২৭ জানুয়ারী ২০২০, ১৪ মাঘ ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 

রুশ সৈন্যের গুলিতে ৮ সহকর্মী নিহত

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ১১:১৩ এ. এম.
রুশ সৈন্যের গুলিতে ৮ সহকর্মী নিহত

অনলাইন ডেস্ক ॥ রাশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় এক সামরিক ঘাঁটিতে সেনাসদস্যের গুলিতে সহকর্মী ৮ সৈন্য নিহত ও আরও ২ জন গুরুতর আহত হয়েছে বলে দেশটির কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে চিতা শহরের কাছে গোর্নি গ্রামের ৫৪১৬০ নম্বর সেনা ইউনিটে এ ঘটনা ঘটে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সন্দেহভাজন হত্যাকারী রমিল শামসুৎদিনভকে আটক করা হয়েছে। তিনি মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন বলে কর্মকর্তাদের ধারণা।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শুক্রবার বৈকাল হ্রদের পূর্ব অংশে সৈনিকদের দৈনিক পালাবদলের সময়ে এই গুলির ঘটনা ঘটে।

নিহত ৮ জনের মধ্যে দুই সামরিক কর্মকর্তাও আছেন।

সন্দেহভাজন হত্যাকারী শামসুৎদিনভ হতাহতদের মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছিল বলে জানিয়েছে রুশ গণমাধ্যমগুলো।

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর ওই ৫৪১৬০ সেনা ইউনিটের মধ্যেই একটি আর্টিলারি ব্রিগেড ও একটি ক্ষেপণাস্ত্র ব্রিগেড আছে; এই ইউনিটের হাতে ইস্কান্দের ক্ষেপণাস্ত্রও আছে, যা পারমাণবিক ওয়ারহেড বহনে সক্ষম বলে বিবিসি জানিয়েছে।

রাশিয়ায় ১৮ থেকে ২৭ বছর বয়সী সব পুরুষের জন্য সামরিক বাহিনীতে কাজ করা বাধ্যতামূলক। সাধারণত এক বছর এ সেবা দিতে হয়; তারপর যে কেউ চাইলে সশস্ত্রবাহিনীকে পেশা হিসেবে নিতে চুক্তি করতে পারেন।

২০০০ সালের মাঝামাঝিও রুশ সামরিক বাহিনীর ভেতর বিস্তৃত সহিংসতা ও বুলিংয়ের (মানসিক নির্যাতন, খারাপ ব্যবহার) চলছিল বলে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোর বিভিন্ন প্রতিবেদনে বলা হতো।

সাধারণত সশস্ত্র বাহিনীতে আসা নতুন সদস্যরাই ওই সহিংসতা ও বুলিংয়ের শিকার হতেন।

মানবাধিকার সংস্থাগুলোর সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এ ধরনের ঘটনার উল্লেখ ছিল না; সামরিক বাহিনীর আধুনিকীকরণ ও সেখান থেকে সহিংসতা-বুলিং নির্মূলে মস্কো গর্বও করে আসছে।

শুক্রবারের গুলির ঘটনা তদন্তে রাশিয়ার উপপ্রতিরক্ষা মন্ত্রী আন্দ্রেই কারতাপোলভের নেতৃত্বাধীন একটি বিশেষ কমিশনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ১১:১৩ এ. এম.

২৬/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: