২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

ফের কামব্যাক

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০২০
  • রেজাউল করিম খোকন

বিশ্বজুড়ে এখন করোনাভাইরাস আতঙ্ক সবাইকে গ্রাস করেছে। বিভিন্ন দেশে মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। এমনি প্রেক্ষাপটে বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া জনসচেতনতামূলক একটি পোস্ট টুইট করে তিনি লিখেছেন, ‘করোনাভাইরাস কেবল বয়স্ক মানুষদের জন্যই বিপজ্জনক নয়। এর আক্রমণে কম বয়সীরাও প্রাণ হারাতে পারে। কোনভাবেই নিজেকে স্মার্ট ভেবে ডেমকেয়ার ভাব নিয়ে চলাফেরা কর না। এতে নিজের বিপদ ডেকে আনতে পার। অতএব, সাবধান। করোনাভাইরাস থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে যথাসম্ভব সাবধানী হও, সতর্কতা অবলম্বন কর। আগামী সপ্তাহে পরিণীতি চোপড়া অভিনীত নতুন সিনেমা ‘সন্দীপ আউর পিঙ্কি ফেরার’ মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। ভারতসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে জনসমাগম এড়াতে সিনেমা হল, শপিং মল, মার্কেট, স্কুল-কলেজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ইতোমধ্যে। এ রকম পরিস্থিতিতে আগামী সপ্তাহে নতুন কোন সিনেমা মুক্তি পাবে কিনা, এটা এখনও বলা যাচ্ছে না নিশ্চিত করে। তবে পরিণীতি চোপড়া চুপচাপ বসে নেই। নিজের অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমাটির প্রচারে নেমেছেন তিনি। ব্ল্যাক কমেডি ধাঁচের এ ছবিটিতে তৃতীয়বারের মতো অর্জুন কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধে পর্দায় আছেন পরিণীতি। এর আগে ‘ইশকজাদে এবং নমস্তে ইংল্যান্ড’ ছবি দুটিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন তারা। গত বেশ কয়েক বছর ধরে পরিণীতি চোপড়া এবং অর্জুন কাপুরের ক্যারিয়ার কোনভাবেই ভাল যাচ্ছে না। যদিও তারা নিয়মিত অভিনয় করে যাচ্ছেন বিভিন্ন সিনেমায়। তবে তাদের অভিনীত সিনেমাগুলো কোনভাবেই সাফল্যের চমক দেখাতে পারছে না। অর্জুন কাপুর অভিনীত সর্বশেষ ছবি ‘পানিপথ’ বড় বাজেটে তৈরি হলেও দর্শক আকর্ষণে ব্যর্থ হয়েছে। একইভাবে পরিণীতি চোপড়ার ‘জাবড়িয়া জোড়ি’ ছবিটিও ফ্লপ হয়েছে। মোটকথা, একটি সুপারহিট সিনেমার জন্য তারা উভয়েই অধীরভাবে অপেক্ষা করছেন। তেমন প্রেক্ষাপটে ‘সন্দীপ আউর পিঙ্কি ফেরার’ ছবিটি আসছে। এখন একটি বলিউডি সিনেমা শূটিং শেষে দর্শকদের সামনে আসতে যতটা সময় লাগে তার চেয়ে অনেক বেশি সময় পার হওয়ার পর সিনেমা হলে আসছে আলোচ্য ছবিটি। এর মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। সবখানে আতঙ্কজনক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এখন দর্শক সিনেমা হলে ভিড়বাট্টার মধ্যে যাওয়ার কথা ভাবতে পারছে না। এ সময়ে যদি পরিণীতি অভিনীত নতুন ছবিটি মুক্তি পায় তাহলে এর বক্স অফিস ফলাফলও হবে হতাশাব্যঞ্জক, এটা আগেভাগে বলে দেয়া যায়। এসব কারণে পরিণীতি নিজেও বেশ টেনশনে রয়েছেন। ওদিকে নায়ক অর্জুন কাপুরও তার অভিনীত এ ছবিটির অনিশ্চিত অবস্থার কারণে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। কপাল ফেরাতে এ ছবিটি যদিও কিছুটা ভূমিকা রাখতে পারত যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকত। ‘সন্দীপ আউর পিঙ্কি ফেরার’ ছবিতে অর্জুন কাপুর কর্পোরেট দুনিয়ার একজন মানুষ এবং পরিণীতি চোপড়া একজন হারিয়ানি পুলশ অফিসার এর ভূমিকায় রূপদান করেছেন। ঘটনাচক্রে তারা দু’জন পরস্পরের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। সম্পূর্ণ বিপরীত জগতের দু’জন নারী-পুরুষ কি ভাবে এক সঙ্গে ভিন্ন এক জীবনে সম্পৃক্ত হয় এটা তুলে ধরা হয়েছে ছবিটিতে। ‘সন্দীপ আউর পিঙ্কি ফেরার’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন দিবাকর ব্যানার্জি। আর এ ছবির প্রযোজনার দায়িত্বে রয়েছে ইয়াশরাজ ফিল্মস। মূলত বিখ্যাত এই ব্যানারের আবিষ্কার পরিণীতি চোপড়া। তার অভিনীত বেশিরভাগ ছবির প্রযোজক ইয়াশরাজ ফিল্মস। তাদের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতা পরিণীতিকে এখনও বলিউডে টিকিয়ে রেখেছে। এটা তিনি নিজেও স্বীকার করেন। ব্ল্যাক কমেডি ধাঁচের এ ছবিটিতে তৃতীয়বারের মতো অর্জুন কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধে পর্দায় আসছেন বলিউডের উচ্চ শিক্ষিত বিদেশী ডিগ্রী ধারণে সুন্দরী এই তন্বী অভিনেত্রী। পরিণীতি চোপড়াকে নিয়ে শুরুতে সবাই যেভাবে আশাবাদী হয়েছিলেন গত কয়েক বছরে ক্যারিয়ারে ক্রমাগত ফ্লপ সিনেমার ধাক্কা তাকে আগের অবস্থান থেকে অনেক নিচে নামিয়ে এনেছে। ৩১ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী গত বছর ‘কেমারি’ ছবিতে অক্ষয় কুমারের বিপরীতে নায়িকা সেজেছেন। ছবিটি ভাল ব্যবসা করলেও পরিণীতির তেমন কোন লাভ হয়নি। সব কৃতিত্ব ছবির নায়ক অক্ষয় পেয়েছেন। এ বছর তাকে আরও দুটি নতুন সিনেমায় দেখা যাবে। এর মধ্যে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন নারী ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় শায়না নেহওয়ালের বায়োপিক ‘শায়না’তে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। এ ছবিটি পরিণীতির ক্যারিয়ারে নতুন মাত্রা যোগ করবে। শুরুতে শ্রদ্ধা কাপুরের শায়না নেহওয়াল চরিত্রে অভিনয়ের কথা ছিল। সে অনুযায়ী প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন। কিন্তু একসঙ্গে অনেক সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাব আসায় কাজের চাপ সামলাতে ‘শায়না’ ছবির কাজ ছেড়ে দেন শ্রদ্ধা কাপুর। এরপর তার জায়গায় পরিণীতি চোপড়া আসেন। এ ছবিতে অভিনয়ের জন্য তাকে যথেষ্ট প্রস্তুতি নিতে হয়েছে। ব্যাডমিন্টন খেলায় পারঙ্গম হতে নিয়মিত অনুশীলন করতে হয়েছে। শায়না চরিত্রটিকে গভীরভাবে জানতে এবং আত্মস্থ করতে তার বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সবার সঙ্গে থেকেছেন কথা বলেছেন পরিণীতি। ধারণা করা যায় ‘শায়না’ ছবিটি পরিণীতিতে অভিনেত্রী হিসেবে নতুন আরেক উচ্চতায় পৌঁছে দেবে। এ ছাড়াও ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিতেও চ্যালেঞ্জিং অভিনয়ের চমক নিয়ে আসছেন পরিণীতি। বিশ্বখ্যাত উপন্যাস অবলম্বনে হলিউডে ছবি তৈরি হয়েছে। হিন্দীতে নির্মিত হওয়া ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিতে পরিণীতি অভিনয় করেছেন একজন ডিভোর্সি তরুণীর ভূমিকায়। এ ছবিতে নিজের অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি অনেকটা উচ্ছ্বসিত হয়ে বলেন, ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ আমার অভিনয় জীবনে সম্পূর্ণ নতুন এক অভিজ্ঞতা। আশা করি দর্শক এ ছবিতে আমাকে নতুনভাবে চিনবে এবং জানবে।

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০২০

১৯/০৩/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: