বুধবার ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সিরাজগঞ্জে ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতায় উপচে পড়া ভিড়

বাবু ইসলাম, সিরাজগঞ্জ ॥ আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা ঘোড়দৌড়। এখনও গ্রামে গ্রামে এ খেলার প্রচলন রয়েছে। ঘোড়া শুধু পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে নয়-বিনোদনের মাধ্যম হিসেবেও দেখা দিয়েছে। তিন দিনব্যাপী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতায় হাজার হাজার দর্শক আনন্দ উপভোগ করেছেন। এতে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শৌখিন মালিকদের প্রায় ৪০টি ঘোড়া দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। ঘোড়দৌড় উপলক্ষে বসে গ্রামীণ মেলা। ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা শুরুর প্রথমদিন থেকেই বিভিন্ন গ্রাম থেকে আত্মীয়স্বজন, ঝি-জামাই এলাকায় এসে অবস্থান নেয় এবং আনন্দ উৎসবে শরিক হয়। বাড়িতে বাড়িতে পিঠা পায়েশের ধুম পড়ে যায়। শুধু ডুমুর গোলামী নয়। আশপাশের গ্রামগুলোতেও ঝি-জামাই, বধূ-বেয়ানেরা আমন্ত্রিত হন। তবে এ ধরনের প্রতিযোগিতা দিন দিনই কমে আসছে। কিছুসংখ্যক ঘোড়ার মালিক দেশব্যাপী এসব প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। বর্তমানে ঘোড়া এভাবেই বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে মানুষকে আনন্দ দিচ্ছে। সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ডুমুর গোলামী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠে শেষ হয়েছে তিন দিনব্যাপী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা। শনিবার সমাপনী দিনে বিকেল ৫টায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন সিরাজগঞ্জ সদর আসনের এমপি অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, মোস্তফা কামাল খান, বিমল কুমার দাস, প্রবীণ সাংবাদিক ও বাংলাদেশ বেতারের প্রতিনিধি রফিকুল আলম খান, মেলা ও প্রতিযোগিতা কমিটির সম্পাদক মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন প্রমুখ। পুরস্কার বিতরণী সভায় সভাপতিত্ব করেন গোলাম আম্বিয়া। ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতায় ৩টি গ্রুপে মোট ৩০টি ঘোড়া অংশ নেয়। এদের মধ্যে ক-বিভাগে পরিতোষ ১ম স্থান, খ-বিভাগে সেকেন্দার ১ম, হায়দার ২য়, ফরহাদ ৩য় স্থান এবং গ-বিভাগে ফারুক ১ম, মোক্তার ২য়, নাজিম ৩য় স্থান অধিকার করে।

শীর্ষ সংবাদ:
চামড়ার বাজারে ধস ॥ প্রধান চার কারণ চিহ্নিত         মানুষের উন্নত জীবন ধারা নিশ্চিত করাই মূল লক্ষ্য         ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন ॥ কাদের         নরেন দাস ছিলেন বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ সৈনিক ॥ আইনমন্ত্রী         জুলাইয়ে রেমিটেন্সে রেকর্ড         টেকনাফে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা নিহত         আজ শহীদ শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী         এক সপ্তাহের মধ্যে বন্যার পানি কমবে         করোনা পরীক্ষার সংখ্যা কমলেও রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা         ভ্যাকসিন পরীক্ষার জন্য চীনা কোম্পানির আবেদন         করোনায় চলে গেলেন টিভি ব্যক্তিত্ব বরকতউল্লাহ         খোরশেদ আলম সুজন চসিকের প্রশাসক         নেত্রকোনার ডিসি প্রত্যাহার         এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ নিজস্ব জমিতে স্থানান্তরের নির্দেশ         ৯ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণির ভর্তির অনলাইন কার্যক্রম শুরু         পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক মেজর সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন         করোনা চিকিৎসায় সহজ কোনো সমাধান নেই : ডব্লিউএইচও         পাপিয়ার বিরুদ্ধে সোয়া ৬ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মামলা         বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশে পরিণত হতো : প্রযুক্তিমন্ত্রী        
//--BID Records