শনিবার ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এস কে সিনহার পদত্যাগ করা উচিৎ ॥ হাছান

এস কে সিনহার পদত্যাগ করা উচিৎ ॥ হাছান

অনলাইন রিপোর্টার ॥ প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে পদত্যাগ করে পাকিস্তান চলে যেতে বললেন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ। সোমবার দুপুরে রাজধানীর শাহবাগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সামনে এক মানববন্ধনে বক্তব্যকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতিকে উদ্দেশ্য করে হাছান মাহমুদ বলেন, "২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বর আপনি আদালতে বলেছেন-আপনি একাত্তের শান্তি কমিটির সদস্য ছিলেন। পাকিস্তানিদের সাহায্য করার জন্য শান্তি কমিটির সদস্য হয়েছিলেন, আর আজকে পাকিস্তানের উদাহরণ দিবেন এটাই স্বাভাবিক। শান্তি কমিটির অনেক সদস্য স্বাধীনতার পরে পাকিস্তানে চলে গেছেন। শুধু পদত্যাগ করলে হবে না, আপনি পাকিস্তানের উদাহরণ দেন, পাকিস্তানে চলে যেতে পারেন।"

‘ষোড়শ সংশোধনীর রায় সংক্রান্ত পর্যবেক্ষণে মাননীয় প্রধান বিচারপতির রাজনৈতিক অসত্য মনগড়া বিভ্রান্তিমূলক মন্তব্যের প্রতিবাদ’ শীর্ষক মানববন্ধনটির আয়োজন করে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ)।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন- স্বাচিপের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এম এ আজিজ, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও গণশিক্ষা সম্পাদক ডা. রোকেয়া বেগম প্রমুখ। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউ এর উপাচার্য ডা. কামরুল হাসান, সাবেক উপাচার্য ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত, অধ্যাপক ডা. সোহরাব হোসেন প্রমুখ।

বিচারপতি জয়নাল আবেদিনের বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত বন্ধ করার উদ্দেশ্যে চিঠি দিয়ে প্রধান বিচারপতি শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন বলে মন্তব্য করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, দুদক আইনের ১৯ এর ৩ ধারায় বলা আছে, দুদকের তদন্ত প্রক্রিয়া বন্ধ করার জন্য যদি অপচেষ্টা করে তবে তা তিনবছর শাস্তিযোগ্য অপরাধ। প্রধান বিচারপতি দুদকের তদন্ত প্রক্রিয়া বন্ধ করে এ ধারায় অপরাধ করেছেন। আপনার যদি লজ্জা থাকে, লজ্জায় যদি ফরমালিন না দিয়ে থাকেন তবে পদত্যাগ করুন।

হাছান বলেন, বিএনপি এখন প্রধান বিচারপতির ঘাড়ে বসেছেন। প্রধান বিচারপতির ঘাড়ে বসে তারা রাজনীতি করার চেষ্টা করছেন। নিজেদের কোনো ইস্যু নেই। প্রধান বিচারপতির পর্যবেক্ষণ নিয়ে তারা অপরাজনীতি করার চেষ্টা করছেন। পর্যবেক্ষণে জিয়াউর রহমানের ক্ষমতা দখলকে অবৈধ বলার জন্য প্রধান বিচারপতিকে ধন্যবাদও জানান তিনি।

অধ্যাপক ইকবাল আর্সলান বলেন, প্রধান বিচারপতি বলেছেন- দেশের মানুষ চিকিৎসা পাচ্ছে না, দেশের উন্নয়ন হচ্ছে না। দেশের অগ্রযাত্রায় অবদান রাখা চিকিৎসকদের কটাক্ষ করে এ বক্তব্যে আমাদেরকে বিস্মিত করেছে।

অধ্যাপক আজিজ বলেন, এদেশের ক্রান্তিলগ্নে চিকিৎসক সমাজ এগিয়ে এসেছেন, সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আজ যে দেশ পোলিও মুক্ত হয়েছে, মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যুর হার কমে এসেছে, তা এই চিকিৎসকদেরই অবদান। এই সমাজকে নিয়ে প্রধান বিচারপতির বক্তব্য কোনো ক্রমেই কাম্য নয়। রায়ের ব্যাপারে কোনো আপত্তি নেই তবে অতিসত্ত্বর আপত্তিকর পর্যবেক্ষণগুলো তুলে নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

শীর্ষ সংবাদ:
স্কুল-কলেজে সরাসরি ক্লাস এখন আর বাড়ছে না ॥ শিক্ষামন্ত্রী         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৬ জনকে হত্যার ঘটনায় আটক ৮         ৭ দিনের রিমান্ডে ইকবাল         হাইতিতে অপহৃত ১৭ জন মিশনারিদের হত্যার হুমকি         ধর্ম অবমাননা মামলা ॥ কুমিল্লার আদালতে নেওয়া হয়েছে ইকবালকে         শাহবাগ মোড়ে গণঅনশন, তীব্র যানজট         আইএসের পশ্চিম আফ্রিকা শাখার প্রধান নিহত         যাত্রাবাড়ীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১         গ্রিসের ক্রিট দ্বীপে পাওয়া পায়ের ছাপ ৬০ লক্ষ বছরের পুরনো         ৩ বিভাগে বৃষ্টি হতে পারে         ৫০ কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা         বিএফইউজে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে         মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৭৩, মামলা ৪৯         পায়রা সেতু কাল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিরাপত্তা জোরদারের আহ্বান         ভারতে আবার বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ         ভারতের উত্তরাখণ্ডে পর্বতারোহী ১১ সদস্যের মৃত্যু         সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ কোটি ৩৭ লাখ ৪ হাজার ৭০০ জন         সড়কে শৃঙ্খলা আনাই আমাদের চ্যালেঞ্জ ॥ কাদের