ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

কথোপকথন

দর্শকদের ভাল কিছু উপহার দিতে চাই ॥ অনিরুদ্ধ রাসেল

প্রকাশিত: ০৭:০২, ২৭ মে ২০১৭

দর্শকদের ভাল কিছু উপহার দিতে চাই ॥ অনিরুদ্ধ রাসেল

দেশের তরুণ ও সম্ভাবনায় মেধাবী নির্মাতাদের মধ্যে অন্যতম অনিরুদ্ধ রাসেল। সৃজনশীল এই নির্মাতা ইতোমধ্যে একাধিক খ- ও ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ করে প্রশংসিত হয়েছেন। চলচ্চিত্র নির্মাণেও হাত দিয়েছেন তিনি। চ্যানেল নাইনে আজ থেকে প্রচার শুরু হতে যাচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘টাইম’। এই ধারাবাহিক ও সম্প্রতি ব্যস্ততা নিয়ে তার সঙ্গে কথা হয়। আপনার পরিচালিত নতুন ধারাবাহিক ‘টাইম’ নাটকের বিষয়ে জানতে চাই। অনিরুদ্ধ রাসেল : চ্যানেল নাইনে আজ থেকে প্রচার শুরু হতে যাচ্ছে আমার নির্দেশিত ধারাবাহিক নাটক ‘টাইম’। নাটকটি সপ্তাহে শনি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন রাত ৮টায় প্রচার হবে। নাজনীন চুমকি রচিত নাটকে অভিনয় করেছেন অপূর্ব, আনিসুর রহমান মিলন, আদনান ফারুক হিল্লোল, ইন্তেখাব দিনার, মৌসুমী হামিদ, উর্মিলা শ্রাবন্তী করসহ অনেকে। সবাই ভাল খুব ভাল করেছেন। ‘টাইম’ নাটকের শূটিং কোথায় করলেন? অনিরুদ্ধ রাসেল : নাটকটি দুটি দেশে চিত্রায়িত হয়েছে। ১২০ পর্বের মধ্যে থাইল্যান্ডে ৬০ পর্ব এবং নেপালে ৬০ পর্ব চিত্রায়ন করা হয়েছে। নাটকের গল্প কেমন? অনিরুদ্ধ রাসেল : নাটকের গল্প বিদেশে যাওয়া কতিপয় মানুষের নানা কর্মকা-কে ঘিরে। আমাদের দেশের অনেক মানুষই আছেন যারা বিদেশ বিভূইয়ে বসবাস করতে গিয়ে নানা প্রতারণার শিকার হোন। এ ছাড়া অনেকে আবার লোভে পড়ে নিজেও অনেক অনৈতিক কিছুই করে থাকেন। এসব বিষয়ে তৈরি নানা জটিলতা নিয়েই এগিয়েছে নাটকের গল্প। ধারাবাহিক ‘টাইম’ ছাড়া আর কি কাজ করছেন? অনিরুদ্ধ রাসেল : ‘টাইম’ ছাড়াও বর্তমানে দুটি সিরিয়ালের কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছি। এর একটি চিত্রায়িত হবে থাইল্যান্ডে এবং অন্যটি দেশে। দেশের বাইরে নাটকের শূটিং অনেকেই বিলাসী বলে থাকে। অনিরুদ্ধ রাসেল : আসলে গল্প, ঘটনা ও বাজেটের কারণে বিদেশে কাজ করা হয়েছে। আমার প্রথম কাজ ‘পাঁতায়ার পথে নেয়ামত’ শীর্ষক সাত পর্বের ঈদের নাটকও গল্পের প্রয়োজনে থাইল্যান্ডে চিত্রায়ন করেছিলাম। এর পর একাধিক ধারাবাহিক ও অন্যান্য নাটকও গল্প এবং বাজেটের কারণে করা হয়েছে দেশের বাইরে করা হয়েছে। দেশের বাইরে কাজের ক্ষেত্রে অন্যতম সুবিধা হলো সব শিল্পীদের সময়মতো পাওয়া যায়। এতে সময় ও অর্থ দুটোই বাচে। দেশের বাইরে কাজ হলেই যে বাজেট বেশি হবে তাও নয়। পরিমিত বোধ এবং কাজের প্রতি নিষ্ঠা ও একাগ্রতা থাকলে যে কোন স্থানেই সামর্থ্য অনুযায়ী ভাল কাজ করা সম্ভব। বিদেশে নির্মিত আমার নাটকগুলোর বাজেটও প্রায় দেশের বাজেটে মধ্যেই রয়েছে। আপনার নির্মাণাধীন ‘দ্বিতীয় লিঙ্গ’ চলচ্চিত্রের খবর কী? অনিরুদ্ধ রাসেল : আমার প্রথম নির্মিত চলচ্চিত্র ‘দ্বিতীয় লিঙ্গ’। ব্যতিক্রমী এই চলচ্চিত্রটির ৮০ ভাগ কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। আশা করি চলচ্চিত্রের বাকি কাজ শেষ করে এ বছরই দর্শকদের উপহার দিতে পারব। ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে কাজের ব্যস্ততা কেমন? অনিরুদ্ধ রাসেল : আগামী ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে কয়েকটি খ- নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। বিদেশেও নাটকগুলোর শূটিং করব। আশা করছি দর্শকদের ভাল কিছু দিতে পারব। দেশের টিভি চ্যানেলগুলোর অনুষ্ঠান নিয়ে আপনার মন্তব্য কী? অনিরুদ্ধ রাসেল : দেখুন দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম টিভি চ্যানেল। এই মাধ্যমে সাম্প্রতিককালে তরুণরা নানামুখী কাজ করার চেষ্টা করছেন। দেশীয় চ্যানেলের অনুষ্ঠানগুলোতে দর্শককে ফিরিয়ে আনা তাদের অন্যতম প্রচেষ্টা। এ জন্য নিরীক্ষামূলক কাজ করছেন তরুণ নির্মাতা ও কলাকুশলীরা। ভালমন্দ মিশিয়ে কাজ হচ্ছে এটাই বড় কথা। যে কোন কাজে সমালোচনা থাকবেই। এটা মাথায় রেখেই কাজ করতে হবে। আমিও চেষ্টা করছি যদি ভাল কিছু করা যায়। দর্শকদের ভাল কিছু উপহার দেয়ার মাধ্যমেই আমি সৃষ্টির আনন্দ খুঁজে পাই। এক্ষেত্রে দর্শকদের ভালবাসাই আমার ভাল কাজের অন্যতম প্রেরণা। -সাজু আহমেদ
monarchmart
monarchmart