২১ জানুয়ারী ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

যশোরের তিন ইউনিয়নের মানুষ সন্ত্রাসী রুনু বাহিনীর হাতে জিম্মি

প্রকাশিত : ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০২:১২ পি. এম.
যশোরের তিন ইউনিয়নের মানুষ সন্ত্রাসী রুনু বাহিনীর হাতে জিম্মি

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর সদরের চুড়ামনকাটি, কাশিমপুর ও হৈবতপুর ইউনিয়নের মানুষ সন্ত্রাসী মেহেদী হাসান রুনু’র হাতে জিম্মি হয়েছে পড়েছে। এলাকায় চাঁদাবাজি, চুরি, ছিনতাই, মেয়েদের উত্যক্ত করাসহ সে মাদক ব্যবসা করছে। প্রতিবাদ করলেই সন্ত্রাসী রুনু তার বাহিনীর লোকজন হামলে পড়ছে প্রতিবাদকারীর উপর। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে চাই স্থানীয় মানুষ। আজ শনিবার প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের বাসিন্দাদের পক্ষে ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন শান্তি। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বরসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, যশোর সদরের চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলা গ্রামের মেহেদী হাসান রুনু দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় চুরি, ডাকাতি, চাঁদাবাজি, মস্তানি, ছিনতাই, স্কুল পড়ুয়া মেয়েদের উত্যক্ত, মাদক ব্যবসা করছে। সে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করার জন্য রুনু চুড়ামনকাটি ছাড়াও পাশ্ববর্তী কাশিমপুর ও হৈবতপুর ইউনিয়নে বিশাল সন্ত্রাসী বাহিনী গঠন করেছে। তাঁর সন্ত্রাসী বাহিনীতে রয়েছে একাধিক মামলার আসামি ঝাউদিয়ার গোলাম মোস্তফা, মেহের আলী, নাসিম, বাদিয়াটোলার ইলিয়াস, শাওন, বাগডাঙ্গার পলাশ, আল আমিন, দোগাছিয়ার রবিউল ডাকাত, সেলিম, নওদাগ্রামের শাওনসহ আরও অনেকে। সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান রুনুর নামে যশোর কোতয়ালী থানায় ৯ টি মামলা রয়েছে। সর্বশেষ মামলা হয় গত মাসে। বাদিয়াটোলা গ্রামের এক মেয়েকে অপহরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে তার চাচা ও পিতাকে কুপিয়ে জখম করে সে। এর আগে রুনু যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ফরিদুল ইসলামকে গুলি করে হত্যা করার চেস্টা, ছাতিয়ানতলা চুড়ামনকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে মারপিট, ওই বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোজাম্মেল হককে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেস্টা, চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের সাবেক সদস্য শুকুর আলীর উপর হামলা, ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মুন্নার উপর হামলা চালায়। প্রভাবশালী মহলের আর্শীবাদ থাকায় সন্ত্রাসী রুনু এখনও প্রকাশ্যে ঘুরছে, কিন্তু পুলিশ তাকে আটক করছে না। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর তরিকুল ইসলাম মিলন, ৮ ওয়ার্ডের মেম্বর আব্দুস সবুর, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সালেহা বেগম, শাহানা পারভীন, চুড়ামনকাটি ছাতিয়ানতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফজলুর রহমান প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১২ অক্টোবর ২০১৯, ০২:১২ পি. এম.

১২/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: