ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

সুপ্রীমকোর্ট বার নির্বাচন

সভাপতি-সম্পাদকসহ ১০ পদে বিএনপি সমর্থিতদের জয়

প্রকাশিত: ০৪:৫৯, ২৪ মার্চ ২০১৮

 সভাপতি-সম্পাদকসহ ১০ পদে বিএনপি সমর্থিতদের জয়

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সুপ্রীমকোর্ট বারের নির্বাচনে এবারও বিএনপিপন্থীদের জয় হয়েছে। এ নির্বাচনে ১৪ পদের মধ্যে সভাপতি ও সম্পাদকসহ ১০ পদে জয় পেয়েছেন বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত আইনজীবীরা। আর সহ-সম্পাদকসহ ৪ পদে জয় পেয়েছেন সরকার সমর্থক আইনজীবীরা। শুক্রবার ঘোষিত ফল অনুসারে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। গতবারের নির্বাচনেও এই দুইজন সভাপতি ও সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। জয়নুল আবেদীন সভাপতি পদে টানা দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হলেও ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন টানা ষষ্ঠবারের মতো সম্পাাদক নির্বাচিত হয়েছেন। বুধ ও বৃহস্পতিবার সুপ্রীমকোর্ট বারের ২০১৮-১৯ সেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ১৪ পদের বিপরীতে প্রার্থী ছিলেন ৩৩ জন। ভোট গণনার পর নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির সমন্বয়ক এ ওয়াই মশিউজ্জামান শুক্রবার সকালে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন। তিনি জানান, সমিতির ৬ হাজার ১৫২ জন ভোটারের মধ্যে ৪ হাজার ৮৬৫ জন দুই দিনে ভোট দিয়েছেন। অর্থাৎ ভোট পড়েছে ৭৯ শতাংশের বেশি। বিএনপি জামায়াত সমর্থিত নীল প্যানেলের জয়নুল আবেদীন সভাপতি পদে জয় পেয়েছেন মাত্র ৫৪ ভোটের ব্যবধানে। তার পাওয়া ২ হাজার ৩৬৯ ভোটের বিপরীতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন পেয়েছন ২ হাজার ৩১৫ ভোট। সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা প্যানেলের শেখ মোঃ মোরশেদের চেয়ে ৪৪১ ভোট বেশি পেয়েছেন। মাহবুব উদ্দিন খোকনের ২ হাজার ৬১৬ ভোটের বিপরীতে শেখ মোঃ মোরশেদ পেয়েছেন ২ হাজার ১৭৫ ভোট। সহ-সভাপতির দুটি পদই জয় পেয়েছে নীল প্যানেল। এ ২টি পদে বিজয়ীরা হলেন মোঃ গোলাম মোস্তফা ও মোঃ গোলাম রহমান ভূঁইয়া। নীল প্যানেল থেকে নাসরিন আক্তার কোষাধ্যক্ষ ও কাজী মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন সহ-সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। আর সাতটি সদস্য পদের মধ্যে নীল প্যানেলের মাহফুজ বিন ইউসুফ, মোঃ আহসান উল্লাহ, মোঃ শফিউল আলম মাহমুদ ও মোঃ মেহেদি হাসান নির্বাচিত হয়েছেন। সাদা প্যানলের প্রার্থীদের মধ্যে মোঃ আবদুর রাজ্জাক সহ-সম্পাদকের দুটি পদের একটিতে বিজয়ী হয়েছেন। এছাড়া সাদা প্যানেল থেকে সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন আশরাফুল হাদী, শাহানা পারভীন ও শেখ মোঃ মাজু মিয়া। সাদা ও নীল প্যানেলের বাইরে সভাপতি পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন ইউনুছ আলী আকন্দ ও শাহ খসরুজ্জামান। সহ-সভাপতি পদে মোঃ আব্দুল জব্বার ভূইয়া, সম্পাদক পদে মোহাম্মদ আবুল বাসার ও সদস্য পদে তাপস কুমার দাস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে কেউ বিজয়ী হতে পারেননি।