শুক্রবার ৯ মাঘ ১৪২৭, ২২ জানুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য লবিংয়ে প্রত্যাশিত ফল নেই

শংকর কুমার দে ॥ দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্তর্জাতিক মহলে লবিং করেও প্রত্যাশিত ফল পাচ্ছে না বিএনপি। তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির বিষয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রভাব বিস্তার করতে ব্যর্থ হয়েছেন দলের শীর্ষ নেতারা। টানা ১৬ দিন ধরে কারান্তরালে থাকা দল নেত্রীকে মুক্ত করতে না পারায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন খালেদা জিয়ার আত্মীয়স্বজন ও ঘনিষ্ঠরা। খালেদা জিয়া কারাবন্দী হওয়ার পর থেকে জাতিসংঘ, মানবাধিকার সংগঠন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপিয় ইউনিয়ন, মধ্যপ্রাচ্য, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে তার মুক্তির দাবিতে লবিং করা হলেও কেউই তাদের অনুরোধে সাড়া দিচ্ছে না। বিএনপির নেতৃত্বাধীন জামায়াত-শিবিরসহ ২০ দলীয় জোটও বিএনপির চেয়ারপার্সনের মুক্তির দাবিতে মাঠে নামছে না। এ কারণে দেশের ভেতরে শান্তিপূর্ণ কোন নিয়মতান্ত্রিক কোন আন্দোলনও গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা। তারা মুখে তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা রাখার চেষ্টা করলেও অনেকেই হতাশায় নিমজ্জিত।

কূটনৈতিক সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে গোয়েন্দা সংস্থার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অনেক দেন দরবার করার পরও জাতিসংঘসহ মানবাধিকার সংগঠনগুলো কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কোন বিবৃতি বা সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। দুর্নীতির মতো স্পর্শকাতর বিষয়ে আদালতে সাজাপ্রাপ্ত, উচ্চ আদালতে বিচারাধীন, বিষয় নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যে কথা বলবে না সেটাও আভাসে ইঙ্গিতে সাফ জানিয়ে দিয়েছে তারা। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যেভাবে জ্বালাও-পোড়াও করে সরকারের পতন ঘটানোর চেষ্টা করলেও এখন দলের নেত্রী টানা ১৬ দিন ধরে কারাগারে থাকার পরও কোন আন্দোলন গড়ে তুলতে না পারার বিষয়টি খোদ দলের অনেকের মধ্যেই অসন্তোষের সৃষ্টি হয়েছে, যা আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এর রেশ পড়তে পারে। অপরদিকে আন্তর্জাতিক মহলের সঙ্গে দলের যেসব শীর্ষ নেতা সম্পর্ক রাখেন তাদের শোচনীয় ব্যর্থতায় দলীয় চেয়ারপার্সনের কাছে অদূর ভবিষ্যতে কোন সহানুভূতি মিলবে কিনা তাও প্রশ্নবিদ্ধ।

গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, বিদেশে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে একদল তরুণ ব্যারিস্টার, ডাক্তার ও সাংবাদিক, সংগঠনের নেতা-কর্মী দলীয় চেয়ারপার্সনের মুক্তির দাবিতে সক্রিয় আছেন। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপিয় ইউনিয়ন, মধ্যপ্রাচ্য, জাতিসংঘ ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোর কাছে বিদেশীদের কাছে লবিং করা হচ্ছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলের ওপর আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের নিপীড়ন নির্যাতন বিষয় তুলে ধরার চেষ্টা করছেন তারা। বিরোধীদল হিসেবে বিএনপিকে রাজনীতি করার কোন সুযোগ দিচ্ছে না বলে ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে অভিযোগও তোলা হয়েছে। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতা থেকে একেবারে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাদের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যা মামলা দায়েরসহ নানা রকম হয়রানি করারও অভিযোগ প্রমাণাদিসহ বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর কাছে দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে বিএনপি নেতা-কর্মীসহ মানুষজন গুম ও হত্যাকা-ের শিকার হওয়া বিষয়ে অভিযোগ করেছে তারা। বিএনপির চেয়ারপার্সনকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা শিকারে পরিণত করে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে বলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে অভিযোগ করেছেন বিএনপির শীর্ষ নেতা ও বিদেশে অবস্থানরতরা। কিন্তু এতে প্রত্যাশিত ফল লাভ না করতে পারায় নতুন কৌশলের সন্ধানে আছে বিএনপি।

শীর্ষ সংবাদ:
বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল ওয়েস্ট ইন্ডিজ         বাগদাদে আত্মঘাতী হামলা ॥ নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩২         সাবেক এমপি মজিদ মণ্ডলের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         ঘন কুয়াশায় টোল আদায় বন্ধ ॥ ৪০ কিলোমিটার যানজট         কর্ণাটকে পাথর কোয়ারিতে ডিনামাইট বিস্ফোরণ ॥ নিহত ৮         ইউক্রেনে নার্সিং হোমে আগুনে ১৫ জন নিহত         ঘন কুয়াশা ॥ ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের সব ফ্লাইট বাতিল         পাক সেনার গুলিতে ভারতীয় জওয়ান নিহত         পাথরঘাটায় বরফমিলে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে নিহত ১,আহত অর্ধশতাধীক         ফিলিস্তিন ইস্যুতে আমেরিকার অন্যায় নীতি পরিবর্তনের আহ্বান হামাসের         ভ্যাকসিন এসে গেছে ॥ ভারতের উপহার ২০ লাখ ডোজ         ট্রাম্পের নীতি বদলাতে প্রথমদিনই কাজ শুরু বাইডেনের         উচ্ছেদ অভিযান, সংঘর্ষে মিরপুর রণক্ষেত্র         করোনা টিকার জন্য ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘সুরক্ষা’ প্রস্তুত         আরও এক দফা শৈত্যপ্রবাহ আজ থেকেই         সবার আগে ভ্যাকসিন নিতে চান অর্থমন্ত্রী         আজ জিতলেই সিরিজ বাংলাদেশের         সাম্প্রদায়িকতা ছড়িয়ে মানুষকে আর বোকা বানানো যাবে না         বিএনপি মানেই হচ্ছে উন্নয়নে জিরো, দুর্নীতিতে হিরো         ধন নয়, মান নয় একটুকু বাসা...