১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

কিশোরগঞ্জে আইনজীবীর হাতে হ্যান্ডকাফ, বিচারক অবরুদ্ধ

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯
  • এজলাস ভাংচুর, বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ, ১৬ অক্টোবর ॥ কিশোরগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আদালত চলাকালে বিচারকের নির্দেশে এক সিনিয়র আইনজীবীকে পুলিশ আটক করে। পরে হাতকড়া পরিয়ে আসামির কাঠগড়ায় দঁাঁড় করিয়ে রাখার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ আইনজীবীরা এজলাসে ব্যাপক ভাংচুর চালিয়ে বিচারককে আধা ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বেলা সোয়া ১টার দিকে কিশোরগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর আদালতে এ ঘটনাটি ঘটে।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, আদালত চলাকালীন সিনিয়র আইনজীবী মোঃ ইকবাল হোসেন বিপ্লব একটি মামলার নথি দেখার জন্য বেঞ্চ সহকারীকে বললে মামলার নথিটি আইনজীবী বিপ্লবকে প্রদান করেন। তিনি মামলার নথিটি নিয়ে আদালতের দরজায় নথিটির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাকালীন মামলার ডাক পড়ে। এমতাবস্থায় ওই আইনজীবী নথিটি বেঞ্চ সহকারীর নিকট হস্তান্তরের পর বেঞ্চ সহকারী মামলার নথিটি যথারীতি ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোঃ সোলাইমানের নিকট উপস্থাপন করেন। এ সময় বিচারক আইনজীবী বিপ্লবের নিকট জানতে চান মামলার নথি নিয়ে তিনি কোথায় গিয়েছিলেন। জবাবে ওই আইনজীবী নথিটি দেখার জন্য বেঞ্চ সহকারী নিকট থেকে চেয়ে নেয়া হয়েছে বলে জানানোর পরও বিচারক আইনজীবী বিপ্লবকে মামলার নথি চোর আখ্যা দিয়ে তাকে আটকের নির্দেশ দেন পুলিশকে। নির্দেশ পেয়ে পুলিশ আইনজীবী বিপ্লবকে তাৎক্ষণিক আটক করে তাকে হাতকড়া পরিয়ে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে রাখেন। এ ঘটনার পরপরই জেলা বারের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মোঃ শহীদুল আলম সহিদসহ উপস্থিত বেশ কয়েকজন সিনিয়র আইনজীবী-আইনজীবী বিপ্লবকে ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করলেও বিচারক তাদের অনুরোধ রাখেননি। এ খবর আদালত পাড়ায় ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ আইনজীবীরা সব আদালত বর্জন করে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট মিয়া মোহাম্মদ ফেরদৌসের নেতৃত্বে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারকের এজলাসে ছুটে গিয়ে আইনজীবী বিপ্লবকে ছাড়িয়ে নেন। এ সময় উত্তেজিত আইনজীবীরা এজলাসে ব্যাপক ভাংচুর চালায় এবং বিচারক মোঃ সোলায়মানকে আধা ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ছুটে গিয়ে আদালতের সকল পর্যায়ের কার্যক্রম বন্ধ করে ওই বিচারককে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেন।

এদিকে আইনজীবীর সঙ্গে অশালীন আচরণের প্রতিবাদে আইনজীবীরা আদালত প্রাঙ্গণে মিছিলে উত্তপ্ত করে তুলে। এ সময় বিক্ষুব্ধ আইনজীবীরা বিচারকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের সেøাগান দিতে থাকে। এর ভেতর দিয়েই জেলা আইনজীবী সমিতি তাৎক্ষণিক এক জরুরী সভায় মিলিত হয়। সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট মিয়া মোহাম্মদ ফেরদৌসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মোঃ শহিদুল আলম সহিদ, স্পেশাল পিপি এ্যাডভোকেট এম এ আফজল, এ্যাডভোকেট এম এ রশিদ, এ্যাডভোকেট আতাউর রহমান, এ্যাডভোকেট তারেক উদ্দিন আবাদ, এপিপি মোঃ মফিজ উদ্দিন প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১৭ অক্টোবর ২০১৯

১৭/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: