২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

জনস্বার্থকে প্রাধান্য দিন

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • আল আমিন

আমরা জনসাধারণর বিশ্বাস-অবিশ্বাস আর আশা নিরাশার দোলাচলে দুলতে দুলতে ভোট কেন্দ্রে গিয়েছি এবং বাংলাদেশের একজন বৈধ নাগরিক হিসেবে আমাদের পছন্দ ও অপছন্দের ভিত্তিতে ভোট প্রদানের অধিকার প্রয়োগ করে বেছে নিয়েছি দুই নগর প্রধানকে। আমরা আমজনতারা জানি, যারা নিবাচনে প্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ার লড়াইয়ে অংশ নেয়, তারা নির্বাচনের আগে বড় বড় কথা বলেন, বড় বড় প্রতিশ্রুতি দেন ; অনেকে তো রীতিমতো সোনার শহর বানিয়ে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়ে ফেলেন। নানা ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যদিয়ে যাওয়ার ফলে আজ আমরা নগরবাসী জানি ও বুঝি যে, এসব প্রতিশ্রুতি মিথ্যা ও ফাঁকা বুলি ছাড়া আর কিছুই নয়।

তারপরও এসব আমজনতা তথা আমরা সাধারণ নাগরিকেরা তো মানুষ বটে। আর মানুষের স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্যই হলো যেখানে আশা পূরণ হওয়ার সম্ভাবনা দেখে, সেখানে সে আশায় বুক বেঁধে পথ চলে, স্বপ্ন দেখে একটি নতুন ভোরের। তাই এসব আমজনতা তথা আমরাও প্রতিনিধি নির্বাচনের মধ্যদিয়ে আশায় বুক বাঁধি আরো একটু ভালো করে বাঁচার জন্য, আরও একটু সতেজভাবে নিঃশ্বাস নেয়ার জন্য স্বাধীনতার স্বপ্নকে ডানা দেয়ার জন্য, প্রিয়জনদের নিয়ে প্রিয় নগরীতে নিরাপদে দিনযাপনের জন্য।

নির্বাচিত দায়িত্বশীল প্রতিনিধিদের মনে রাখতে হবে যে, ঢাকা শুধু একটি চার দেয়াল বেষ্টিত কংক্রিটের শহর বা নগর নয়, বরং লাখো মানুষের বুকে বয়ে চলা কোটি স্বপ্নের আশ্রয়স্থলও বটে; গ্রামীণ কিশোরীর নাগরিক পিতার জীবিকা অর্জনের প্রাণান্তকর পরিশ্রমের গল্প আর নাগরিক কিশোরের গ্রামীণ মায়ের শাড়ি কেনার জন্য পত্রিকার হকার বনে যাওয়ার গল্প রয়েছে এর প্রতিটি পথে পথে; এই শহরের প্রতিটি ইটের গাঁথুনিতে খেটে খাওয়া মানুষের স্বপ্ন বাস করে।

এই প্রাণের শহরে রয়েছে অনেক সমস্যা যেমন: ময়লা আবর্জনার সুষ্ঠু ব্যস্থাপনার অভাব, মশার নিয়ন্ত্রণহীন বংশবিস্তার, আলোর অপর্যাপ্ততা, ফুটপাতের অভাব, সড়ক উনয়নের অব্যবস্থাপনা, পর্যাপ্ত কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রের অভাব, সুষ্ঠু উন্নয়ন পরিকল্পনার অভাব, আদর্শ ও পরিকল্পিত নগরায়ণ ও শিল্পায়ণের অভাব প্রভৃতি। নগরবাসী তথা আমাদের প্রত্যাশা আকাশচুম্বী নয়। আমরা স¦ল্পই চাই, আমরা স¦ল্পতেই তুষ্ট। আমরা চাই উন্নয়নমুখী সরকারের অংশীজন হিসেবে মেয়রদ্বয় আমাদের কাছে আসবেন, আমাদের সুখে-দুঃখে পাশে দাঁড়াবেন, ঢাকা নগরে বিদ্যমান সমস্যাগুলো দূর করে ঢাকাকে একটি প্রাণবন্ত, দুর্নীতিমুক্ত, সবুজময় ও স্বপ্নপূরণের পরিবেশবান্ধব নগরীতে পরিণত করবেন; মেয়রদ¦য় তাদের নিজ স্বার্থকে প্রাধান্য না দিয়ে জনস্বার্থকে প্রাধান্য দেবেন, হবেন জনগণের জনপ্রতিনিধি এটাই আমাদের তথা পুরো নগরবাসীর প্রত্যাশা ও আকুল চাওয়া।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতি ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছেন। আমরা নগরবাসী চাই, মেয়রদ¦য় প্রধানমন্ত্রীর এই নীতিকে মাথায় রেখে ঢাকাকে পরিণত করবেন একটি প্রাণজাগানিয়া নগরে।

নেত্রকোনা থেকে

প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০

১৩/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: