রবিবার ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাজশাহী উপশহরে শুষ্ক মৌসুমেও জলাবদ্ধতা ॥ দুর্ভোগে মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ এখনও বর্ষা মৌসুম শুরু হয়নি। তবে দুইমাস আগে থেকেই স্থায়ী জলাবদ্ধতায় প্রায় ঘরবন্দী হয়ে পড়েছে রাজশাহী নগরীর অভিজাত এলাকা হিসেবে পরিচিত উপশহরের অন্তত অর্ধশত পবিরার। ড্রেন উপচে এ জলাবদ্ধতার কারণ। এ নিয়ে একাধিকবার সিটি করপোরেশনে অভিযোগ করেও কোন কাজ হয়নি। বাধ্য হয়ে বাসিন্দারা ড্রেনের পচা দুর্গন্ধ পানি মাড়িয়েই চলাচল করছেন। বর্ষা শুরু হলে কি অবস্থা হবে এ নিয়ে এখনই চিন্তিত ওই এলাকার বাসিন্দারা।

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপশহরের ১ নম্বর সেক্টরের পূর্বপাশে মহিলা ঈদগাহের কাছে একটি রাস্তায় থৈ থৈ পানি। ড্রেনের পচা পানি তাই দুর্গন্ধ। বাসিন্দারা জানান, দুই মাসের বেশি সময় ধরে এ অবস্থা বিরাজ করলেও সিটি করপোরেশন কোন পদক্ষেপ নেয়নি।

১ নম্বর সেক্টরের ৬৩৩ নম্বর ‘হেনা ভিলা’র ভাড়াটিয়া মাহমুদ দীর্ঘ এ সমস্যার কথা জানাতে গিয়ে বলেন, বৃষ্টি নয়, তবুও স্বাভাবিক দিনেই এ ধরনের জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। বাড়ির মানুষ অতি প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরুতে চায় না। তিনি আরও জানান, ড্রেনের কোথাও বাঁধ দেয়া আছে। সে কারণে ড্রেনটি পানিতে ভরে থাকে। এ জন্য প্রতিটি বাড়ির পানি ড্রেনে নামলে জলাবদ্ধ ড্রেনের পানি উপচে রাস্তায় চলে আসে। বিষয়টি অনেকবার এলাকার লোকজন গিয়ে রাসিকে সমাধানের জন্য অভিযোগ জানিয়ে আসলেও কোন ফল হয়নি।

ওরিয়ন স্কুলের তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ফারজানা আক্তার। বাড়ির সামনে জলাবদ্ধতা থাকার কারণে প্রায় দিনই স্কুলের যেতে পারে না। পচা পানি পার হয়ে স্কুলে যেতে তার ভাল লাগে না বলে জানায় সে। জামা-কাপড়ে পচা পানি ও কাদা লেগে যায়।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট নগরীর ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ টুটুল বিষয়টি তিনি জানেন উল্লেখ করে বলেন, উপশহর নিউ মার্কেট এলাকায় সেকেন্ডারি ড্রেন নির্মাণ কাজ চলার কারণে এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। কয়েকদিন আগে বিকল্প ব্যবস্থা করে ড্রেনের পানি কমানোর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তবে আবার সেই জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। কাউন্সিলর টুটুল আরও জানান, সেকেন্ডারি ড্রেনের কাজ অল্প দিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে। তাহলে আর এ সমস্যা থাকবে না।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
২৪৩৮৫১৮০৫
আক্রান্ত
১৫৬৭৪১৭
সুস্থ
২২০৯৪৬৭৫৬
সুস্থ
১৫৩০৯৪১
শীর্ষ সংবাদ:
‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি’         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৯         ‘সাম্প্রদায়িক হামলার দায় এড়াতে পারে না ফেসবুক কর্তৃপক্ষ’         নারীরা উদ্যোক্তা হিসেবেও অনেক ভূমিকা রাখছেন ॥ শিল্পমন্ত্রী         রাজধানীতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে : ডিএমপি         ডেঙ্গু : আরও ১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ১৭৯         ইউপি নির্বাচন : ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের নৌকার টিকিট পেলেন যারা         ২৬ অক্টোবর আসছে নতুন রাজনৈতিক দল ‘বাংলাদেশ গণ অধিকার পরিষদ’         কৃষিপ্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে সারা বছরই আম পাওয়া সম্ভব ॥ কৃষিমন্ত্রী         শেখ হাসিনার সরকার হলো সবচেয়ে বেশি নারীবান্ধব ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         আবরার হত্যা মামলা ॥ ২৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ         বিপর্যস্ত তিস্তা অববাহিকা পরিদর্শনে বাপাউবোর প্রতিনিধি দল         অপরাধী যেই দলেরই হোক তার বিচার হবে ॥ আইনমন্ত্রী         বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের সহায়তায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো ঘুরে দাঁড়াবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         পায়রা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী         আমিরাত গেলেন অর্ধলক্ষাধিক যাত্রী         নোয়াখালীতে মন্দিরে হামলা ॥ ৩ আসামির ‘স্বীকারোক্তিমূলক’ জবানবন্দি         চাঁদা না দেওয়ায় মোটরসাইকেল শো-রুমে ডাকাতি করেন চক্রটি         শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল তাইওয়ান         যুক্তরাষ্ট্রসহ ১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করল তুরস্ক