২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ৮ ফাল্গুন ১৪২৬, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) পওর বিভাগের কর্মকর্তা সরদার রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ উঠেছে। দীর্ঘ ৯ বছর ধরে একই শাখায় কর্মরত থাকায় এখন তার হুমকিতেই অতিষ্ঠ পাউবোর ঠিকাদার ও সংশ্লিষ্টরা। তার দুর্নীতির তদন্ত করে তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসীর পক্ষে নগরীর উপকণ্ঠ মাসকাটা দীঘি এলাকার জাহিদ হাসান নামের এক ব্যক্তি। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালকের কাছে এসব অভিযোগ করেন তিনি। অভিযোগের অনুলিপি, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, উপমন্ত্রী, সচিব ও শৃঙ্খলা অধিদফতরে দেয়া হয়েছে। পাউবো মহাপরিচালকের কাছে পাঠানো অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ‘স্থানীয় মস্তান’ দারা পরিবেষ্টিত সরদার রুহুল আমিন সব সময় দাপটের সঙ্গে নানা অনিয়ম করে চলেছেন। অফিসের পাশে বানিয়েছেন বিলাসবহুল বাড়ি। সেখান থেকেই নানা দাপট চালিয়ে যাচ্ছেন। ৯ বছর ধরে একই দফতরে থাকায় জুন মাসে কাজ না করে অফিসের কর্মচারীদের দিয়ে কাজ করিয়ে বিল-ভাউচার তৈরি, একই মাল বার বার ভাউচার বানিয়ে বিল উত্তোলন করেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, ওয়াপদা কলোনির পুকুরে স্থানীয়দের দিয়ে মাছ চাষ করে লাখ লাখ টাকার মাছ চুরি, ছুটির দিনে আনছারদের বেতন কর্তনের ভয় দেখিয়ে স্টোরের মাল চুরি করে বিক্রির অভিযোগও করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। গত বর্ষা মৌসুমে রাজশাহীর পদ্মা নদীর তীর সংরক্ষণের কাজের দায়িত্ব নিয়েও চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। বর্ষা মৌসুমে প্রকল্প বাস্তবায়ন না করে, ঠিকাদারদের যোগসাজশে মোটা অঙ্কের টাকা আত্মসাত করেছেন। শহর রক্ষা বাঁধের পুলিশ লাইনের দক্ষিণের দিকে বর্ষা মৌসুম এলেও শহররক্ষা বাঁধের ওই স্থানটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠে। দুই বছর আগেও সিসি ব্লক ও পিচিং ব্লক ডাম্পিং এবং বাঁধের স্লোপের উপযোগী না হলেও এ কর্মকর্তা কাঁচা ব্লক ব্যবহার করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয়।

অভিযোগপত্রে অবিলম্বে রাজশাহী থেকে এই দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার অপসারণ ও তার দুর্নীতি ও অনিয়মের তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়। এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে রাজশাহী পাউবো পওর সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের কোন অভিযোগ তার দফতরে পৌঁছেনি। যদি কেউ অভিযোগ করে থাকেন তাহলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯

১৭/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: