বৃহস্পতিবার ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০২ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মাটি ও মানুষের শিল্পী সুলতানের জন্মজয়ন্তী পালন

সাজেদ রহমান, যশোর/ রিফাত-বিন-ত্বহা, নড়াইল ॥ শিশু, বৃক্ষ, মানুষ, প্রকৃতি- সবকিছুর প্রতিই তাঁর অফুরন্ত ভালবাসা। শুধু রং-তুলির স্পর্শে এর মধ্যে তিনি সৌন্দর্য অন্বেষণ করেননি, বাস্তবেও প্রমাণ দিয়েছেন ভালবাসার। তাই ঢাকার ফুটপাথ থেকে দুর্লভ নাগালঙ্গম বৃক্ষনিধন হতে দেখে তাঁর চোখ প্লাবিত হয়েছিল। বলতেন, এ তো একটি বৃক্ষের নিঃশেষ নয়, গোটা জীবনের পরিসমাপ্তি। সারা জীবনের সমস্ত সঞ্চয় তিনি ব্যয় করেন শিশুদের কল্যাণে নির্দ্বধায়। সেই মহান মানুষটি হলেন শিল্পী এসএম সুলতান। বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এসএম সুলতানের ৯১তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে নড়াইলে ৭ দিনব্যাপী সুলতান মেলা শেষ হলো বৃহস্পতিবার।

শিল্পী জন্মেছিলেন সবুজ স্নিগ্ধতায় ছাওয়া নড়াইলের উপকণ্ঠে। ১৯২৩ সালের ১০ আগস্ট। পিতা ছিলেন সামান্য রাজমিস্ত্রি। সহজ-সরল অনাড়ম্বর জীবনের আবহ তাই শিল্পী পেয়েছিলেন শৈশবেই। স্কুলে পড়ার সময় ডঃ শ্যামা প্রসাদের বর্ক্তৃতাদানরত ছবি এঁকে প্রশংসা পেয়েছিলেন। ১৯৩৮ সালে কলকাতা যান। ৪১-এ ভর্তি হন কলকাতা আর্ট স্কুলে। ৪শ’ প্রতিযোগীর মধ্যে ভর্তি পরীক্ষায় অঙ্কনে প্রথম স্থান অধিকার করেন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাঁধাধরা গ-ি তাঁর কাছে ছিল আকর্ষণহীন। ’৪৩-এ সেখান থেকে পলায়ন। সারা ভারত পরিভ্রমণ। আর এ সময় অজ¯্র ছবি আঁকার কাজও চলে। ’৪৪-এ সিমলায় একক চিত্র প্রদর্শনী। দ্বিতীয় একক চিত্রপ্রদর্শনীও সেখানে ’৪৬ সালে। লাহোর ও করাচীতে একক চিত্রপ্রদর্শনী, ’৪৭ ও ’৪৮ এবং ’৪৯-এ। করাচীতে ‘ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন’ আয়োজিত ৪৫টি দেশের শিল্পীরা চিত্রপ্রদর্শনীতে অংশ নেন। এর মধ্যে শিল্পী সুলতানের ছবি শ্রেষ্ঠ হিসেবে পুরস্কৃত। কিন্তু একদিন সেখানে ৪শ’ ছবি রেখে আবার পৃথিবীর পথে বেরিয়ে পড়া। ১৯৫০ সালে লন্ডন গমন। সেখানে ৪টি একক চিত্রপ্রদর্শনীর ব্যবস্থা। এশিয়ার একমাত্র ‘কনটেস্পোয়ারি মাস্টার’ উপাধিতে ভূষিত আর্ট গ্যালারি এ্যাসোসিয়েশন কর্তৃক।

শীর্ষ সংবাদ:
বিএনপি ১১ বছর ধরে বাজেট প্রত্যাখ্যান করছে : তথ্যমন্ত্রী         বিএসএমএমইউতে চালু হচ্ছে ৩৭০ শয্যার‘করোনা সেন্টার’         ঢামেকে কোনো অনিয়ম হলে তদন্তে বেরিয়ে আসবে : স্বাস্থ্যসচিব         সর্বোচ্চ শনাক্তে আক্রান্ত দেড় লাখ, মৃত্যু ১৯’শ ছাড়াল         সকলকে সাথে নিয়ে জনমুখী পু‌লিশ গঠ‌নে কাজ করছি : আইজিপি         করোনা মোকাবেলায় তৃণমূলের ভূমিকা         চাল আত্মসাত অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার বরখাস্ত         ১৫ হাজার কর্মী ছাঁটাই করার পথে এয়ারবাস         করোনা ভাইরাস ॥ দেশে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা গ্লোব বায়োটেকের         রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের উৎপাদন বন্ধের সিদ্ধান্ত         বিজিএমইএর করোনা ফিল্ড হাসপাতাল উদ্বোধন         বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি : জীবিত উদ্ধার সুমনের বক্তব্য অসংলগ্ন         হিসাব চেয়ে দলগুলোকে ইসির চিঠি         খাদ্যে ভেজালকারীরা আর জরিমানা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারবে না : মেয়র তাপস         প্রবাস ফেরতদের কর্মসংস্থানে জাতিসংঘের সহায়তা চান ড. মোমেন         করোনা ভাইরাস ॥ উপসর্গমুক্ত হওয়ার ১৪ দিন পর কাজে ফেরা যাবে         করোনায় আক্রান্ত হলেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক         গ্রাম পুলিশের চাকরি জাতীয়করণে হাইকোর্টের রায় প্রকাশ         বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে এক মাসে শতাধিক ট্রেন চলাচলের রেকর্ড         ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জরিমানা ছাড়াই হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন        
//--BID Records