ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বাড়ছে ভোগান্তি-দুর্ভোগ

দীর্ঘ নৌ-জটের কবলে শতাধিক নৌ-যান

সংবাদদাতা, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ)

প্রকাশিত: ১১:০৮, ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

দীর্ঘ নৌ-জটের কবলে শতাধিক নৌ-যান

শতাধিক নৌ-যান

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের পাটলাই নদীপথে দীর্ঘ ৫ কিলোমিটার নৌ-জটের সৃষ্টি হয়েছে। নৌ-জটের কবলে পড়ে সুলেমানপুর বাজার থেকে বোয়ালমার এলাকা পর্যন্ত পনের দিন ধরে সব ধরনের নৌ-যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ফলে শতাধিক কয়লা ও চুনাপাথর বহনকারী নৌ-যান চালক ও শ্রমিকেরা পড়েছেন বিপাকে। অপরদিকে পরিবহন খরচ বাড়ার আশঙ্কায় লোকসানের মুখে পড়তে যাচ্ছে এসব নৌ-যান মালিক, কয়লা ও চুনাপাথর ব্যবসায়ীরা।ভূক্তভোগীরা বলছেন, সুলেমানপুর বাজারের দক্ষিণ-পশ্চিমে নদীটির দুই’শ ফুট স্থান এস্কেভেটর দিয়ে খনন করলে দীর্ঘ এই নৌ-জট সহনীয় পর্যায়ে চলে আসতো। তাছাড়া বৃষ্টির সঙ্গে পাহাড়ি ঢল না হলে এ সমস্যা আরও দীর্ঘতর হয়। কিন্তু ২০ বছর ধরে নাব্যতা সংকটের সমস্যা নিরসনে তেমন কোনো উদ্যোগ নেই।

জানা গেছে, প্রতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে পাটলাই নদীতে নাব্যতা সংকট দেখা দেয়। এ কারণে বছরের এই সময়টাতে যেনো নিয়ম করে নৌ-জটের সৃষ্টি হয়। ভারত থেকে আমদানি করা কয়লা ও চুনাপাথর উপজেলার বড়ছড়া ও চারাগাঁও শুল্ক স্টেশন থেকে পাটলাই নদী পথে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পরিবহন করা হয়ে থাকে। কিন্তু পাটলাই নদীতে নাব্যতা সংকটের কারণে বোয়ালমারা থেকে পুকুরার মুখ পর্যন্ত দীর্ঘ ৫ কিলোমিটার নদীপথে শতাধিক নৌ-যান আটকে চরম দুর্ভোগ পড়েছেন ভুক্তভোগীরা ।

এদিকে সমস্যা নিরসনে সরেজমিনে পরিদর্শন করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক।

তাহিরপুর থানার ওসি সৈয়দ ইফতেখার হোসেন জানান, পাটলাই নদীপথে নাব্যতা সংকটের কারণে সৃষ্ট নৌ-জটে চালক, মালিক ও ব্যবসায়ীরা যেনো কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনার মুখে না পড়েন এ বিষয়টিতে প্রশাসনের নজরদারি রয়েছে।

পাটলাই নদীতে সৃষ্ট নৌ-জট পরিদর্শন শেষে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক জানান, নদীর নাব্যতা সমস্যা নিরসনে হাওর এলাকায় স্থায়ীভাবে ড্রেজার বেইজ করা হবে যেখানে লং বুম এস্কেভেটরসহ যাবতীয় আধুনিক খনন যন্ত্রপাতি থাকবে। 


 

টিএস

×