রবিবার ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নিলুও বললেন-

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সত্যিই তারেক রহমানের পরিচয় তিনি বিএনপি নেতা আর সাবেক প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতির ছেলে। কিন্তু এই পরিচয়ে কারাগারে ডিভিশন পাওয়া যাবে না। তার বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতির মামলা চলছে। ফলে দেশে এলে তার অবস্থান হবে চোর-ছ্যাঁচড় আর ছিনতাইকারীর সঙ্গে। দেশের রাজনৈতিক নেতাদের কেউ কেউ এ কথা উচ্চরণও করেছেন।

গত সপ্তাহে ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্টের (এনডিএফ) চেয়ারম্যান শেখ শওকত হোসেন নিলু বলেছেন, ‘তারেক রহমান ভয়ে দেশে আসেন না। কারণ দেশে এলে তাকে তৃতীয় শ্রেণীর কয়েদি হিসেবে জেলে ঢুকতে হবে।’

শেখ শওকত হোসেন নিলু তারেক রহমানের সমালোচনা করে বলেন, ‘আপনি কার পরামর্শে অপরিপক্ব বক্তব্য দিচ্ছেন। আপনি বলছেন এ সরকার অবৈধ, নির্বাচন অবৈধ। কিন্তু সরকার বা নির্বাচন অবৈধ হতে পারে না। বলা যেতে পারে, সরকার ও নির্বাচন অনৈতিক। তিনি বলেন, ‘তারেক রহমান বঙ্গবন্ধুকে রাজাকার বলেছেন। বঙ্গবন্ধু জাতীয় নেতা। তাঁর সমালোচনা মওলানা ভাসানী, আতাউর রহমান খান বা ফজলুল কাদের চৌধুরীই করতে পারেন। কিন্তু আপনি করতে পারেন না। কারণ ওই সময় আপনার জন্মই হয়নি। মনে রাখবেন, বিতর্কিত লোক বেশিদূর এগোতে পারে না। সুতরাং আপনি সংযত হন।’

তারেক রহমানকে উদ্দেশ করে নিলু আরও বলেন, ‘আপনি দেশে আসেন না ভয়ে। আপনার মা তো আপনাকে এমপিও বানাননি, মন্ত্রীও বানাননি। দেশে এলে তো আপনাকে তৃতীয় শ্রেণীর একজন কয়েদি হিসেবে জেলে ঢুকতে হবে।’

২০ দল থেকে বহিষ্কৃত এই নেতা বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ারও কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ‘ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জীর সঙ্গে খালেদা জিয়াকে দেখা করতে বলেছিলাম। কিন্তু তিনি দেখা করলেন না। আমি তাঁকে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে অংশ নিতে বলেছিলাম। তিনি তাও করেননি। প্রধানমন্ত্রীর ইফতার পার্টিতে অংশ নেয়ার কারণে তিনি আমাকে জোট থেকে বের করে দিলেন। আমাকে হেলিকপ্টার থেকে ফেলে দিলেন। কিন্তু নিলু জঙ্গলে পড়ল নাকি জমিনে পড়ল তা কিন্তু জানেন না।’

খালেদা জিয়ার উদ্দেশে নিলু বলেন, ‘আপনাকে প্রধানমন্ত্রী থেকে বিরোধীদলীয় নেতা, বিরোধীদলীয় নেতা থেকে আমজনতার কাতারে কারা নিয়ে এলো? তারা আপনার চারপাশেই আছে। তারা আপনার দলও ধ্বংস করবে।’

শীর্ষ সংবাদ:
নির্দিষ্ট এলাকার বাইরে কল কারখানা নয়         তিন বন্দর দিয়ে ভারতে আটকে থাকা পেঁয়াজ আসা শুরু         দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান অব্যাহত রয়েছে ॥ কাদের         কওমি বড় হুজুর আল্লামা শফীকে চিরবিদায়         ওষুধ খাতের ব্যবসা রমরমা         করোনার নমুনা পরীক্ষা ১৮ লাখ ছাড়িয়েছে         করোনা সংক্রমণ বাড়ছে ॥ ফের লকডাউনে যাচ্ছে ইউরোপ         বিশেষ মহলের ইন্ধন-ভাসানচরে যাবে না রোহিঙ্গারা         তুলা উৎপাদনে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার         দগ্ধ আরও দুজনের মৃত্যু, তিতাসের গ্রেফতার ৮ জন দুদিনের রিমান্ডে         শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প আগামী মাস থেকেই ॥ করোনায় সব লণ্ডভণ্ড         আর কোন জিকে শামীম নয় ॥ গণপূর্তের দৃশ্যপট পাল্টেছে         ব্যক্তিগত ও পারিবারিক দ্বন্দ্বই অধিকাংশ খুনের কারণ         এ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার উন্নতি         বর্তমান সরকারের আমলে রেলপথে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে : রেলপথমন্ত্রী         ইউএনও ওয়াহিদা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বদলী, স্বামী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে         সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল পরিচালকের রুম ঘেরাও         চিরনিদ্রায় শায়িত হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী         সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছি ॥ মির্জা ফখরুল         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে ১২৪৭ জনের মৃত্যু