মঙ্গলবার ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা সমর্থন করেন লিবারম্যান!

ইসরাইলের কট্টর-জাতীয়তাবাদী রাজনীতিক আভিগদর লিবারম্যান প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে সোমবার শপথ নেয়ার পর বলেন, তিনি ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা সমর্থন করেন। গুরুত্বপূর্ণ পদে তার নিয়োগ নিয়ে বিক্ষোভ সৃষ্টির মধ্যে তিনি এ ঘোষণা দেন। খবর এএফপির।

লিবারম্যানকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রধান হিসেবে নিয়োগদানে প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সিদ্ধান্ত ইসরাইলে মধ্যপন্থীদের মাঝে ভয়ের সঞ্চার করেছে এবং যুক্তরাষ্ট্র তা নিয়ে প্রকাশ্যে প্রশ্ন তোলে। দায়িত্ব নেয়ার পর ৫৭ বছর বয়সী সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও ইসরাইল বেইতেনু দলের প্রধান আভিগদর তার নিয়োগে এ অঞ্চলে অসন্তোষ বাড়িয়ে দেবেÑ এমন আশঙ্কা দূর করার চেষ্টা করেন।

লিবারম্যান পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপনকারী ও ইসরাইলের বিভাজন সৃষ্টিকারী রাজনীতিকদের একজন। অতীতে তিনি ফিলিস্তিনী ও ইসরাইলের আরব সংখ্যালঘুদের বিষয়ে উস্কানিমূলক মন্তব্য করে বিতর্ক তৈরি করেন। কিন্তু পার্লামেন্ট তার নিয়োগে অনুমোদন দেয়ার পরপরই লিবারম্যান সাংবাদিকদের বলেন, তিনি ‘দুটি জাতির জন্য দুটি রাষ্ট্র’ সমর্থন করেন।

তিনি ইসরাইলী ও ফিলিস্তিনীদের মধ্যে থেমে থাকা শান্তি আলোচনা পুনারায় শুরু করতে মিসরীয় প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসির সাম্প্রতিক প্রস্তাবও সমর্থন করেন। লিবারম্যান বলেন, এ প্রস্তাবে ‘প্রকৃত সুযোগ তৈরি হয়েছে’। ইসরাইলের ইতিহাসে সবচেয়ে ডানপন্থী সরকার গঠনের অভিযোগে অভিযুক্ত নেতানিয়াহু বেইতেনুকে তার কোয়ালিশনে অন্তর্ভুক্ত করতে আরও একটি দলের সঙ্গে বিরোধ মেটাতে বাধ্য হন।

ইসরাইলের ১২০ আসনের পার্লামেন্ট নেসেটে ভোটাভুটির মাধ্যমে নেতানিয়াহু ৬৬টি আসন পেয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেন। বেইতেনুর সঙ্গে নেতানিয়াহুর সমঝোতায় দেশ ও দেশের বাইরে সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

মুসলমানদেও জন্মনিয়ন্ত্রণ করা উচিত নয় ॥ এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোগান বলেছেন, কোন মুসলিম পরিবারের জন্মনিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত নয়। পাশাপাশি তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, তার দেশের জনসংখ্যা বাড়বে। খবর এএফপির।

এরদোগান বলেন, আমি পরিষ্কারভাবে বলছি, আমাদের বংশধর বাড়াতে হবে। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ কিংবা জন্মনিয়ন্ত্রণ, কোন মুসলিম পরিবার এ ধরনের মানসিকতায় যুক্ত হতে পারে না।

তুরস্কের যুব ও শিক্ষা ফাউন্ডেশন সেবা সংক্রান্ত এক ভাষণে এরদোগান জোর দিয়ে বলেন, ‘আমরা আল্লাহ এবং প্রিয় নবীর দেখানো পথ অনুসরণ করব।’

তুর্কি প্রেসিডেন্ট ইতোপূর্বে বেশ কয়েকবার গর্ভপাত বিষয়টিকে প্রত্যাখ্যান করেছেন। গর্ভপাতকে তিনি ‘খুন’ বলে অভিহিত করেছেন। উল্লেখ্য, তুরস্কের জনসংখ্যা গত কয়েক বছর ধরে শতকরা প্রায় ১ দশমিক ৩ ভাগ হারে বেড়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
শীর্ষে যাবে রফতানিতে ॥ গার্মেন্টস শিল্পে ঈর্ষণীয় সাফল্য         ঢাকা-দিল্লী সম্পর্ক আস্থা ও শ্রদ্ধায় বিস্তৃত         ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ১১ মাসের মাথায় সুচির কারাদণ্ড         বিশ্বজুড়ে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা         অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের সচিব পদোন্নতি দেয়ার প্রক্রিয়া!         বিজয়ের মাস         জাওয়াদ দুর্বল হয়ে লঘুচাপে রূপ নিয়েছে         ৪৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে রিপোর্ট দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ         অরাজকতা সৃষ্টির নীলনক্সা জামায়াতের         আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জনের সূচনা ৬ ডিসেম্বর         বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ছিন্ন করা যাবে না         বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, ২৭৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি         বিএনপি রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে         সমিতি সংগঠন খুলে ফায়দা লুটে নিচ্ছে বিশেষ শ্রেণী         তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         দেশে টিকা উৎপাদনে দুই-চার দিনের মধ্যেই চুক্তি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও বৃত্তি ও সনদের ব্যবস্থা থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী         চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবি ॥ ২১ মাঝি-মাল্লা নিখোঁজ         পেট্রোবাংলার নতুন চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান         আড়াইহাজারে আগুনে দুই শিশুসহ একই পরিবারের চারজন দগ্ধ