মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

উইন্ডিজ-অস্ট্রেলিয়া ফাইনাল আজ

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া, আধুনিক সময়ের দুর্ধর্ষ এক দল দক্ষিণ আফ্রিকা, সঙ্গে টি২০ বিশ্বকাপে বাজিমাত করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে লড়াইটাও হয়েছে সেয়ানে সেয়ানে। লীগ পর্বে প্রতিটি দল প্রত্যেকের বিপক্ষে তিনবার করে মুখোমুখি হয়। সেখানে প্রতিটি দলকেই পেতে হয়েছে হারের তেতো স্বাদ। ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিপক্ষ কে, সেটি নির্ধারিত হতে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। শুক্রবার প্রোটিয়াদের উড়িয়ে দিয়ে ব্রিজটাউনে আজকের ফাইনাল ‘ফয়সালায়’ অসিদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জেসন হোল্ডারের দল জিতেছে ১০০ রানের বিশাল ব্যবধানে। ১ বল আগে অলআউট হলেও জয়ের ‘নায়ক’ ড্যারেন ব্রাভোর ম্যারাথন সেঞ্চুরির (১০২) সৌজন্যে ২৮৫ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ক্যারিবীয়রা, জবাবে ৪৬ ওভারে ১৮৫ রানে গুটিয়ে যায় এবি ডি ভিলিয়ার্সের দ.আফ্রিকা।

স্কোরকার্ড দেখলে ম্যাচটি একতরফা বলে মনে হবে। কিন্তু একদিবসীয় দ্বৈরথে ঘটনার কমতি ছিল না, বিশেষ করে দুদলের ব্যাটিংয়ে। পেসার কাগিসো রাবাদার (৩/৩১) বিধ্বংসী স্পেলে ২১ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই প্রায় ডুবতে বসেছিল স্বাগতিকরা। দুই ওপেনার জনসন চার্লস (৪) আন্দ্রে ফ্লেচারের (৮) সঙ্গে রানের খাতা খেলার আগে সাজঘরে ফর্মের তুঙ্গে থাকা মারলন স্যামুয়েলস (০) ও অভিজ্ঞ দীনেশ রামদিন (৪)। সেখান থেকেই কাইরেন পোলার্ডকে (৭১ বলে ৬২) নিয়ে হাল ধরেন ব্রাভো, পঞ্চম উইকেটে দুজনে যোগ করেন ১৫৬ রান। শেষদিকে দারুণ কার্যকর ব্যাটিং উপহার দিয়েছেন অধিনায়ক জেসন হোল্ডার (৪০) ও কার্লোস ব্রেথওয়েট (৩৩*)। ১০৩ বলে ১২ চার ও ৪ ছক্কায় ১০২ রানের দুরন্ত ইনিংসে ম্যাচসেরা হয়েছেন ব্রাভোই। দলকে বিপদের মুখে কেবল টেনেই তোলেননি ৯০তম ম্যাচে ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেয়ার পথে দারুণ সব স্ট্রোক খেলেছেন ব্রাভো ভাইদের (বড় ডোয়াইন ব্রাভো) ছোট জন। ক্রিস মরিসও নিয়েছেন ৩ উইকেট।

২৮৫ রান তাড়া করতে নেমে ১৩৪ রানেই ৯ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা! ১৬ রান করে শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বলে সাজঘরে হাসিম আমলা। এরপর তারকাখচিত ব্যাটিং লাইনের বাকি সদস্যরা আসা-যাওয়ার মিছিলে যোগ দেন। কুইন্টন ডি’কক (৬) ফ্যাফ ডুপ্লেসিস (৩), এবি ডি ভিলিয়ার্স (২) কেউই দুই অঙ্ক ছুঁতে পারেননি। এক অঙ্কে বন্দী দুই অলরাউন্ডার জেপি ডুমিনি (৫) আর ক্রিস মরিসরাও (৭)! দলীয় ৬৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে প্রোটিয়ারা, ম্যাচ ওখানেই শেষ।

শেষদিকে ফারহান বিহারদিয়েন (৩৫), ওয়াইন পারনেল (২৮) ব্যবধান কমিয়েছে কেবল। দক্ষিণ আফ্রিকার সবচেয়ে বেশি ৫১ রান এসেছে শেষ উইকেট জুটিতেÑ মরনে মরকেল (৩২*) ও ইমরান তাহির (২৯) ওয়ানডেতে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেছেন এই যা সান্ত¡না। তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ও সুনীল নারাইন।

সদ্য টি২০’র বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হলেও সিরিজটা যেহেতু পঞ্চাশ ওভারের স্বাগতিকরা তাই সেভাবে ফেবারিট ছিল না। আজকের ফাইনালে ওয়ানডের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অসিরা কিছুটা এগিয়ে থাকবে। স্যামুয়েলসের সেঞ্চুরি সত্ত্বেও (১২৫) ২৮২ রান টপকে আগের ম্যাচে যারা এই উইন্ডিজকে হারিয়েছিল ৬ উইকেটে। অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের (৭৮) সঙ্গে হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন অলরাউন্ডার মিচেল মার্শ (৭৯)। দারুণ বোলিং করেন মিচেল স্টার্ক (৩/৫১), জেমস ফকনার (২/৫৬), স্কট বোল্যান্ড (২/৬৯)। তবে স্যামুয়েলসের সঙ্গে ডোয়াইন ব্রাভোর ফর্ম চ্যাম্পিয়নদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারে। প্রোটিয়াদের উড়িয়ে দেয়ার পর সেঞ্চুরিয়ান ব্রাভো যে অসিদের প্রকাশ্য হুঙ্কার দিয়ে রেখেছেন।

প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০১৬

২৬/০৬/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: