি না। তখন এ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, আরেকটু আছে। আগামীকাল করতে চাচ্ছি। প্রধান বিচারপতি তখন বলেন, আগামীকাল (সোমবার) আমাদের একজন ব্রাদার জাজ থাকবেন না। দেশের বাইরে যাবেন। তাহলে আগামী সোমবারের পরের সোমবার শুনব। খন্দকার মাহবুব হোসেনসহ খালেদা জিয়ার অপর আইনজীবীরা এর বিরোধিতা করলে আদালত এ আবেদনের ওপর তাদের শুনানি নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। শুনানিতে এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কুমিল্লায় বাসে পেট্রোলবোমা দিয়ে মানুষ হত্যার ঘটনাটিকে হিটলারি কায়দার সঙ্গে তুলনা করেন। এ বিষয়ে খন্দকার মাহবুব সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনাটি সত্যিই হয়েছে। সরকারী এজেন্টরা হিটলারি কায়দায় পেট্রোলবোমা মেরে জনগণকে মেরেছে।

খন্দকার মাহবুব শুনানিতে বলেন, খালেদা জিয়ার সম্মান হানি করতেই পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করা হয়েছে। বিরোধীদলের ওপর দোষ চাপিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত ও শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে নস্যাৎ করতে সরকারের এজেন্টরা পেট্রোলবোমা মেরে নাশকতা করেছে। তার দায়-দায়িত্ব বেগম খালেদা জিয়ার না। এ মামলার এফআইআরএ ৫৬ জনের নাম ছিল, সেখানে খালেদা জিয়ার নাম ছিল না। পরে দ্বিতীয়বার অভিযোগপত্রে তার নাম ঢুকানো হয়েছে। আর যদি ধরেও নেয়া হয়, তিনি নির্দেশদাতা; তবে যাদের তিনি নির্দেশ দিলেন তাদের সবাই তো জামিনে আছেন। তিনি বলেন , এ্যাটর্নি জেনারেল অভিযোগপত্র, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন, ছবি দেখালেন। আমরা কি মামলা বাতিল চাইতে এসেছি? এসেছি জামিনের জন্য। ৭০ বছর বয়সী অসুস্থ একজন নারী। যিনি জীবন ঝুঁকিতে রয়েছেন। ফলে হাইকোর্টের দেয়া জামিন বহাল রাখার জন্য প্রার্থনা করছি। এ আবেদনে শুনানি শেষ হলে প্রধান বিচারপতি বলেন, এ আবেদনটির আদেশ আগামী ২ জুলাই। আর ১০ নম্বর আইটেম (বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা) আগামীকাল ( সোমবার) শুনব।

কুমিল্লার নাশকতার দুই মামলায় গত ২৮ মে বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ খালেদাকে জামিন দেয়। হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধে ওই দিনই আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ২৯ মে আপীল বিভাগের চেম্বার আদালত জামিন স্থগিত রেখে ৩১ মে পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির আদেশ দেয়। গত ৩১ মে শুনানির পর আপীল বিভাগ খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত রেখে রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপীল করতে আদেশ দেয় এবং ২৪ জুন দিন ঠিক করে দেয়।

গ্যাটকো মামলার অভিযোগ ২৬ জুলাই ॥ গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ২৬ জুলাই দিন ধার্য করেছে আদালত। আজ রবিবার মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য ছিল। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া শুনানি পেছানোর আবেদন করলে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩ এর বিচারক আবু সৈয়দ দিলদার আবেদন মঞ্জুর করে নতুন এ দিন ধার্য করেন। ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী সাবেক চার দলীয় জোট সরকারের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা করে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩৩০৮৯০১৩
আক্রান্ত
৩৫৯১৪৮
সুস্থ
২৪৪৪২৫৪১
সুস্থ
২৭০৪৯১
শীর্ষ সংবাদ:
উন্নয়নের কান্ডারি শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ         এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         শেখ হাসিনার জীবন সংগ্রামের ॥ তথ্যমন্ত্রী         স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ের কথা বলে ধর্ষণ, দুজন রিমান্ডে         ডোপ টেস্টে আরও ১৪ পুলিশ শনাক্ত         চীনা ভ্যাকসিনের ঢাকা ট্রায়াল নিয়ে সংশয়         দেয়াল চাপায় সাত জনের মৃত্যু         করোনায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে নতুন রোগী         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই         উন্নয়নে প্রতিবেশীদের সঙ্গে আরও দৃঢ় সহযোগিতায় জোর প্রধানমন্ত্রীর         সিলেটের ঘটনায় সরকার কঠোর অবস্থানে আছে ॥ কাদের         ভার্চুয়াল কোর্টেকে আরো সাফল্য মন্ডিত করতে বিচারক ও আইনজীবীদের প্রশিক্ষণ প্রয়োজন ॥ আইনমন্ত্রী         নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ ॥ নিহত ও আহত ৩৮ পরিবারের মাঝে ৫ লাখ টাকা করে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান বিতরণ         স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি ॥ বন্ধ করতে দুদকের ২৫ সুপারিশ বাস্তবায়নে রিট         ‘অক্সফোর্ডের বাংলাদেশে পাঁচ লাখ মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা ভুল প্রমাণিত হয়েছে’         এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আদালতে জবানবন্দি         এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ ॥ সাইফুরের পর অর্জুন গ্রেফতার         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে সংক্রমণ ৬০ লাখ ছুঁই ছুঁই         ধর্ষনের ঘটনায় ভিপি নূরসহ সকল আসামী ঢাবিতে অবাঞ্চিত