শনিবার ১০ মাঘ ১৪২৭, ২৩ জানুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দিল্লির দূষণে বিপদের আঁচ পেয়েছে কলকাতা

দিল্লির দূষণে বিপদের আঁচ পেয়েছে কলকাতা

অনলাইন ডেস্ক ॥ পরিবেশ দূষণে ‘ভুক্তভোগী’ দিল্লির অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সতর্ক হচ্ছে রাজ্যের দুই যমজ শহর কলকাতা ও হাওড়া।

সোমবার কলকাতা পুরভবনে এ নিয়ে জরুরি বৈঠক করেন পরিবেশমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়, যিনি আবার কলকাতার মেয়রও। রাজ্যের এই দুই শহরে দূষণ নিয়ে পরিবেশ দফতর যে চিন্তিত, তার আঁচ মিলেছে খোদ মন্ত্রীর কথাতেও। বলেছেন, পুলিশ, পুরসভা ও পরিবেশ দফতর সমন্বয় করে দূষণ রোধে ব্যবস্থা নেবে। এ দিন ছিল সব পক্ষই।

গত বছর হঠাৎই বিষাক্ত হয়ে ওঠে দিল্লির পরিবেশ। শ্বাস প্রশ্বাস নেওয়াই বিপজ্জনক হয়ে উঠেছিল দিল্লিবাসীর পক্ষে। কলকাতায় যাতে সেই ধরনের পরিস্থিতি না হয় তার জন্যই এই বৈঠক।

দিল্লিতে যানবাহন মূলত সিএনজিতে চললেও গত বছর দীপাবলির পরে ধোঁয়া আর ধূলিকণায় ভরে যায় সেখানকার বহু এলাকা। কলকাতা ও হাওড়ায় ক্রমশই বাড়ছে পেট্রোল ও ডিজেলচালিত গাড়ির সংখ্যা। বাড়ছে দূষণও। পরিবেশ মন্ত্রী শোভনবাবু বলেন, ‘‘দিল্লির পরিস্থিতি দেখেই চিন্তা বেড়েছে।’’

পরিবেশমন্ত্রী জানান, গাড়ির ক্ষেত্রে বছরে দু’বার দূষণের শংসাপত্র নেওয়ার নিয়ম অনেকেই মানেন না। সেই প্রবণতা রুখতে দূষণ শংসাপত্র দেওয়ার পদ্ধতির সঙ্গে পুলিশের অ্যাপ যুক্ত হবে। ফলে কেউ শংসাপত্র নিলেই তা পুলিশের রেকর্ডে চলে যাবে। আর পুলিশ সহজে জানতে পারবে কে শংসাপত্র নিয়েছেন। শোভনবাবু জানান, অনেকে ভুল তথ্য দেখিয়ে পার পেয়ে যাচ্ছেন। তা বন্ধ করতে পুলিশ, পরিবেশ ও পরিবহণ দফতরের মধ্যে সমন্বয় হবে। বর্তমানে শহরে যান দূষণ মাপার জন্য ৭০টি কেন্দ্র রয়েছে। তা বাড়িয়ে ১৩৯টি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। একই সঙ্গে শহরের বিভিন্ন স্থানে দূষণ মাপার যন্ত্রও বসানো হবে। এর পাশাপাশি, শহরে বিদ্যুৎচালিত যান ব্যবহার করার উপর জোর দেওয়ার কথাও ভাবা হচ্ছে বলে জানান পরিবেশমন্ত্রী।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

শীর্ষ সংবাদ:
আগামী বুধবার থেকে বাংলাদেশে করোনার টিকাদান শুরু         যেসব খাস জমি রয়েছে সেখানে পার্ক এবং খেলার মাঠ নির্মাণ করা হবে ॥ মেয়র আতিক         যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রতিরক্ষামন্ত্রী অস্টিন         গৃহহীন পরিবারকে গৃহ দিতে পারছি, এটিই আমার সবচেয়ে আনন্দের ॥ প্রধানমন্ত্রী         সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার পিছিয়ে গেল         ‘সর্বাত্মক চেষ্টা করেও ইরানের তেল রফতানি বন্ধ করতে পারেনি ট্রাম্প প্রশাসন’         আবারও পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়ার প্রতিশ্রুতি দিল বাংলাদেশ         মুজিববর্ষে ৭০ হাজার পরিবারকে ঘর দিলেন শেখ হাসিনা         দরিদ্র দেশগুলোকে ৪ কোটি ভ্যাকসিন দেবে ফাইজার         মুক্তিযোদ্ধা তালিকা যাচাই-বাছাই কার্যক্রমের তারিখ পরিবর্তন         বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ২১ লাখ ১৬ হাজার ছাড়াল         মানব কল্যাণে যুগান্তকারী ইতিহাস ॥ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা         চালের দাম কমতে শুরু করেছে, ভোজ্যতেল স্থিতিশীল         রোহিঙ্গাদের দ্রুত প্রত্যাবাসনে অঙ্গীকারবদ্ধ মিয়ানমার ॥ কাইয়া টিন         মুক্তিপণ দাবিতে অপহরণের একমাস পর শিশুর লাশ উদ্ধার         সবচেয়ে হাল্কা গ্রহের সন্ধান         টিএসসি ভবন সংস্কারে দুটি নক্সা তৈরির নির্দেশ গণপূর্তের         ঘন কুয়াশা আর শীতে জনজীবন বিপর্যস্ত         বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে হবে         এমডি পরিচালকদেরও সম্পদের হিসাব দিতে হবে