মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ জুলাই ২০১৭, ৮ শ্রাবণ ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে ইরফান খান

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৬
বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে ইরফান খান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ইরফান খান! হলিউডের ‘লাইফ অব পাই’ এবং বলিউডের ‘পিকু’ চলচ্চিত্রের অন্যতম অভিনেতা। ভারতের চতুর্থ বেসামরিক সম্মাননা পদ্মশ্রীতে ভূষিত হয়েছেন ২০১১ সালে। এর পরের বছর পেয়েছেণ ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। তিনটি ফিল্মফেয়ার এ্যাওয়ার্ডস, তিনটি আইফা এ্যাওয়ার্ডস, এশিয়ান ফিল্ম এ্যাওয়ার্ডসহ অনেক আন্তর্জাতিক সম্মানও রয়েছে ইরফানের ঝুলিতে। ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’ চলচ্চিত্রেও যিনি ছিলেন। আর কিছু দিন পর টম হ্যাঙ্কসের সঙ্গে দেখা যাবে ড্যান ব্রাউনের উপন্যাস নিয়ে নির্মিত ‘ইনফারনো’ চলচ্চিত্রে। এমন একজন অভিনেতা প্রথমবারের মতো বাংলাদেশী কোন নির্মাতার চলচ্চিত্রে কাজ করছেন। এ লক্ষ্যে গত ১৬ মার্চ ঢাকায় এসেছেন ৪৯ বছর বয়সী এই অভিনেতা। তার কাজের প্রতি নিষ্ঠাই বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে ইরফানকে। ইরফান খানের জন্যই মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নতুন চলচ্চিত্র আলোচনায় এসেছে।

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’ নামের নতুন চলচ্চিত্রের জমকালো মহরত হলো শুক্রবার রাতে রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে। চলচ্চিত্রের অন্যতম চমক বলিউড ও হলিউডের খ্যাতিমান অভিনেতা ও প্রযোজক ইরফান খান। চলচ্চিত্রে আরও অভিনয় করবেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, নুসরাত ইমরোজ তিশা, রোকেয়া প্রাচী, নাদের চৌধুরী, কলকাতার পার্নো মিত্র প্রমুখ। আজ রবিবার থেকে ঢাকায় ‘ডুব’ চলচ্চিত্রের দৃশ্যধারণ শুরু হয়ে টানা ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। চলচ্চিত্রটির আন্তর্জাতিক নাম ‘নো বেড অব রোজেস’। এটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন ইরফান খান, জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার এসকে মুভিজ। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার স্বত্বাধিকারী আব্দুল আজিজ ও কলকাতার এসকে মুভিজের অন্যতম অংশীদার হিমাংশু ধানুকা। ছবিটির মিউজিক পার্টনার লাইভ টেকনোলজিস।

এদিকে ‘ডুব’ চলচ্চিত্রে বলিউড অভিনেতা ইরফান খানকে নির্বাচন করা প্রসঙ্গে মহরত অনুষ্ঠানে পরিচালক ফারুকী জানান, চিত্রনাট্য লেখার সময়ই তিনি প্রধান চরিত্রটির জন্য দক্ষিণ এশিয়ার আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অভিনেতা ইরফান খানকে ভেবে রেখেছিলেন।

ইরফান ক্যারিয়ারে অর্ধশতেরও বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। যেগুলোর প্রায় সবই হিন্দি অথবা ইংরেজী ভাষার। তাই বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন বাংলা খুব কঠিন ভাষা। জানি এটা পুরোপুরি আয়ত্বে আনতে পারব না। তবু চেষ্টা করছি যতটা শেখা যায়। ফারুকী নির্মিত চলচ্চিত্র দেখে মুগ্ধ হয়েছেন তিনি। বিশেষ করে ‘পিঁপড়াবিদ্যা’ দেখেই তার আগ্রহ জন্মেছে। ফারুকীর গল্প বলার ধরন বেশি আকৃষ্ট করেছে তাকে। তিনি আরও বলেন এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত হতে চাই।

অনুষ্ঠানে রোকেয়া প্রাচী বলেন, এমন একজন অভিনেতা বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে কাজ করছেন এটা প্রকৃত অর্থে আমাদের সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। তার সঙ্গে কাজ করলে অনেক কিছু শিখতে পারব। এটা অনেক বড় সুযোগ। এ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আন্তর্জাতিকভাবে আমাদের পথটা অনেক বড় হয়ে যেতে পারে। চলচ্চিত্রে নিজের প্রস্তুতির ব্যাপারে প্রাচী বলেছেন, পরিচালক যা ভাবছেন তা দেয়াই অভিনয়শিল্পীর প্রস্তুতি। পরিচালকের নির্দেশনা মেনে সঠিকভাবে কাজ করার মানসিকতা ধরে রাখাই অভিনেতা-অভিনেত্রীর মূল কাজ।

‘ডুব’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত ওপার বাংলার অভিনেত্রী পার্নো মিত্র বলেন, কলকাতায় মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর অনেক সুনাম। আমি এ চলচ্চিত্রে তার পরিচালনায় কাজ করব জেনে সবাই বাহবা দিয়েছে। আর ইরফান খানের সঙ্গে কাজ করা সব অভিনেত্রীরই স্বপ্ন। আমার সহশিল্পী হিসেবে তার নাম দেখব, এটা অবশ্যই আনন্দের।

অভিনেত্রী তিশা বলেন, এ চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্য খুবই সুন্দর। এমন চিত্রনাট্য তৈরির জন্য ফারুকীকে ধন্যবাদ। ইরফান খানকেও ধন্যবাদ এ ছবিতে যুক্ত হয়ে তার সঙ্গে কাজের সুযোগ দেয়ার জন্য।

‘ডুব’ চলচ্চিত্রের গল্প হলো দুরবস্থায় পড়া ও তা থেকে উতরে ওঠা দুটি পরিবারকে ঘিরে। এর মধ্যে একটি পরিবারের কর্তার মৃত্যুর পর উভয় পক্ষই বুঝতে পারে ভালবাসার বুনন কত দারুণ। মৃত্যু সবসময় সবকিছু দূরে নিয়ে যায় না, কখনও কখনও কাছেও নিয়ে আসে। জীবন কখনও কখনও নির্মম, কিন্তু মৃত্যুর মাঝে থাকে ভালবাসা, সম্মান ও সমবেদনা।

প্রকাশিত : ২০ মার্চ ২০১৬

২০/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: